,

1488369696

পুলিশের গাড়ি পোড়ানোর ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

গাবতলীতে পুলিশের সঙ্গে পরিবহন শ্রমিকদের কয়েক দফা সংঘর্ষ ও পুলিশের গাড়ি পোড়ানোর ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তিনি বলেছেন, যারা ধর্মঘট করছেন, তারা পুলিশের রেকার ভ্যানে আগুন দিয়েছেন, পুলিশ বক্সে আগুন দিয়েছেন। এছাড়া আজ একটা জিপে আক্রমণ করেছেন। এই ঘটনায় নিরাপত্তা বাহিনী অত্যন্ত ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছেন। এসব ঘটনায় মামলা হবে।

চালকদের সাজা কমানোর দাবিতে ডাকা ধর্মঘট প্রত্যাহারের আগে বুধবার সকালে রাজধানীর মিরপুরে পুলিশ স্টাফ কলেজে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। কর্তব্যরত অবস্থায় নিহত পুলিশ সদস্যদের স্মরণে পালিত ‘পুলিশ মেমোরিয়াল ডে’ উপলক্ষে মিরপুরের পুলিশ স্টাফ কলেজে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী।

পরিবহন শ্রমিকদের ধর্মঘটকে অবৈধ বলে মন্তব্য করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তিনি বলেন, কোনো ঘোষণা ছাড়াই পরিবহন শ্রমিকরা ধর্মঘট পালন করছেন। যার কারণে সারাদেশের মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। যা কখনও কাম্য হতে পারে না। এভাবে ধর্মঘট ডাকা সম্পূর্ণ অবৈধ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অঘোষিত ধর্মঘটের নামে পুলিশ বক্স ও পুলিশের গাড়ি পোড়ানোর মতো ঘটনা চলতে দেয়া যায় না। শ্রমিকদের বিরুদ্ধে যে রায়টি হয়েছে সে বিচারের ব্যাপারে আমাদের কিছু করার নেই। তারা চাইলে উচ্চ আদালতে যেতে পারে। কিন্তু তারা শুরুতেই জনহানিকর কাজে লিপ্ত হয়েছে। পুলিশের কাজ মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দেয়া। আমরা সেই কাজটিই করছি।

মন্ত্রী আরো বলেন, শ্রমিকরা সামরিক বাহিনীর এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার গাড়িতে হামলা চালায়। পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করতে গুলি করে। আহত একজনকে ঢামেকে নেয়া হয়েছে বলে শুনেছি। এরপরও পুলিশ যথেষ্ট ধৈর্যের সঙ্গে পরিস্থিতি মোকাবিলা করেছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশের মহাপরিদর্শক একেএম শহীদুল হক জানান, কর্তব্য পালন করতে গিয়ে যেসব পুলিশ সদস্য প্রাণ দিয়েছেন তাদের আজীবন শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করতে পহেলা মার্চ থেকে ‘পুলিশ মেমোরিয়াল ডে’ পালন করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর