ঢাকা ০৪:৫৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মদনে নলকূপ বসানোর সময় ২ জন গুরুতর আহত

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১০:০৯:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ এপ্রিল ২০২৩
  • ৭৫ বার

মদন (নেত্রকোণা) প্রতিনিধিঃ নেত্রকোণা মদন উপজেলার বয়রাহালা ব্রীজ সংলগ্ন মসজিদে নলকূপ বসানোর সময় ২ জন গুরুতর আহত হয়।

শনিবার (১লা এপ্রিল) বিকালে বয়রাহালা ব্রীজ সংলগ্ন মসজিদে মদন উপজেলা জনস্বাস্থ্য বিভাগের অধিনে মেসার্স সৌরভ ইসলাম এন্টারপ্রাইজ টিকাদার প্রতিষ্ঠান গভীর নলকূপ বসানোর কাজ করছিলো।
অসাবধানতার কারণে পা পিছলে উপর থেকে পরে গিয়ে রাসেদ মিয়া (২৮) নামের এক মিস্ত্রির বাম পা ভেঙ্গে যায়। এ সময় লোহার পাইপ ছিটকে গিয়ে পথচারী মাদ্রাসা ছাত্র রুমানের (১২) উপর পড়লে গুরুতর আহত হয় এবং তার মুখ দিয়ে রক্তক্ষরণ শুরু হয়।
এমতাবস্থায় স্থানীয়রা দু’জনকে মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্য চিকিৎসক দু’জনকেই উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
আহত রুমান উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের মাখনা গ্রামের হতদরিদ্র রুহুল আমীনের ছেলে। তার পিতা-মাতা কাজের তাগিদে সিলেট অসস্থান করছেন। অন্য দিকে আহত রাশেদ নোয়াখালী জেলার চরজব্বর থানার চন্দ্রীগ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে।
মুমূর্ষ রুমানের আশেপাশে পাওয়া যায়নি মেসার্স এন্টার প্রাইজের কোনো প্রতিনিধি। এমনকি মোবাইল ফোনেও এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হয়নি টিকাদর প্রতিষ্ঠানের কেউ।
জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে একাধিকবার কল দিলেও কল রিসিভ করেননি। তবে, মেকানিক সুমন দত্তকে বিষয়টি জানিয়েছেন সংবাদ কর্মীরা।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানজিনা শাহরীন জানান, ইউপি চেয়ারম্যান শাফায়াত উল্লাহ রয়েলের মাধ্যমে এ বিষয়ে অবগত হয়েছি। জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে রুগীর খুঁজ নিয়ে চিকিৎসার বিষয়ে সহযোগিতা করতে নির্দেশ দিয়েছি।
Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

মদনে নলকূপ বসানোর সময় ২ জন গুরুতর আহত

আপডেট টাইম : ১০:০৯:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ এপ্রিল ২০২৩

মদন (নেত্রকোণা) প্রতিনিধিঃ নেত্রকোণা মদন উপজেলার বয়রাহালা ব্রীজ সংলগ্ন মসজিদে নলকূপ বসানোর সময় ২ জন গুরুতর আহত হয়।

শনিবার (১লা এপ্রিল) বিকালে বয়রাহালা ব্রীজ সংলগ্ন মসজিদে মদন উপজেলা জনস্বাস্থ্য বিভাগের অধিনে মেসার্স সৌরভ ইসলাম এন্টারপ্রাইজ টিকাদার প্রতিষ্ঠান গভীর নলকূপ বসানোর কাজ করছিলো।
অসাবধানতার কারণে পা পিছলে উপর থেকে পরে গিয়ে রাসেদ মিয়া (২৮) নামের এক মিস্ত্রির বাম পা ভেঙ্গে যায়। এ সময় লোহার পাইপ ছিটকে গিয়ে পথচারী মাদ্রাসা ছাত্র রুমানের (১২) উপর পড়লে গুরুতর আহত হয় এবং তার মুখ দিয়ে রক্তক্ষরণ শুরু হয়।
এমতাবস্থায় স্থানীয়রা দু’জনকে মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্য চিকিৎসক দু’জনকেই উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
আহত রুমান উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের মাখনা গ্রামের হতদরিদ্র রুহুল আমীনের ছেলে। তার পিতা-মাতা কাজের তাগিদে সিলেট অসস্থান করছেন। অন্য দিকে আহত রাশেদ নোয়াখালী জেলার চরজব্বর থানার চন্দ্রীগ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে।
মুমূর্ষ রুমানের আশেপাশে পাওয়া যায়নি মেসার্স এন্টার প্রাইজের কোনো প্রতিনিধি। এমনকি মোবাইল ফোনেও এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হয়নি টিকাদর প্রতিষ্ঠানের কেউ।
জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে একাধিকবার কল দিলেও কল রিসিভ করেননি। তবে, মেকানিক সুমন দত্তকে বিষয়টি জানিয়েছেন সংবাদ কর্মীরা।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানজিনা শাহরীন জানান, ইউপি চেয়ারম্যান শাফায়াত উল্লাহ রয়েলের মাধ্যমে এ বিষয়ে অবগত হয়েছি। জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে রুগীর খুঁজ নিয়ে চিকিৎসার বিষয়ে সহযোগিতা করতে নির্দেশ দিয়েছি।