ঢাকা ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উত্তরের মহাসড়কে যানবাহনের চাপ, ড্রোন ক্যামেরায় মনিটরিং

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১১:১১:০১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৪
  • ১৫ বার

প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদ আনন্দ ভাগা-ভাগি করতে ঢাকা থেকে বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন উত্তর-দক্ষিণাঞ্চলের ঘরমুখো মানুষেরা। এতে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়ক ও হাটিকুমরুল-নগরবাড়িসহ সকল রুটে বাড়তে শুরু করেছে যানবাহনের চা

শনিবার (৬ এপ্রিল)সকাল থেকে উত্তরের মহাসড়কে ঈদযাত্রায় যানবাহনের সংখ্যা বেড়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই গাড়ির সংখ্যা বেড়েই চলছে।

মহাসড়ক ঘুরে জানা যায়, বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম মহাসড়ক থেকে হাটিকুমরুল গোলচত্বর রুটে গাড়ির সংখ্যা বেড়েই চলেছে। তবে এখন পর্যন্ত কোথাও কোনো প্রকার যানজট বা ধীরগতি দেখা যায়নি।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাদের জিলানী বলেন, গতকাল শুক্রবার থেকে ঢাকা ও গাজীপুরসহ বিভিন্ন জেলার যানবাহন উত্তরবঙ্গগামী লেনে ধীরে ধীরে বাড়ছে। এখন পর্যন্ত যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। কোথাও কোন দুর্ঘটনা ও ধীরগতির খবর পাওয়া যায়নি।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানা পুলিশের পরিদর্শক মনিরুল ইসলাম বলেন, মহাসড়কে গাড়ির সংখ্যা বাড়ছে। তবে মহাসড়কের অবস্থা যেহেতু ভালো আছে তাই এটাকে চাপ বলা যাবে না। সময়ের সঙ্গে গাড়ি আরও বাড়বে। এবার সিরাজগঞ্জের মহাসড়কে যানজটের সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। আমরা যাত্রী এবং গণপরিবহনের নিরাপত্তা ও নিশ্চিন্তে চলাচলে সর্বোচ্চ সচেষ্ট রয়েছি

সিরাজগঞ্জ ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক জাফর উল্লাহ বলেন, গাড়ির চাপ বাড়তে থাকলেও যাত্রীরা বুঝতেই পারছেন না তারা ঈদের ছুটিতে বাড়ি ফিরছে। মহাসড়কে গাড়ি চলাচল একদম স্বাভাবিক রয়েছে। সেই সাথে ড্রোন ক্যামেরা দিয়ে মনিটরিং করছি আমরা ।

সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার মো. আরিফুর রহমান মণ্ডল বলেন, বঙ্গবন্ধু সেতু থেকে চান্দাইকোনা পর্যন্ত বেশ কয়েকবার পরিদর্শন করে গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলো চিহ্নিত করেছি। সে অনুযায়ী পুলিশের ৭০০ ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে। অফিসাররা তদারকিতে থাকবেন। পাশাপাশি থাকবে মোবাইল টিম, পেট্রলিং টিম। দুর্ঘটনাজনিত কারণে কিংবা রাস্তায় বিকল হওয়া গাড়িগুলো দ্রুত অপসারণের জন্য বিভিন্ন স্পটে ছয়টি রেকার রাখা হয়েছে। যানজট মনিটরিংয়ের জন্য রয়েছে ড্রোনের ব্যবস্থা।

ঈদযাত্রায় ঘরমুখো মানুষেরা স্বাভাবিকভাবে বাড়িতে ফিরবে জানিয়ে পুলিশ সুপার আরিফুর রহমান বলেন, সিরাজগঞ্জ ও টাঙ্গাইলের মহাসড়ক পরিদর্শন করেছেন হাইওয়ে পুলিশের প্রধান শাহাবুদ্দিন খান এবং রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি আনিসুর রহমান।

পরিদর্শন শেষে হাইওয়ে পুলিশের প্রধান শাহাবুদ্দিন খান জানিয়েছেন, ঈদের সময় মহাসড়কগুলোতে থ্রি-হুইলার কোনোভাবেই চলতে দেওয়া হবে না। প্রত্যেকটা লিংকরোড আমরা সিল (বন্ধ) করে দেবো, যাতে থ্রি হুইলার মহাসড়কে উঠতে না পারে। ফিটনেসবিহীন গাড়ির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মলম পার্টিসহ বিভিন্ন প্রতারক ও ছিনতাইকারী চক্রের বিগত পাঁচ/সাত বছরের তালিকা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে। ঈদ পরবর্তী এক সপ্তাহ পর্যন্ত এ অভিযান চলবে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

উত্তরের মহাসড়কে যানবাহনের চাপ, ড্রোন ক্যামেরায় মনিটরিং

আপডেট টাইম : ১১:১১:০১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৪

প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদ আনন্দ ভাগা-ভাগি করতে ঢাকা থেকে বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন উত্তর-দক্ষিণাঞ্চলের ঘরমুখো মানুষেরা। এতে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়ক ও হাটিকুমরুল-নগরবাড়িসহ সকল রুটে বাড়তে শুরু করেছে যানবাহনের চা

শনিবার (৬ এপ্রিল)সকাল থেকে উত্তরের মহাসড়কে ঈদযাত্রায় যানবাহনের সংখ্যা বেড়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই গাড়ির সংখ্যা বেড়েই চলছে।

মহাসড়ক ঘুরে জানা যায়, বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম মহাসড়ক থেকে হাটিকুমরুল গোলচত্বর রুটে গাড়ির সংখ্যা বেড়েই চলেছে। তবে এখন পর্যন্ত কোথাও কোনো প্রকার যানজট বা ধীরগতি দেখা যায়নি।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাদের জিলানী বলেন, গতকাল শুক্রবার থেকে ঢাকা ও গাজীপুরসহ বিভিন্ন জেলার যানবাহন উত্তরবঙ্গগামী লেনে ধীরে ধীরে বাড়ছে। এখন পর্যন্ত যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। কোথাও কোন দুর্ঘটনা ও ধীরগতির খবর পাওয়া যায়নি।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানা পুলিশের পরিদর্শক মনিরুল ইসলাম বলেন, মহাসড়কে গাড়ির সংখ্যা বাড়ছে। তবে মহাসড়কের অবস্থা যেহেতু ভালো আছে তাই এটাকে চাপ বলা যাবে না। সময়ের সঙ্গে গাড়ি আরও বাড়বে। এবার সিরাজগঞ্জের মহাসড়কে যানজটের সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। আমরা যাত্রী এবং গণপরিবহনের নিরাপত্তা ও নিশ্চিন্তে চলাচলে সর্বোচ্চ সচেষ্ট রয়েছি

সিরাজগঞ্জ ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক জাফর উল্লাহ বলেন, গাড়ির চাপ বাড়তে থাকলেও যাত্রীরা বুঝতেই পারছেন না তারা ঈদের ছুটিতে বাড়ি ফিরছে। মহাসড়কে গাড়ি চলাচল একদম স্বাভাবিক রয়েছে। সেই সাথে ড্রোন ক্যামেরা দিয়ে মনিটরিং করছি আমরা ।

সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার মো. আরিফুর রহমান মণ্ডল বলেন, বঙ্গবন্ধু সেতু থেকে চান্দাইকোনা পর্যন্ত বেশ কয়েকবার পরিদর্শন করে গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলো চিহ্নিত করেছি। সে অনুযায়ী পুলিশের ৭০০ ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে। অফিসাররা তদারকিতে থাকবেন। পাশাপাশি থাকবে মোবাইল টিম, পেট্রলিং টিম। দুর্ঘটনাজনিত কারণে কিংবা রাস্তায় বিকল হওয়া গাড়িগুলো দ্রুত অপসারণের জন্য বিভিন্ন স্পটে ছয়টি রেকার রাখা হয়েছে। যানজট মনিটরিংয়ের জন্য রয়েছে ড্রোনের ব্যবস্থা।

ঈদযাত্রায় ঘরমুখো মানুষেরা স্বাভাবিকভাবে বাড়িতে ফিরবে জানিয়ে পুলিশ সুপার আরিফুর রহমান বলেন, সিরাজগঞ্জ ও টাঙ্গাইলের মহাসড়ক পরিদর্শন করেছেন হাইওয়ে পুলিশের প্রধান শাহাবুদ্দিন খান এবং রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি আনিসুর রহমান।

পরিদর্শন শেষে হাইওয়ে পুলিশের প্রধান শাহাবুদ্দিন খান জানিয়েছেন, ঈদের সময় মহাসড়কগুলোতে থ্রি-হুইলার কোনোভাবেই চলতে দেওয়া হবে না। প্রত্যেকটা লিংকরোড আমরা সিল (বন্ধ) করে দেবো, যাতে থ্রি হুইলার মহাসড়কে উঠতে না পারে। ফিটনেসবিহীন গাড়ির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মলম পার্টিসহ বিভিন্ন প্রতারক ও ছিনতাইকারী চক্রের বিগত পাঁচ/সাত বছরের তালিকা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে। ঈদ পরবর্তী এক সপ্তাহ পর্যন্ত এ অভিযান চলবে।