,

কমতে পারে বৃষ্টি, ৩ নম্বর সতর্কসংকেত বহাল

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সারা দেশে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ক্রমে কমে এসেছে। গতকাল মঙ্গলবার দেশের বেশির ভাগ স্থানে বৃষ্টিপাত হয়নি। আগামী দুই দিন বৃষ্টিপাতের পরিমাণ আরো কমতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। তবে সুস্পষ্ট লঘুচাপের প্রভাবে দেশের চার সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কসংকেত বহাল রাখতে বলা হয়েছে।

এ ছাড়া ১৩টি অঞ্চলের নদীবন্দরকে ১ নম্বর সতর্কসংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক জানান, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে থাকা লঘুচাপটি ক্রমে আরো পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে। পশ্চিমবঙ্গ ও ভারতের ওড়িশা রাজ্যের মধ্য দিয়ে লঘুচাপের প্রভাব বেশি থাকবে। এর ফলে দেশে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ আরো কমতে পারে। তবে দক্ষিণাঞ্চলে সর্বোচ্চ ৪৩ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টি হতে পারে।

সতর্কবার্তায় বলা হয়, সুস্পষ্ট লঘুচাপের প্রভাবে দেশের সমুদ্রবন্দর, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এ কারণে চার সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর সতর্কসংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে চলাচল করতে বলা হয়েছে। ঢাকা, ফরিদপুরসহ ১৩টি অঞ্চলের নদীবন্দরকে ১ নম্বর সতর্কসংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, আজ বুধবার খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের ২৬ থেকে ৫০ শতাংশ স্থানে হালকা বৃষ্টি হতে পারে। দেশের অন্যান্য বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি বর্ষণ হতে পারে।

বিভাগীয় পূর্বাভাসে জানানো হয়, দেশের আট বিভাগের কোথাও কোথাও আকাশ অস্থায়ীভাবে মেঘলা থাকতে পারে। এ সময় সারা দেশের দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল সৈয়দপুরে, ৩৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে টেকনাফে, ৪৬ মিলিমিটার।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানায়, কুশিয়ারা ছাড়া দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের প্রধান নদ-নদীর পানি বাড়ছে। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় পদ্মা নদীর পানি বাড়তে পারে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর