ঢাকা ০৮:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আল্লাহ দিলে, জয়লাভ করেছি : সাক্কু

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১১:৩৯:২৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ ২০১৭
  • ২৭৩ বার

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা পরাজিত হয়েছেন। ফলে সংসদের বাইরে প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপির প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু কুসিকে আবারও নগরপিতা হিসেবে বসতে যাচ্ছেন।

জয়ের পর সাক্কু বলেন, ‘জয়লাভ করেছি, আল্লাহ দিলে।’ রাত সাড়ে আটটার দিকে রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ

নির্বাচন হলে ১ লাখ ২০ হাজার ভোট পেতাম। দিনভর বিভিন্ন কেন্দ্রে নানা অঘটন ঘটেছে। বিএনপি নেতারা প্রশাসনের লোকদের কারচুপির ঘটনা জানিয়েছেন। কিন্তু তারা তা পাত্তা দেয়নি।

বিএনপি প্রার্থী বলেন, ‘আমিও বেশ কিছু কেন্দ্রের অনিয়ম জালিয়াতির বিষয়ে প্রশাসন ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মৌখিক অভিযোগ করেছি, তারপরও কোনো কাজ হয়নি। নির্বাচন কমিশনের যেসব কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করেছেন তারাও সঠিকভাবে শতভাগ দায়িত্ব পালন করতে পারেননি। ’

উল্লেখ্য, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে ১০৩ ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ১০১টি কেন্দ্রে ৬৮ হাজার ৭৯৫ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপির প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু। তার নিকটতম আওয়ামী লীগের প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা ভোট পেয়েছেন ৫৮ হাজার ২৬১। বৃহস্পতিবার মনিরুল হক সাক্কুর কন্ট্রোলরুম থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে। এদিকে ১০৩টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে দুটি স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

আল্লাহ দিলে, জয়লাভ করেছি : সাক্কু

আপডেট টাইম : ১১:৩৯:২৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ ২০১৭

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা পরাজিত হয়েছেন। ফলে সংসদের বাইরে প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপির প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু কুসিকে আবারও নগরপিতা হিসেবে বসতে যাচ্ছেন।

জয়ের পর সাক্কু বলেন, ‘জয়লাভ করেছি, আল্লাহ দিলে।’ রাত সাড়ে আটটার দিকে রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ

নির্বাচন হলে ১ লাখ ২০ হাজার ভোট পেতাম। দিনভর বিভিন্ন কেন্দ্রে নানা অঘটন ঘটেছে। বিএনপি নেতারা প্রশাসনের লোকদের কারচুপির ঘটনা জানিয়েছেন। কিন্তু তারা তা পাত্তা দেয়নি।

বিএনপি প্রার্থী বলেন, ‘আমিও বেশ কিছু কেন্দ্রের অনিয়ম জালিয়াতির বিষয়ে প্রশাসন ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মৌখিক অভিযোগ করেছি, তারপরও কোনো কাজ হয়নি। নির্বাচন কমিশনের যেসব কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করেছেন তারাও সঠিকভাবে শতভাগ দায়িত্ব পালন করতে পারেননি। ’

উল্লেখ্য, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে ১০৩ ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ১০১টি কেন্দ্রে ৬৮ হাজার ৭৯৫ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপির প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু। তার নিকটতম আওয়ামী লীগের প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা ভোট পেয়েছেন ৫৮ হাজার ২৬১। বৃহস্পতিবার মনিরুল হক সাক্কুর কন্ট্রোলরুম থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে। এদিকে ১০৩টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে দুটি স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন।