,

48

আজ সকালেই মুম্বাইয়ে হবে কেকের শেষকৃত্য

হাওর বার্তা ডেস্কঃ কলকাতায় একটি কনসার্টে গান গাওয়ার পর মৃত্যু হয় হিন্দি গানের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী কেকে ওরফে কৃষ্ণকুমার কুন্নাথের। মঙ্গলবার (৩১ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে অসংখ্য ভক্তকে কাঁদিয়ে মাত্র ৫৩ বছর বয়সে না ফেরার দেশে চলে গেলেন এই তারকা। আজ বৃহস্পতিবার (২ জুন) শেষ বিদায় জানানো হবে বলিউডের প্রখ্যাত এই গায়ককে। আজ সকাল ১১টায় মুম্বাইয়ের ভারসোভা এলাকার মুক্তিধাম শ্মশানে কেকের শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

কেকের মৃত্যুর পর বুধবার (১ জুন) মুম্বাই থেকে কলকাতায় গিয়েছিলেন তার স্ত্রী জ্যোতি ও পুত্র নকুল কৃষ্ণ কুন্নাথ। এদিন দুপুর ২টা ৩০ নাগাদ কলকাতার মাল্টি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল এসএসকেএমে তার লাশের ময়নাতদন্ত হয়। এরপর পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের উদ্যোগে শিল্পীকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে তার লাশ নিয়ে আসা হয় কলকাতার রবীন্দ্রসদনে। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে গান সেলুট দেওয়া হয়। এরপর বিকালে স্বামীর লাশ নিয়ে মুম্বাইয়ে ফিরে যান জ্যোতি।

 মঙ্গলবার (৩১ মে) রাতে কলকাতায় একটি অনুষ্ঠানে গান গাওয়ার সময় অসুস্থ বোধ করেন কেকে। অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করে ফিরে যান হোটেলে। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার মত্যৃর কারণ নিয়ে জোর আলোচনা চলছে।

তবে ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে উল্লেখ রয়েছে যে, হৃদযন্ত্রজনিত সমস্যা ছিল কেকের। তবে রাসায়নিক বিশ্লেষণের পর পাওয়া যাবে চূড়ান্ত রিপোর্ট। এখনও পর্যন্ত ময়নাতদন্তের রিপোর্টে অস্বাভাবিক কিছু পাওয়া যায়নি। কিন্তু চূড়ান্ত রিপোর্টেই জানা যাবে কেকের মৃত্যুর আসল কারণ।

এদিকে কলকাতার নিউ মার্কেট থানায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। শারীরিক অসুস্থতা নাকি অন্য কোনো কারণে এ সংগীতশিল্পীর মৃত্যু হয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক কেকে কনসার্টে অংশ নিতে কলকাতায় এসেছিলেন। দুদিনের কনসার্টে মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনে মঞ্চ মাতিয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান তিনি। তার মৃত্যুতে ভারতসহ পুরো বিশ্বের অনুরাগীদের মনে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর