ঢাকা ০৮:৩৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্মার্ট খেলোয়াড় তৈরির কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১১:০৩:৫৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • ১০৮ বার

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সরকার দেশকে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ হিসেবে গড়তে চায়। এ জন্য স্মার্ট খেলোয়াড় তৈরির লক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ রোববার শেখ কামাল দ্বিতীয় বাংলাদেশ যুব গেমস উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে এ অনুষ্ঠানটি চলছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, খেলাধুলা যত বেশি হবে শিক্ষার্থীদের মেধা ও মনন তত উন্নত হবে। এ জন্য আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে খেলাধুলার দিকে জোর দিয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের পরিবারটা খেলাধুলার সঙ্গে সম্পৃক্ত। আমার দাদাও খেলতেন ফুটবল, আমার ছোট ভাই কামাল, সে তো বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী ছিল। কামাল একাধারে ক্রিকেট, ফুটবল, হকিসহ বিভিন্ন খেলার সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিল। আবাহনী ক্রীড়াচক্র সে নিজেই গঠন করে এবং সেভাবেই আমাদের যুব সমাজকে খেলাধুলায় প্রতি সম্পৃক্ত করার উদ্যোগ নিয়েছিল। সাংস্কৃতিক দিক দিয়ে সে অনেক উন্নত ছিল। এছাড়া উপস্থিত বিভিন্ন নাটকেও তার পারদর্শিতা ছিল।’

সরকারপ্রধান বলেন, ‘আবাহনী ক্রীড়াচক্র প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সে যুব সমাজের জন্য আধুনিক ফুটবল খেলার প্রবর্তন করে এবং আমাদের শিশু-কিশোর যুব সমাজ সকলেই খেলার প্রতি যেন বেশি উৎসাহী হয় সেজন্য সে বিশেষ নজর দিয়েছিল। সে ফুটবল ক্রিকেট হকিসহ বিভিন্ন খেলার সূচনা করেছিল এবং সে নিজেও সেগুলো খেলত।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশকে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি। আজ আমাদের লক্ষ্য স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলা। স্মার্ট বাংলাদেশে আমাদের স্মার্ট খেলোয়াড় তৈরি করবে এবং আমরা সারা বিশ্বের যে কোনো প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করার যোগ্যতা অর্জন করব, সেটাই আমি চাই।’

তিনি বলেন, ‘খেলাধুলা আমাদের ছেলে-মেয়েদের মধ্যে যত বেশি ছড়িয়ে দিতে পারব, তত বেশি তাদের মনন ও মেধা বিকশিত হবে, স্বাস্থ্য আরও উন্নত হবে, মন উদার হবে, প্রতিযোগিতামূলক মনোভাব সৃষ্টি হবে। যা শুধু খেলাধুলায় নয় জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে উৎকর্ষ সাধনে আরও বেশি অবদান রাখতে পারবে, আরও বেশি দক্ষতা যোগ্যতা অর্জন করতে পারবে। সে কারণেই সরকার গঠনের পর থেকে আমরা খেলাধুলার দিকে বিশেষভাবে দৃষ্টি দিয়েছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের প্রতিবন্ধী খেলোয়াড়রাও পিছিয়ে নেই। বিভিন্ন অলিম্পিকে তারা আমাদের জন্য স্বর্ণপদক অর্জন করে নিয়ে আসছেন। আমরা চাই বাংলাদেশ আত্ম সম্মানে যেমন এগিয়ে যাবে তেমনি ক্রীড়া ক্ষেত্রেও উৎকর্ষতা এবং উন্নত খেলোয়াড় সৃষ্টি করে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় আমরা আরও ব্যাপকভাবে অংশগ্রহণ করতে পারব।’

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

স্মার্ট খেলোয়াড় তৈরির কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

আপডেট টাইম : ১১:০৩:৫৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সরকার দেশকে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ হিসেবে গড়তে চায়। এ জন্য স্মার্ট খেলোয়াড় তৈরির লক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ রোববার শেখ কামাল দ্বিতীয় বাংলাদেশ যুব গেমস উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে এ অনুষ্ঠানটি চলছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, খেলাধুলা যত বেশি হবে শিক্ষার্থীদের মেধা ও মনন তত উন্নত হবে। এ জন্য আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে খেলাধুলার দিকে জোর দিয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের পরিবারটা খেলাধুলার সঙ্গে সম্পৃক্ত। আমার দাদাও খেলতেন ফুটবল, আমার ছোট ভাই কামাল, সে তো বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী ছিল। কামাল একাধারে ক্রিকেট, ফুটবল, হকিসহ বিভিন্ন খেলার সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিল। আবাহনী ক্রীড়াচক্র সে নিজেই গঠন করে এবং সেভাবেই আমাদের যুব সমাজকে খেলাধুলায় প্রতি সম্পৃক্ত করার উদ্যোগ নিয়েছিল। সাংস্কৃতিক দিক দিয়ে সে অনেক উন্নত ছিল। এছাড়া উপস্থিত বিভিন্ন নাটকেও তার পারদর্শিতা ছিল।’

সরকারপ্রধান বলেন, ‘আবাহনী ক্রীড়াচক্র প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সে যুব সমাজের জন্য আধুনিক ফুটবল খেলার প্রবর্তন করে এবং আমাদের শিশু-কিশোর যুব সমাজ সকলেই খেলার প্রতি যেন বেশি উৎসাহী হয় সেজন্য সে বিশেষ নজর দিয়েছিল। সে ফুটবল ক্রিকেট হকিসহ বিভিন্ন খেলার সূচনা করেছিল এবং সে নিজেও সেগুলো খেলত।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশকে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি। আজ আমাদের লক্ষ্য স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলা। স্মার্ট বাংলাদেশে আমাদের স্মার্ট খেলোয়াড় তৈরি করবে এবং আমরা সারা বিশ্বের যে কোনো প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করার যোগ্যতা অর্জন করব, সেটাই আমি চাই।’

তিনি বলেন, ‘খেলাধুলা আমাদের ছেলে-মেয়েদের মধ্যে যত বেশি ছড়িয়ে দিতে পারব, তত বেশি তাদের মনন ও মেধা বিকশিত হবে, স্বাস্থ্য আরও উন্নত হবে, মন উদার হবে, প্রতিযোগিতামূলক মনোভাব সৃষ্টি হবে। যা শুধু খেলাধুলায় নয় জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে উৎকর্ষ সাধনে আরও বেশি অবদান রাখতে পারবে, আরও বেশি দক্ষতা যোগ্যতা অর্জন করতে পারবে। সে কারণেই সরকার গঠনের পর থেকে আমরা খেলাধুলার দিকে বিশেষভাবে দৃষ্টি দিয়েছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের প্রতিবন্ধী খেলোয়াড়রাও পিছিয়ে নেই। বিভিন্ন অলিম্পিকে তারা আমাদের জন্য স্বর্ণপদক অর্জন করে নিয়ে আসছেন। আমরা চাই বাংলাদেশ আত্ম সম্মানে যেমন এগিয়ে যাবে তেমনি ক্রীড়া ক্ষেত্রেও উৎকর্ষতা এবং উন্নত খেলোয়াড় সৃষ্টি করে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় আমরা আরও ব্যাপকভাবে অংশগ্রহণ করতে পারব।’