ঢাকা ০১:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিশুদের কোলাহলে কাটলো বই মেলার শেষ শিশু প্রহর

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০১:৫৯:২১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • ১০৭ বার

ক্ষুদে পাঠকদের কোলাহলে মুখর অমর একুশে বই মেলার শেষ শিশু প্রহর। সিসিমপুরে আনন্দঘন সময় কাটিয়ে উচ্ছ্বসিত শিশুরা। শিশুতোষ বইয়ের পাশাপাশি গল্প উপন্যাস ও গবেষণা ধর্মী বইয়ের বিক্রি বেড়েছে বলে খুশি বিক্রেতারা।

বইমেলার শেষ ছুটির দিনে সকাল থেকে উৎসব মুখর ছিলো মেলা প্রাঙ্গণ। মায়ের কোলে, বাবার কাঁধে চড়ে শিশুদের আসতে দেখা গেছে প্রাণের মেলায়। অনেকে আবার ছোট্ট ছোট্ট পা ফেলে ঘুরে দেখেছে পুরো মেলা।

তাদের জন্যই মজার মজার গল্পের ডালি নিয়ে শিশু কর্ণারে অপেক্ষা ছিল সিসিমপুরের হালুম-শিকু-ইকরি-টুকটুকিরা।

ক্ষুদে দর্শনার্থীরা পাঠকও বটে, তাই বাবা মায়ের কাছে আবদার পছন্দের বইয়ের। সন্তানের পছন্দ মত বইও কিনে দিয়েছেন অভিভাবকরা।

ক্ষুদে পাঠকদের বেশিরভাগই জানায়, তাদের পছন্দ ভূতের বই।

শিশুদের বইয়ে প্রতি এই আগ্রহ দেখে খুশি অভিভাবকরাও।

এদিকে শিশু প্রহরকে ঘিরে মেলায় প্রত্যাশিত বেচাকেনা হয়েছে এমনটাই জানিয়েছেন বিক্রেতারা।

শেষ শিশু প্রহরের দিন বেলা বাড়ার সাথে সাথে মেলায় বাড়তে দেখা গেছে দর্শনার্থীদের ভিড়। ঘুড়ে বেড়ানো, ছবি তোলার পাশাপাশি পছন্দের বই কিনেছেন অনেক পাঠক।

অনেক লেখক মেলায় উপস্থিত থেকে পাঠকের হাতে অটোগ্রাফ সহ তুলে দিয়েছেন বই।

শেষ ছুটির দিনে বই বিক্রি পাঠক দর্শনার্থীদের উপস্থিতি ও বিক্রি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন প্রকাশকরা।

২৫ তম দিনে নতুন বই এসেছে ৮৫ টি। আর এ পর্যন্ত বই এসেছে মোট ৩ হাজার ২৩৫ টি।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

শিশুদের কোলাহলে কাটলো বই মেলার শেষ শিশু প্রহর

আপডেট টাইম : ০১:৫৯:২১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ক্ষুদে পাঠকদের কোলাহলে মুখর অমর একুশে বই মেলার শেষ শিশু প্রহর। সিসিমপুরে আনন্দঘন সময় কাটিয়ে উচ্ছ্বসিত শিশুরা। শিশুতোষ বইয়ের পাশাপাশি গল্প উপন্যাস ও গবেষণা ধর্মী বইয়ের বিক্রি বেড়েছে বলে খুশি বিক্রেতারা।

বইমেলার শেষ ছুটির দিনে সকাল থেকে উৎসব মুখর ছিলো মেলা প্রাঙ্গণ। মায়ের কোলে, বাবার কাঁধে চড়ে শিশুদের আসতে দেখা গেছে প্রাণের মেলায়। অনেকে আবার ছোট্ট ছোট্ট পা ফেলে ঘুরে দেখেছে পুরো মেলা।

তাদের জন্যই মজার মজার গল্পের ডালি নিয়ে শিশু কর্ণারে অপেক্ষা ছিল সিসিমপুরের হালুম-শিকু-ইকরি-টুকটুকিরা।

ক্ষুদে দর্শনার্থীরা পাঠকও বটে, তাই বাবা মায়ের কাছে আবদার পছন্দের বইয়ের। সন্তানের পছন্দ মত বইও কিনে দিয়েছেন অভিভাবকরা।

ক্ষুদে পাঠকদের বেশিরভাগই জানায়, তাদের পছন্দ ভূতের বই।

শিশুদের বইয়ে প্রতি এই আগ্রহ দেখে খুশি অভিভাবকরাও।

এদিকে শিশু প্রহরকে ঘিরে মেলায় প্রত্যাশিত বেচাকেনা হয়েছে এমনটাই জানিয়েছেন বিক্রেতারা।

শেষ শিশু প্রহরের দিন বেলা বাড়ার সাথে সাথে মেলায় বাড়তে দেখা গেছে দর্শনার্থীদের ভিড়। ঘুড়ে বেড়ানো, ছবি তোলার পাশাপাশি পছন্দের বই কিনেছেন অনেক পাঠক।

অনেক লেখক মেলায় উপস্থিত থেকে পাঠকের হাতে অটোগ্রাফ সহ তুলে দিয়েছেন বই।

শেষ ছুটির দিনে বই বিক্রি পাঠক দর্শনার্থীদের উপস্থিতি ও বিক্রি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন প্রকাশকরা।

২৫ তম দিনে নতুন বই এসেছে ৮৫ টি। আর এ পর্যন্ত বই এসেছে মোট ৩ হাজার ২৩৫ টি।