,

বাবর আজমকে নিয়ে শোয়েব মালিকের ‘বিস্ফোরক’ দাবি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ফাইনালে উঠেও এশিয়া কাপের শিরোপা হাতছাড়া হওয়ার কারণে চাপে রয়েছে পাকিস্তান দল।  সেই চাপকে আরও প্রবল করলেন দলটির এক সময়ের মিডলঅর্ডারের স্তম্ভ শোয়েব মালিক।

পাকিস্তান টিম ম্যানেজমেন্ট স্বজনপ্রীতি দোষে দুষ্ট দাবি করে টুইট করেন তিনি, যা নিয়ে বেশ কয়েকদিন তোলপাড় হয় পাকিস্তান ক্রিকেট।

এমন আবহে পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমকে নিয়েই বিস্ফোরক দাবি করলেন শোয়েব মালিক।

এ অভিজ্ঞ অলরাউন্ডারের দাবি, ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পরেই অধিনায়ক বাবর আজম নাকি তাকে অবসরের বিষয়ে প্রশ্ন করেছিলেন।

এক ভিডিওবার্তায় শোয়েব মালিক বলেন, ‘২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর পরই ঘটেছিল বিষয়টি। সে সময় বাবরের সঙ্গে আমার কথা হয়। সে আমাকে জিজ্ঞাসা করেছিল আমি অবসর নিতে চাই কিনা।’

কী জবাব দিয়েছিলেন বাবরকে?

শোয়েব মালিক বলেন, ‘আমি বাবরকে বলি, পরিস্থিতি বিচার করে এবং আমার সঙ্গে যা ঘটেছে তা বিচার করে আমি আর খেলতে চাই না। যদি তোমার আমার ফিটনেস নিয়ে কোন প্রশ্ন থাকে বা আমি দলের বোঝা হচ্ছি কি না সেই নিয়ে কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে আমি বলব না। তুমি (বাবর) তো আমার ফিটনেস জানোই। যদি তুমি চাও আমি খেলি আমি সবসময় পাকিস্তানের হয়ে খেলার জন্য প্রস্তুত।’

এমন জবাবের প্রতিউত্তরে বাবর কী বলেছিলেন?

শোয়েব জানান, উত্তরে বাবর জানিয়েছিলেন, ‘ঠিক আছে, আপনি খেলবেন।’

মূলত: অবসরের বিষয়ে পিসিবির সঙ্গে কথা স্পষ্ট করতে চান শোয়েব।

তিনি বলেন, ‘দেখুন বিষয়টি নিয়ে স্পষ্ট আলোচনা হওয়াটাই কাম্য। সবার জানা উচিত আমি কি চাই। আমি দীর্ঘ সময় ধরে ক্রিকেট খেলেছি। এইটুকু তো আমার প্রাপ্য, তাই না!।বোর্ড কি চায় সেই বিষয়টায় স্বচ্ছতা থাকা উচিত। খেলোয়াড় কি চাইছে সেটাও জানা উচিত।’

উল্লেখ্য, এশিয়া কাপে পাকিস্তান দলের ব্যাটিংয়ে চরম দুর্বলতা দেখা গিয়েছিল। যে কারণে বিশ্বকাপে টপঅর্ডার ব্যাটার শান মাসুদ ও শোয়েব মালিককে অন্তর্ভূক্তি করা যায় কিনা – প্রসঙ্গ ওঠে।

বৃহস্পতিবার ঘোষিত বিশ্বকাপ স্কোয়াডে দেখা গেল –  শান মাসুদকে ফেরানো হলেও শোয়েব মালিকের কপাল খুলেনি।
পাকিস্তানের ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপ দলে ফিরেছেন পেসার শাহিন শাহ আফ্রিদি।  মূল স্কোয়াড থেকে ছিটকে গেছেন এশিয়া কাপে ব্যর্থ হওয়া ফখর জামান, মোহাম্মদ হারিস এবং শাহনওয়াজ দাহানি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর