,

30

মামুনুল হকের আরও ২৩ মামলায় শ্যোন অ্যারেস্ট হচ্ছে

হাওর বার্তা ডেস্কঃ হেফাজতের বিতর্কিত যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে টানা পাঁচ দিন জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। অধিকাংশ সময় এককভাবে তিনি গোয়েন্দাদের নানা প্রশ্নের মুখোমুখি হন। তবে একাধিক দফায় রিমান্ডে থাকা অন্য হেফাজত নেতাদের মুখোমুখি করেও তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। মোহাম্মদপুর থানার একটি মামলায় সাত দিনের রিমান্ডে রয়েছেন মামুনুল হক। এ মামলায় রিমান্ড শেষ হলে আরও ২৩টি মামলায় তাকে শ্যোন অ্যারেস্ট দেখিয়ে রিমান্ডে নেওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। মোহাম্মদপুরের মামলার পর মামুনুলকে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করবে।

মামুনুলকে জিজ্ঞাসাবাদের সঙ্গে সংশ্নিষ্ট এক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বলেন, রিমান্ডে হেফাজতের নেতারা নাশকতার ঘটনার দায় জামায়াত-শিবিরের ওপর চাপানোর চেষ্টা করছেন। তবে এটাও স্বীকার করছেন, জামায়াত-শিবিরের পাশাপাশি হেফাজতের উগ্র সমর্থকরা এসব হামলা-ভাঙচুরে জড়িয়েছিল। ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম বলেন, অন্য সংস্থার সঙ্গে সমন্বয় করে পর্যায়ক্রমে ডিবিও মামুনুলকে শ্যোন অ্যারেস্ট দেখিয়ে রিমান্ড আবেদন করবে।

মামলার তদন্ত তদারক কর্মকর্তা তেজগাঁও বিভাগের ডিসি হারুন অর রশিদ বলেন, এরই মধ্যে বেশকিছু ব্যাপারে মামুনুলের কাছে স্পষ্টভাবে জানতে চাওয়া হয়েছে। তার অনেক প্রশ্নের উত্তর সন্তোষজনক নয়। আবার কিছু ব্যাপারে নিজের দায় স্বীকার করছেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর