,

সাকিবকে বল করল ‘সাকিব’

হাওর বার্তা ডেস্কঃ তার নাঈম শেখ। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ৪-৫। ক্লাস ওয়ানে পড়ে সে। এই বয়সে সে এতোটাই সাকিবভক্ত যে,নিজের নাম বদলে রেখেছেন সাকিবের নামে।

সাকিবের একঝলক দেখা পেতে নাঈম  প্রতিদিন হাজির হতো মিরপুর স্টেডিয়ামে। বাংলাদেশ দলের জিম্বাবুয়ে সফরের সময় সেই নাঈমের একটি একটি সাক্ষাৎকার ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

যা চোখে পড়েছে সাকিবের। এবার সেই ভক্তের সঙ্গে মঙ্গলবার দেখা করলেন সাকিব।

সেই সাক্ষাতের মুহূর্তটিও ছিল দারুণ।

সাকিবকে দেখার আশায় মঙ্গলবারও মিরপুর স্টেডিয়াম গেটে দাঁড়িয়ে ছিল নাঈম শেখ। সাকিবের গাড়ি ঢুকতে দেখেই সামনে এসে দাঁড়ায় সে। সাকিবও ছোট্ট ছেলেটিকে দেখে কাছে ডেকে নেন।

নাম জিজ্ঞেস করতেই নাঈম বলে ওঠে, ‘আমি সাকিব আল হাসান।’

অবাক বনে যান অলরাউন্ডার, সাকিবের প্রশ্ন, ‘তুুমি আমার নাম রেখে দিলে কেন?

জবাবে নাঈম জানায়, সব ক্রিকেটারের মধ্যে সাকিব তার বেশি প্রিয়। তাই নিজের নাঈম নাম ভালো লাগে না আর। নিজেই নিজের নাম সাকিব রেখেছে সে।

এমন কথা শুনে সাকিব আল হাসানের মন ভরে যায় অবশ্যই।  পরে নাঈমকে সঙ্গে নিয়েই ইনডোরের নেটে অনুশীলনে নামেন সাকিব। নিজে ব্যাটিং অনুশীলন করার সময় এক ওভার বল করান নাঈমকে দিয়ে। ব্যাটিং করেন সাকিব। বলতে গেলে সাকিবকে বল করল ‘সাকিব’।

এক কথায় ঈদের চাঁদ হাতে পেল নাঈম শেখ। এতেই থামেননি সাকিব। জানতে চান আর কি লাগবে তার খুদেভক্তের। বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি অধিনায়কের কাছে জুতা ও জার্সি চায় ছোট্ট নাঈম।

জাতীয় দলের ম্যাসাজম্যান সোহেল হোসেনকে শিশুর সঙ্গে করে দোকানে পাঠান সাকিব। তবে আশপাশে ভালো মানের দামি জুতা ও জার্সি পাওয়া যায়নি তখন। সাকিব চান তার এমন ভক্তকে নিম্নমানের কোনো গিফট না দিতে।  সোহেল মঙ্গলবার এসব কিনতে নিষেধ করেন। পরে নাঈমকে ডেকে বলেন, আগামীকাল (বুধবার) সকাল ১১টায় নিজেই তাকে ২ জোড়া জুতা, ২ পিস জার্সি ও ২ পিস ট্রাউজার কিনে দেবেন।
ক্রিকেটকে মনেপ্রাণে ভালোবাসে নাঈম শেখ। বড় হয়ে ক্রিকেটার হতে চায়। কিন্তু দুশ্চিন্তা হলো ব্যাট-বল নেই।

এ খুদে ক্রিকেটভক্ত এক সাক্ষাতে জানায়, আমি ব্যাটিংও করুম, বোলিংও করুম। সাকিবের মতো প্লেয়ার হমু। বাবা গাড়ি চালায়। মা অন্যের বাসায় কাজ করে। তারা ক্রিকেটের সরঞ্জাম কিনে দিতে সামর্থ্যবান নয়।

তবুও নাঈমের স্বপ্ন থেমে নেই। ক্রিকেটার হতে দৃঢ় প্রত্যয় ঝরল এ খুদের মুখে, প্রয়োজনে রিকশা চালামু, টাকা জমিয়ে ব্যাট-বল কিনমু।

জাতীয় দলের সব ক্রিকেটারের সঙ্গে দেখা করতে আগ্রহী নাঈম। বিশেষ করে সাকিবের সঙ্গে দেখা করতে মরিয়া সে।

নাঈম জানায়, খেলোয়াড়দের সঙ্গে দেখা করতেই মিরপুর স্টেডিয়ামের গেটে এসে দাঁড়িয়ে থাকে সে।

বলে, আমি সব প্লেয়ারের সাথে কথা বলতে চাই। প্লেয়ারদের দেখতে আমার ভালো লাগে। একবার নুরুল হাসান সোহান ভাইয়ের সাথে দেখা হইছিল। কিন্তু কথা হয়নি।

সাকিবের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিতে চায় সে। নাঈম বলে, আমি সাকিব ভাইয়ের কাছ থেকে ব্যাটিং আর স্পিন বোলিং শিখতে চাই।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর