ঢাকা ০৮:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধনের চূড়ান্ত ক্রম প্রকাশ করেছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১১:৫৭:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৮
  • ২৮৭ বার

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ২০১৮ সালে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যেতে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের প্রাক-নিবন্ধিত চূড়ান্ত ক্রম প্রকাশ করেছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়। প্রাক-নিবন্ধনের ৩৮২৯০৭ থেকে ৩৮৩৪২৪ ক্রমিক পর্যন্ত হজ গমনে ইচ্ছুক ব্যক্তিগণ আগামীকাল ২৫ এপ্রিল রাত ৮টা পর্যন্ত নিবন্ধনের জন্য সময় পাবেন। খবর বাসস’র

নিবন্ধনের জন্য আর সময় বৃদ্ধি করা হবে না উল্লেখ করে আজ এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০১৮ সালের হজে বেসরকারি ব্যবস্থাপনার নির্ধারিত কোটা ১,২০,০০০ জনের বিপরীতে ৪৫ জনের জন্য ১ জন করে গাইড এবং মোনাজ্জেমসহ মোট তিন হাজার চারশত জনের সংখ্যা সংরক্ষণ করা হয়েছিল। চলমান নিবন্ধন কার্যক্রমে দেখা যাচ্ছে যে, ১,২০,০০০ জনের বিপরীতে ৪৫ জনের জন্য ১ জন হারে গাইডের প্রকৃত সংখ্যা দাঁড়ায়-দুই হাজার ৬০৯ জন। অন্যদিকে নিবন্ধনে অংশগ্রহণকারী এজেন্সির সংখ্যা ৫৫৫টি।

এই হিসেবে মোট গাইড এবং মোনাজ্জেম হবেন তিন হাজার ১৬৪টি। প্রথম পর্যায়ে সংরক্ষিত সংখ্যা তিন হাজার চারশ’ হতে প্রকৃত তিন হাজার ১৬৪ সংখ্যা বিয়োগ করলে মোট (৩৪০০-৩১৬৪)=২৩৬ জনের সংখ্যা আরো অবশিষ্ট থাকে।

অপেক্ষমান তালিকা হতে ২০১৮ সালের হজে নিবন্ধনের জন্য নির্বাচিত যে সকল হজযাত্রীর এজেন্সী ন্যূনতম কোটা পূরণ করতে পারবে না তারা জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতি ২০১৮ অনুযায়ী সমন্বয় করে লীড এজেন্সী নির্ধারণপূর্বক সমন্বয়/স্থানান্তর করা হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধনের চূড়ান্ত ক্রম প্রকাশ করেছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়

আপডেট টাইম : ১১:৫৭:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৮

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ২০১৮ সালে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যেতে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের প্রাক-নিবন্ধিত চূড়ান্ত ক্রম প্রকাশ করেছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়। প্রাক-নিবন্ধনের ৩৮২৯০৭ থেকে ৩৮৩৪২৪ ক্রমিক পর্যন্ত হজ গমনে ইচ্ছুক ব্যক্তিগণ আগামীকাল ২৫ এপ্রিল রাত ৮টা পর্যন্ত নিবন্ধনের জন্য সময় পাবেন। খবর বাসস’র

নিবন্ধনের জন্য আর সময় বৃদ্ধি করা হবে না উল্লেখ করে আজ এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০১৮ সালের হজে বেসরকারি ব্যবস্থাপনার নির্ধারিত কোটা ১,২০,০০০ জনের বিপরীতে ৪৫ জনের জন্য ১ জন করে গাইড এবং মোনাজ্জেমসহ মোট তিন হাজার চারশত জনের সংখ্যা সংরক্ষণ করা হয়েছিল। চলমান নিবন্ধন কার্যক্রমে দেখা যাচ্ছে যে, ১,২০,০০০ জনের বিপরীতে ৪৫ জনের জন্য ১ জন হারে গাইডের প্রকৃত সংখ্যা দাঁড়ায়-দুই হাজার ৬০৯ জন। অন্যদিকে নিবন্ধনে অংশগ্রহণকারী এজেন্সির সংখ্যা ৫৫৫টি।

এই হিসেবে মোট গাইড এবং মোনাজ্জেম হবেন তিন হাজার ১৬৪টি। প্রথম পর্যায়ে সংরক্ষিত সংখ্যা তিন হাজার চারশ’ হতে প্রকৃত তিন হাজার ১৬৪ সংখ্যা বিয়োগ করলে মোট (৩৪০০-৩১৬৪)=২৩৬ জনের সংখ্যা আরো অবশিষ্ট থাকে।

অপেক্ষমান তালিকা হতে ২০১৮ সালের হজে নিবন্ধনের জন্য নির্বাচিত যে সকল হজযাত্রীর এজেন্সী ন্যূনতম কোটা পূরণ করতে পারবে না তারা জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতি ২০১৮ অনুযায়ী সমন্বয় করে লীড এজেন্সী নির্ধারণপূর্বক সমন্বয়/স্থানান্তর করা হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।