ঢাকা ১০:৫৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেনীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই তরুণের মৃত্যু

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১২:১০:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪
  • ১২ বার

ফেনীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই তরুণের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাইচ্ছুটি ও সোনাগাজী ডাক বাংলা এলাকায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ফেনী সদর উপজেলার শর্শদি ইউনিয়নের নোয়াবাদ এলাকার গুড়াগাজী বাড়ির হারুনুর রশীদের ছেলে তানভীর হোসেন সৈকত (১৬)। আরেকজন ছাগলনাইয়া উপজেলার মহামায়া ইউনিয়নের চাঁদগাজী এলাকার প্রবাসী সিরাজুল ইসলামের ছেলে শাকিল হক শান্ত (২৬)। শান্ত দীর্ঘদিন ধরে পরিবারের সঙ্গে শহরের শহীদ শহিদুল্লাহ কায়সার সড়কের মেডিস্কিন হাসপাতাল সংলগ্ন একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সৈকত বিকেল ৫টার দিকে বোনের বাড়ি থেকে ফেরার পথে কাইচ্ছুটি রাস্তার মাথায় মহাসড়ক পার হওয়ার সময় একটি মাইক্রোবাসের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিন বিকেলে ফেনীর সোনাগাজীতে তিন বন্ধু মিলে প্রাইভেটকার নিয়ে ঘুরতে বের হয়। পথমধ্যে গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রাণ হারান শাকিল হক শান্ত। এ সময় গাড়িতে থাকা তার অপর দুই বন্ধু অমি এবং রবিন গুরুতর আহত হয়েছে।

নিহত সৈকতের ভগ্নিপতি মজিবুল হক বলেন, সৈকত সবদিক থেকে অনেক ভালো ছেলে ছিল। পরিবারে পাঁচ ভাইবোনের মধ্যে সে সবার ছোট। আমি প্রবাস থেকে ফেরার পর ঈদ উপলক্ষ্যে আজ (শুক্রবার) শ্বশুর বাড়ির সবাইকে দাওয়াত করেছিলাম। এখান থেকে বাড়ি ফেরার পথে পরিবারের সবাই চলে গেলেও সৈকত পরে বের হয়। পরে কাইচ্ছুটি এলাকায় পৌঁছালে তাকে একটি মাইক্রোবাস ধাক্কা দেয়। তার এমন আকস্মিক মৃত্যু কোনভাবেই মানতে পারছে না কেউ।

সৈকতের ফুফাতো ভাই কামরুল বলেন, আমরা সবাই একসাথে দুপুরে তার বোনের বাসায় দাওয়াত খেতে যাই। সেখান থেকে বিকেলে বাড়ি ফেরার সময় সৈকত আমাদের পরে আসে। বাড়িতে গিয়ে হঠাৎ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসি। এখানে এসে শুনি সৈকত মারা গেছে।

ফেনী জেনারেল হাসপাতালে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য জসিম উদ্দিন বলেন, কয়েকজন পথচারী গুরুতর আহত অবস্থায় সৈকতকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। লাশ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

ফেনীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই তরুণের মৃত্যু

আপডেট টাইম : ১২:১০:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

ফেনীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই তরুণের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাইচ্ছুটি ও সোনাগাজী ডাক বাংলা এলাকায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ফেনী সদর উপজেলার শর্শদি ইউনিয়নের নোয়াবাদ এলাকার গুড়াগাজী বাড়ির হারুনুর রশীদের ছেলে তানভীর হোসেন সৈকত (১৬)। আরেকজন ছাগলনাইয়া উপজেলার মহামায়া ইউনিয়নের চাঁদগাজী এলাকার প্রবাসী সিরাজুল ইসলামের ছেলে শাকিল হক শান্ত (২৬)। শান্ত দীর্ঘদিন ধরে পরিবারের সঙ্গে শহরের শহীদ শহিদুল্লাহ কায়সার সড়কের মেডিস্কিন হাসপাতাল সংলগ্ন একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সৈকত বিকেল ৫টার দিকে বোনের বাড়ি থেকে ফেরার পথে কাইচ্ছুটি রাস্তার মাথায় মহাসড়ক পার হওয়ার সময় একটি মাইক্রোবাসের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিন বিকেলে ফেনীর সোনাগাজীতে তিন বন্ধু মিলে প্রাইভেটকার নিয়ে ঘুরতে বের হয়। পথমধ্যে গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রাণ হারান শাকিল হক শান্ত। এ সময় গাড়িতে থাকা তার অপর দুই বন্ধু অমি এবং রবিন গুরুতর আহত হয়েছে।

নিহত সৈকতের ভগ্নিপতি মজিবুল হক বলেন, সৈকত সবদিক থেকে অনেক ভালো ছেলে ছিল। পরিবারে পাঁচ ভাইবোনের মধ্যে সে সবার ছোট। আমি প্রবাস থেকে ফেরার পর ঈদ উপলক্ষ্যে আজ (শুক্রবার) শ্বশুর বাড়ির সবাইকে দাওয়াত করেছিলাম। এখান থেকে বাড়ি ফেরার পথে পরিবারের সবাই চলে গেলেও সৈকত পরে বের হয়। পরে কাইচ্ছুটি এলাকায় পৌঁছালে তাকে একটি মাইক্রোবাস ধাক্কা দেয়। তার এমন আকস্মিক মৃত্যু কোনভাবেই মানতে পারছে না কেউ।

সৈকতের ফুফাতো ভাই কামরুল বলেন, আমরা সবাই একসাথে দুপুরে তার বোনের বাসায় দাওয়াত খেতে যাই। সেখান থেকে বিকেলে বাড়ি ফেরার সময় সৈকত আমাদের পরে আসে। বাড়িতে গিয়ে হঠাৎ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসি। এখানে এসে শুনি সৈকত মারা গেছে।

ফেনী জেনারেল হাসপাতালে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য জসিম উদ্দিন বলেন, কয়েকজন পথচারী গুরুতর আহত অবস্থায় সৈকতকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। লাশ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।