,

20

মহানগরে থানার আগে হবে ইউনিট কমিটি, দিতে হবে ১শ’ জনের নাম

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের থানা ও ইউনিট কমিটি করার তাগিদ দিয়েছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ। তৃণমূলকে আরো শক্তিশালী করতে এবার থানার আগে ইউনিট কমিটি করার নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

জানা গেছে, প্রতিটি ইউনিটে ৩৭ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করার আগে দলের জন্য ত্যাগ স্বীকার করেছে, এমন ১শ’ সদস্যের নাম জমা দিতে হবে। আগামী তিন মাসের মধ্যে ইউনিট কমিটি সম্পন্ন করা হবে। এই কমিটি সম্পন্ন হওয়ার পরের ৩ মাসে ওয়ার্ড এবং সর্বশেষে থানার কমিটি করা হবে।

এদিকে কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী, প্রতি ইউনিট ও ওয়ার্ডের কমিটি করবেন থানার দায়িত্ব প্রাপ্তরা। যেহেতু সম্মেলনের মাধ্যমে এই ইউনিট কমিটিগুলো হবে, তাই মহানগরের নেতারা থাকবেন তদারকিতে। আর মহানগরের থানা কমিটিতে মনিটরিংয়ে থাকবেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের বিভাগীয় দায়িত্বে থাকা নেতারা।

তবে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে নবসংযুক্ত ৩৬টি ওয়ার্ডে কমিটি না থাকায় এগুলোতে আহ্বায়ক কমিটি করে পরবর্তীতে ওয়ার্ড কমিটি করা হবে। এর আগে থানার সভাপতি  ও সাধারণ সম্পাদকেরা এই ওয়ার্ডগুলোতে ইউনিট কমিটি করবেন।

এদিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে ২৪টি থানা থাকলেও সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের আমলে মাত্র ১৩টি থানায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি করা হয়। বাকি ১১টি থানায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি না হওয়ায় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দিয়েই চলছে থানার দলীয় কার্যক্রম। মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের ২৭টি থানা কমিটির অধিকাংশই সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দিয়ে চলছে। কোনো কোনো থানায় আবার যে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছিল, তা না মানার কারণে সেগুলোর কার্যক্রমও তালেগোলে চলছে। এদিকে আওয়ামী লীগের দলীয় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ৩ বছর পরপর কমিটি করার অনিয়ম থাকলেও এসব থানার কমিটি মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে আরো আগেই।

দলীয় প্রধানের নির্দেশনা অনুযায়ী, এবার মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটি গঠনে নড়েচড়ে বসেছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ। এই কমিটিতে যেন কোনো সুবিধাবাদী, দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত ও বির্তকিত নেতারা স্থান না পায়, এজন্য কেন্দ্র থেকে রয়েছে কড়া নির্দেশনা।

জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ইউনিট, ওয়ার্ড ও থানা কমিটির করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছে আওয়ামী লীগ। আগামী তিন মাসের মধ্যে ইউনিট কমিটি করা হবে। পরর্বতীতে ওয়ার্ড এবং সর্বশেষে থানার কমিটি করা হবে। ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে যে নতুন ৩৬ ওয়ার্ড করা হয়েছে, সেগুলোতেও একইভাবে করা হবে কমিটি।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, কেন্দ্রে থেকে আমাদের ইউনিট, ওয়ার্ড ও থানা কমিটির করার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আমরা সে অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছি। যেহেতু প্রতিটি ওয়ার্ডে প্রায় ১০ থেকে ১৫টা করে ইউনিট, তাই একটু সময় তো লাগবেই। ইউনিট কমিটি শেষ হলে ওয়ার্ড, এরপর হবে থানা কমিটি।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফি বলেন, দলীয় নির্দেশনা অনুযায়ী কমিটি করা হবে। এই কমিটিতে সুবিধাবাদীদের আসার সুযোগ নেই। যারা দলের জন্য কাজ করেছেন এবং ত্যাগীরাই এতে স্থান পাবেন। কোনো ধরনের তদবিরে কাজ হবে না।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নির্দেশনা অনুযায়ী ইউনিট, ওয়ার্ড ও থানা কমিটি করা হবে। নতুন ওয়ার্ডগুলোর কমিটিও একই ধারাবাহিতকায় হবে। আগামী মাসে আমাদের ওয়াকিং কমিটি সভার মাধ্যমে কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর