ঢাকা ০৭:১৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এসএসসি পরীক্ষার্থীকে নেশা খাইয়ে ধর্ষণ

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১১:০৩:৫৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২
  • ১০৬ বার

হাওর বার্তা ডেস্কঃ মাদারীপুরে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়া এক শিক্ষার্থীকে নেশা খাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক বখাটে যুবকের বিরুদ্ধে।

ভুক্তভোগী ও তার পরিবার জানায়, মাদারীপুর সদর উপজেলার কালিকাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে রোববার দুপুরে ব্যবহারিক পরীক্ষার খাতা দেখানো জন্য যায় ওই শিক্ষার্থী।

সদর উপজেলার স্বনির্ভর ছিলারচর গ্রামের আশরাফ সর্দারের ছেলে সজীব সর্দার (২২) কৌশলে ওই শিক্ষার্থীকে মাদারীপুর পৌর শহরের পুরানবাজার এলাকায় একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে যায়।

পরে বিকাল ৫টার দিকে পানীয়র সঙ্গে নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে খাওয়ানোর পর অচেতন করে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

এতে শিক্ষার্থীর প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। একপর্যায়ে রাত ৯টার দিকে ওই বখাটে শিক্ষার্থীকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

ঘটনাটি জানাজানি হলে রাতেই ভুক্তভোগীর পরিবার ও সদর থানা পুলিশ হাসপাতালে যায়।

ধর্ষণের শিকার ওই শিক্ষার্থী জানায়, ব্যবহারিক পরীক্ষার খাতা দেখানোর জন্য বিদ্যালয় গেলে বেড়ানোর কথা বলে সজীব তাকে পুরানবাজারের একটি হোটেলে নিয়ে যায়।

সেখানে অনেক জোরাজরির পর একটি বোতলে পানি খেতে দেয়। আমি সরল বিশ্বাসে পানি খাওয়ার কিছু সময় পরেই অচেতন হয়ে যাই। পরে জ্ঞান ফিরে দেখি প্রচার রক্তক্ষরণ হচ্ছে। এর পর আবার অজ্ঞান হয়ে পড়লে রাতে দেখি হাসপাতালের বিছানায়।

সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. রিয়াদ মাহমুদ বলেন, প্রাথমিকভাবে শিক্ষার্থীকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। পরে ধর্ষণের বিয়ষটি জানার পর নমুনা সংগ্রহ করা হয়।  তবে তার যৌনাঙ্গে ক্ষতের চিহ্ন রয়েছে।’

এ ব্যাপারে মাদারীপুর সদর থানার ওসি মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী বলেন, ঘটনা জানার পর সদর হাসপাতালে গিয়ে একজন এসআই খোঁজখবর নিয়েছে। রাতে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

এসএসসি পরীক্ষার্থীকে নেশা খাইয়ে ধর্ষণ

আপডেট টাইম : ১১:০৩:৫৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২

হাওর বার্তা ডেস্কঃ মাদারীপুরে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়া এক শিক্ষার্থীকে নেশা খাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক বখাটে যুবকের বিরুদ্ধে।

ভুক্তভোগী ও তার পরিবার জানায়, মাদারীপুর সদর উপজেলার কালিকাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে রোববার দুপুরে ব্যবহারিক পরীক্ষার খাতা দেখানো জন্য যায় ওই শিক্ষার্থী।

সদর উপজেলার স্বনির্ভর ছিলারচর গ্রামের আশরাফ সর্দারের ছেলে সজীব সর্দার (২২) কৌশলে ওই শিক্ষার্থীকে মাদারীপুর পৌর শহরের পুরানবাজার এলাকায় একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে যায়।

পরে বিকাল ৫টার দিকে পানীয়র সঙ্গে নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে খাওয়ানোর পর অচেতন করে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

এতে শিক্ষার্থীর প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। একপর্যায়ে রাত ৯টার দিকে ওই বখাটে শিক্ষার্থীকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

ঘটনাটি জানাজানি হলে রাতেই ভুক্তভোগীর পরিবার ও সদর থানা পুলিশ হাসপাতালে যায়।

ধর্ষণের শিকার ওই শিক্ষার্থী জানায়, ব্যবহারিক পরীক্ষার খাতা দেখানোর জন্য বিদ্যালয় গেলে বেড়ানোর কথা বলে সজীব তাকে পুরানবাজারের একটি হোটেলে নিয়ে যায়।

সেখানে অনেক জোরাজরির পর একটি বোতলে পানি খেতে দেয়। আমি সরল বিশ্বাসে পানি খাওয়ার কিছু সময় পরেই অচেতন হয়ে যাই। পরে জ্ঞান ফিরে দেখি প্রচার রক্তক্ষরণ হচ্ছে। এর পর আবার অজ্ঞান হয়ে পড়লে রাতে দেখি হাসপাতালের বিছানায়।

সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. রিয়াদ মাহমুদ বলেন, প্রাথমিকভাবে শিক্ষার্থীকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। পরে ধর্ষণের বিয়ষটি জানার পর নমুনা সংগ্রহ করা হয়।  তবে তার যৌনাঙ্গে ক্ষতের চিহ্ন রয়েছে।’

এ ব্যাপারে মাদারীপুর সদর থানার ওসি মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী বলেন, ঘটনা জানার পর সদর হাসপাতালে গিয়ে একজন এসআই খোঁজখবর নিয়েছে। রাতে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।