ঢাকা ১০:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি ঠিক নয়

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১১:৫৭:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০১৭
  • ৩৮৫ বার

পরস্পরের প্রতি ভালবাসা বজায় রাখতে স্বামী বিবেকানন্দের আদর্শ অনুসরণ করতে হবে বলে মন্তব্য করে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ‘ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করা ঠিক নয়। স্বামী বিবেকানন্দের কাছে কোনো ধর্ম ছিল না।’

আজ বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর রামকৃঞ্চ মঠ ও মিশনে ‘স্বামী বিবেকানন্দের বিশ্বজনীন বার্তা’ শার্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেছেন তিনি। ঢাকা রামকৃঞ্চ মিশনের শতবর্ষ পূর্তি উৎসবের ৮ দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানমালার ৪র্থ দিনে এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘জাতির জনকের নেতৃত্বে দেশের স্বধীনতা লাভের তেইশ দিনের মাথায় ১০ জানুয়ারি তিনি দেশে ফেরেন। আর নয় মাসের মাথায় ধর্ম নিরপেক্ষতাকে প্রাধান্য দিয়ে বাংলাদেশের সংবিধান রচিত হয়। নিষিদ্ধ করা হয়েছিল ধর্মভিত্তিক রাজনীতি। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর ওই সংবিধান কাটাছেঁড়া করা হয়। শেখ হাসিনার নেতৃত্বের সরকার ক্ষমতায় আসার পর ওই সংবিধানকে পুনঃস্থাপনের চেষ্টা করা হচ্ছে।’

তোফায়েল আহমেদ আরো বলেছেন, ‘হিন্দু-মুসলমান-খ্রিস্টান নয়, বাঙালি হিসেবেই এদেশের মানুষকে সেদিন পাকিস্তানীরা হত্যা করেছিল। সেদিন আমরা শ্লোগান দিয়েছিলাম, বাঙালি জাগো। পদ্মা-মেঘনা-যমুনা; তোমার আমার ঠিকানা। স্বামী বিবেকানন্দের জীবন থেকে শিক্ষা নিয়ে আজ ধর্ম নিরপেক্ষতার চেতনাকে জাগ্রত করতে হবে।’

আলোচনা সভায় আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্য দেন কাজী ফিরোজ রশিদ এমপি, ঢাবির ইতিহাস বিভাগের শিক্ষক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, পশ্চিম বঙ্গ সরকারের সড়ক পরিবহন বিভাগের প্রধান সচিব আলাপন বন্দোপাদ্যায়, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি ড. সোনালী চক্রবর্তী, অধ্যাপক শান্তিরঞ্জন ভৌমিক, সত্য নারায়ন আগরওয়ালা ও স্বামী জ্ঞান প্রকাশানন্দ। সভাপতিত্ব করেন স্বামী শক্তিনাথানন্দ।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি ঠিক নয়

আপডেট টাইম : ১১:৫৭:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০১৭

পরস্পরের প্রতি ভালবাসা বজায় রাখতে স্বামী বিবেকানন্দের আদর্শ অনুসরণ করতে হবে বলে মন্তব্য করে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ‘ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করা ঠিক নয়। স্বামী বিবেকানন্দের কাছে কোনো ধর্ম ছিল না।’

আজ বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর রামকৃঞ্চ মঠ ও মিশনে ‘স্বামী বিবেকানন্দের বিশ্বজনীন বার্তা’ শার্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেছেন তিনি। ঢাকা রামকৃঞ্চ মিশনের শতবর্ষ পূর্তি উৎসবের ৮ দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানমালার ৪র্থ দিনে এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘জাতির জনকের নেতৃত্বে দেশের স্বধীনতা লাভের তেইশ দিনের মাথায় ১০ জানুয়ারি তিনি দেশে ফেরেন। আর নয় মাসের মাথায় ধর্ম নিরপেক্ষতাকে প্রাধান্য দিয়ে বাংলাদেশের সংবিধান রচিত হয়। নিষিদ্ধ করা হয়েছিল ধর্মভিত্তিক রাজনীতি। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর ওই সংবিধান কাটাছেঁড়া করা হয়। শেখ হাসিনার নেতৃত্বের সরকার ক্ষমতায় আসার পর ওই সংবিধানকে পুনঃস্থাপনের চেষ্টা করা হচ্ছে।’

তোফায়েল আহমেদ আরো বলেছেন, ‘হিন্দু-মুসলমান-খ্রিস্টান নয়, বাঙালি হিসেবেই এদেশের মানুষকে সেদিন পাকিস্তানীরা হত্যা করেছিল। সেদিন আমরা শ্লোগান দিয়েছিলাম, বাঙালি জাগো। পদ্মা-মেঘনা-যমুনা; তোমার আমার ঠিকানা। স্বামী বিবেকানন্দের জীবন থেকে শিক্ষা নিয়ে আজ ধর্ম নিরপেক্ষতার চেতনাকে জাগ্রত করতে হবে।’

আলোচনা সভায় আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্য দেন কাজী ফিরোজ রশিদ এমপি, ঢাবির ইতিহাস বিভাগের শিক্ষক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, পশ্চিম বঙ্গ সরকারের সড়ক পরিবহন বিভাগের প্রধান সচিব আলাপন বন্দোপাদ্যায়, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি ড. সোনালী চক্রবর্তী, অধ্যাপক শান্তিরঞ্জন ভৌমিক, সত্য নারায়ন আগরওয়ালা ও স্বামী জ্ঞান প্রকাশানন্দ। সভাপতিত্ব করেন স্বামী শক্তিনাথানন্দ।