,

1650164822_AD-2

পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হলেন প্রধানমন্ত্রীর পুত্র হামজা শাহবাজ

হাওর বার্তা ডেস্কঃ পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় শাসনক্ষমতা হারানোর পর এবার দেশটির গুরুত্বপূর্ণ প্রদেশ পাঞ্জাবের শাসনক্ষমতাও হারাল সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)। প্রদেশটির মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফের পুত্র হামজা শাহবাজ। পাঞ্জাব প্রাদেশিক পরিষদের ১৯৭টি আসনের সমর্থন পেয়ে তিনি মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হন। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম দ্য ডনের এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা গেছে।
হামজা শাহবাজ পাকিস্তান মুসলিম লীগের (নওয়াজ) তেহরিক-ই-ইনসাফ দলের মুখ্যমন্ত্রী সরদার উসমান বাজদারের স্থলাভিষিক্ত হলেন।
এর আগে, পাঞ্জাবের নতুন মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচনের সেশনে পাঞ্জাবের প্রাদেশিক পরিষদে বিশৃঙ্খলা দেখা দেয় এবং ডেপুটি স্পিকার সরদার দোস্ত মুহাম্মদ মাজারিকে আক্রমণ করা হয়। এ সময় পাকিস্তান মুসলিম লীগ (কায়েদে আজম) নেতা চৌধুরী পারভেজ এলাহি আহত হন। পারভেজ এলাহি হামজা শাহবাজের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন।
নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করে ডেপুটি স্পিকার জানান, আজকের দিনটি গণতন্ত্রের সাফল্যের প্রতিনিধিত্ব করে এবং আজকের ঘটনা (বিশৃঙ্খলা) সত্ত্বেও ভোটে অংশ নেওয়ায় এমপিদের ইতিবাচক ভূমিকার প্রশংসা করেন তিনি।
হামজা শাহবাজ পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার মধ্য দিয়ে দেশটির কেন্দ্র এবং পাঞ্জাব প্রদেশ দুই জায়গায় পাকিস্তানের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের পরিবারের শাসন নিশ্চিত হলো। দেশটির কেন্দ্রের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন হামজা শাহবাজের বাবা এবং নওয়াজ শরীফের ভাই শাহবাজ শরীফ। শাহবাজ শরীফ ও তাঁর মিত্ররা সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার পর ভোটের মাধ্যমে ইমরান খানকে ক্ষমতাচ্যুত করে। তাঁর ইমরান খানের বিরোধ শিবিরের ঐকমত্যের ভিত্তিতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন শাহবাজ শরীফ।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর