,

resize-350x230x0x0-image-160162-1640746273

কিশোরীকে এক মাস আটকে রেখে ধর্ষণ মা বাদী হয়ে পাঁচজনের নামে মামলা করেন

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বরগুনার আমতলীতে এক কিশোরীকে অপহরণ করে এক মাস আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) বিকেলে আমতলী থানায় পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন।

অভিযুক্তরা হলেন- আমতলী পৌরশহরের বাসিন্দা মাহবুবুর রহমান (৬৫), তার স্ত্রী শেফালী বেগম (৫৮), ছেলে মারুফ হোসেন জিসান (২৫), আবু জাফরের ছেলে জাহিদুল ইসলাম শাওন (৩৫) ও শাওনের স্ত্রী মাহমুদা আক্তার নিপা (৩০)।

কিশোরীর বাবা বলেন, মেয়ে নিখোঁজ হওয়ার দিন রাতে আমতলী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি। এরপর ১৯ ডিসেম্বর বিকেলে মেয়েকে অজ্ঞান অবস্থায় বাড়ির কাছে ফেলে যায় মারুফ ও তার সহযোগীরা। মেয়েকে উদ্ধার করে প্রথমে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করি। সে এখনো চিকিৎসাধীন।

মামলার বাদী কিশোরীর মা বলেন, আমার মেয়ের এত বড় সর্বনাশের আমি কঠোর বিচার চাই।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মিজানুর রহমান বলেন, নির্যাতনের শিকার ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে পাঁচজনের নামে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। পুলিশ অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান শুরু করেছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর