,

rab-1-20211110183756

চোরাইপথে মোবাইল এনে কম দামে বিক্রি করছে বিভিন্ন মার্কেটে

হাওর বার্তা ডেস্কঃ একটি চক্র বিদেশ থেকে অবৈধভাবে মোবাইল ফোন আমদানি করে বিভিন্ন মার্কেটে বিক্রি করে আসছে তারা  ফলে সরকার বিপুল পরিমাণ রাজস্ব হারাচ্ছে। পাশাপাশি প্রতারিত হচ্ছেন জনগণও।

রাজধানীর পল্লবী থানাধীন একটি সুপার মার্কেটের কিছু দোকানে চোরাইপথে আনা মোবাইল ফোন কেনাবেচা হচ্ছে, এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালায় র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব-৪)।

মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) রাত থেকে বুধবার (১০ নভেম্বর) সকাল পর্যন্ত পল্লবীর ও মার্কেটে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন ব্র‍্যান্ডের ৩০৯টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়, যার আনুমানিক বাজারমূল্য প্রায় ৫০ লাখ টাকা।

 

অভিযানে বিটিআরসির প্রতিনিধিরা উপস্থিত থেকে ফোনগুলোর আইএমইআই নম্বর যাচাই করেন। তারা ৩০৯টি মোবাইল সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে চোরাইপথে আমদানি করেছে।

এরমধ্যে আইফোন ৩৭টি, ভিভো ব্র‍্যান্ডের ৩৮টি, অপ্পোর ৬৩টি, স্যামসাংয়ের ৯টি, রেডমির ৩৬টি, সনি এক্সপ্রিয়ার দুটি, এইচটিসির চারটি, সিমফোনির একটি, এলজির তিনটি, নোকিয়ার দুটি, রিয়েলমির সাতটি, পকোর একটি ও নার্জোর একটি মোবাইল। এসময় সাতজনকে আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- মাহমুদুল হাসান মাসুদ (২৮), জিসান (২৫), রাসেল (২৮), বিপ্লব হোসেন (৩২), রায়হান (২৩), রকি (১৯) ও হাসিবুল ইসলাম (২১)।

বুধবার (১০ নভেম্বর) বিকেলে রাজধানীর কারওয়ান বাজার র‍্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান র‍্যাব-৪ এর অধিনায়ক (সিও) অতিরিক্ত ডিআইজি মো. মোজাম্মেল হক।

 

তিনি বলেন, আটকরা গত কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন দেশ থেকে চোরাইপথে অবৈধভাবে মোবাইল দেশে নিয়ে আসছেন। অনেক ক্ষেত্রে তারা অবৈধভাবে অ্যাসেম্বল করে সরকারের নির্ধারিত রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে তা বিক্রি করে আসছিলেন। রাড়তি মুনাফার জন্য চক্রটি গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন।

এ ধরনের মোবাইল ব্যবহারে গ্রাহকের বিভিন্ন বিড়ম্বনার পাশাপাশি ও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এক্ষেত্রে নতুন মোবাইল কেনার সময় নির্দিষ্ট নিয়মে আইএমইআই যাচাই করে কেনার পরামর্শ দেন র‍্যাবের এ কর্মকর্তা।

আটকদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। তাদের অন্যান্য সহযোগীদের গ্রেফতারে গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

এক প্রশ্নের জবাবে র‍্যাব-৪ এর অধিনায়ক বলেন, যারা এ ধরনের চোরাই পথে অবৈধভাবে মোবাইল ফোন দেশে নিয়ে এসে বিক্রি করবেন, তাদের বিরুদ্ধে র‍্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর