হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন তিশা, বললেন ‘এখন ভালো আছি’

গত কয়েক দিন ধরেই শারীরিকভাবে অসুস্থতা অনুভব করছিলেন তানজিন তিশা। প্রথমে বিষয়টিকে খুব একটা সিরিয়াসলি নেননি তিনি। এরপর গতকাল রবিবার ঘুম থেকে ওঠার পর বুঝতে পারেন অসুস্থতা বেড়েছে। এরপর শারীরিক অবস্থা খুব বেশি খারাপ হলে তাকে দ্রুত রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ডেঙ্গুসহ বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার পর তাকে হাসপাতালেই অবস্থান করতে হয়। এরপর আজ সোমবার বিকেলে হাসপাতাল থেকে বাসায় আসেন তিশা। জানান, তিনি এখন সুস্থ আছেন।

দেশ রূপান্তরকে তানজিন তিশা বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, এখন ভালো আছি। আজকে বিকেলেই হাসপাতাল থেকে বাসায় এসেছি। বাসার সবাই দেখাশোনা করছেন, যত্ন নিচ্ছেন।’

অসুস্থতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ ৪/৫ দিন ধরেই আমি অসুস্থ বোধ করছিলাম। এরপর দেখলাম সারা শরীর অনেক ব্যাথা করছে। আমি ভাবলাম ডেঙ্গু হলো কি না! কিন্তু গতকাল ঘুম থেকে ওঠার পর শরীর অনেক বেশি খারাপ লাগছিল, অনেক অস্থির লাগছিল। এরপর আম্মুকে জানানোর পর বাসায় একজন ডাক্তার এসে স্যালাইন দিয়ে যায়। স্যালাইন দেওয়ার পর আমি আরও অনেক বেশি অস্থির হয়ে পড়ি। এত খারাপ লাগছিল যা বলার বাহিরে। এরপর জ্বর চলে আসে প্রায় ১০৩ ডিগ্রির মতো। এমনটা কখনোই হয়নি এর আগে। এরপর বাসার সবাই মিলে আমাকে নিয়ে হাসপাতালে যায়। গতকাল হাসপাতালেই ছিলাম। সেখানে সারারাত স্যালাইন দিয়ে রাখা হয়েছিল। এখন অনেকটা ভালো অনুভব করছি।’

তিশা জানান, ডেঙ্গু পরীক্ষা করা হলে তা নেগেটিভ আসে। আরও কিছু পরীক্ষা করা হয়েছে যেগুলোর রিপোর্ট আগামীকাল দেবে। শুটিং, কাজ সবকিছু মিলিয়ে কয়েকদিন ধরে বেশ ধকল যাচ্ছে তার উপর। সে কারণেই অসুস্থ হয়ে পড়েন বলে জানান তিনি।

সোমবার সন্ধ্যায় হাসপাতালের চিকিসাধীন থাকা অবস্থায় একটি ছবি পোস্ট করে তানজিন তিশা লিখেছেন, গত কয়েকদিন ধরে আমি অসুস্থ ছিলাম এবং গতকাল অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। এরপর আমাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাই কাউকে ফোনে সাড়া দিতে পারিনি।

তিনি আরও লেখেন, এই মুহূর্তে আলহামদুলিল্লাহ অনেক ভালো লাগছে। আমাকে আপনাদের দোয়ায় রাখুন যেন তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠতে পারি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর