,

আজ জাতীয় ভ্যাট দিবস

হাওর বার্তা ডেস্কঃ উন্নয়নের ভ্যাট নীতি, ভ্যাট দিয়ে গড়ব জাতি’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে ঢাকাসহ সব বিভাগীয় শহর ও কমিশনারেট কার্যালয়ে জাতীয় ভ্যাট দিবস ও ভ্যাট সপ্তাহ উদযাপন হচ্ছে।

শনিবার (১০ ডিসেম্বর) ভ্যাট দিবস এবং একইসঙ্গে ১০-১৫ ডিসেম্বর ভ্যাট সপ্তাহ উদযাপনের লক্ষ্যে নানা কর্মসূচি নিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

কোভিড পরবর্তী পরিস্থিতি বিবেচনায় ভ্যাট দিবসে শোভাযাত্রাসহ বেশ কিছু কর্মসূচি বাতিল করলেও কেন্দ্রীয়ভাবে সেমিনারের আয়োজনসহ ভ্যাট অফিসগুলোতে বিশেষ সেবা দেওয়া হচ্ছে। এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম গত বৃহস্পতিবার ভ্যাট দিবসের কর্মসূচি তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, এবারের ভ্যাট দিবস ও ভ্যাট সপ্তাহে করদাতাদের মধ্যে ভ্যাট সচেতনতা বৃদ্ধির বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। পণ্য বা সেবার ক্রেতা ও ভোক্তা চালান সংগ্রহ এবং করদাতাদের কর প্রদানে উদ্বুদ্ধ করা ও  কর্মকর্তাদের মান বাড়ানোর প্রতি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।

জাতীয় ভ্যাট দিবস ও ভ্যাট সপ্তাহ পালন উপলক্ষে মাঠ পর্যায়ে করদাতাদের নিবন্ধন, রিটার্ন, ই-পেমেন্ট, ক্রয়-বিক্রয়ের হিসাব সংরক্ষণ, চালানপত্র ইস্যু, ইএফডি মেশিন ব্যবহার ইত্যাদি ক্ষেত্রে সরাসরি সার্কেল, বিভাগ ও কমিশনারেট থেকে বিশেষ সেবা প্রদান করা হবে।

এ বছরের ১০ ডিসেম্বর সপ্তম বারের মতো দিবসটি উদযাপিত হচ্ছে। এর আগে, প্রতি বছর ১০ জুলাই জাতীয় ভ্যাট দিবস পালিত হতো। বাংলাদেশে ১৯৯১ সালে মূসক প্রবর্তিত হওয়ার পর এ বিষয়ে সচেতনতা বাড়ানোর জন্য ২০১১ সাল থেকে দিবস ও সপ্তাহ উদযাপন করা হচ্ছে।

দিবসটি উপলক্ষে আজ  ঢাকার একটি অভিজাত হোটেলে জাতীয় পর্যায়ে সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারী ৯টি প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা প্রদান করা হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, বিশেষ অতিথি হিসেবে এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন উপস্থিত থাকবেন।

এরই মধ্যে ২০২১-২২ অর্থবছরের জাতীয় পর্যায়ে সর্বোচ্চ মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) দেওয়া ৯টি প্রতিষ্ঠানের নাম ঘোষণা করেছে এনবিআর। এছাড়া জেলা পর্যায়ে সর্বোচ্চ ভ্যাট দেওয়া ১২০টি প্রতিষ্ঠানের নামও ঘোষণা করা হয়েছে।

ভ্যাট সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ প্রচার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেশের সব মোবাইল অপারেটরের মাধ্যমে গ্রাহকদের ১০ থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত এসএমএসের মাধ্যমে জানানো হচ্ছে। রেডিও, টেলিভিশন, প্রিন্ট ও অনলাইন গণমাধ্যমে  প্রচারণার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর