,

dinajpur-20220706175509

দিনাজপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মা-মেয়ে ও ছেলেসহ নিহত ৪

হাওর বার্তা ডেস্কঃ দিনাজপুর শহরে তেলবাহী লরির চাপায় মা ও মেয়ের মৃত্যুর পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছেলেরও মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (৬ জুলাই) ভোরে দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের প্রথম গেটের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, চাপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলারহাট উপজেলার পাঁচটিকুড়ি গ্রামের মো. হোসাইনের স্ত্রী বিউটি আক্তার (৩৫), তার মেয়ে ফাহিমা আক্তার (১৫) ও শিশু ছেলে নাসরুল্লাহ (২)। এ ছাড়া আহত হয়েছেন বিউটি আক্তারের স্বামী মো. হোসাইন (৪৫)।

স্থানীয়রা জানান, বিরল তেঘারা মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক ঈদের ছুটিতে পরিবার-পরিজন নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে রাজশাহীতে ফিরছিলেন। ভোর পৌঁনে ৫টার দিকে দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সামনে পৌঁছালে সামনের দিক থেকে আসা একটি তেলবাহী ট্যাংকলরি তাদের চাপা দিয়ে চলে যায়।

এতে ঘটনাস্থলেই মো. হোসাইনের স্ত্রী বিউটি আক্তার ও মেয়ে ফাহিমা আক্তার নিহত হয়। দুই ঘণ্টা পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছেলে নাসরুল্লাহও মারা যায় ।

দিনাজপুর কোতয়ালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মা ও মেয়ের পর দুপুরে ছেলেটিও মারা যায়। তিনজনের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।

এদিকে দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলায় বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে এক তহশিলদার নিহত হয়েছেন। উপজেলার ১৬ মাইল এলাকায় আজ সকাল ৮টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত সাহিদুর রহমান (৫০) বীরগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা ও পার্বতীপুর উপজেলার ৭ নম্বর মোস্তফাপুর ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

বীরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুব্রত কুমার সরকার সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত তহশিলদার সাহিদুর রহমানের মৃত্যুর বিষটি নিশ্চিত করেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর