,

rifat

কুসিক নির্বাচন; বিজয়ের পর যা বললেন রিফাত

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সদ্য শেষ হওয়া কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে নতুন নগরপিতা আরফানুল হক রিফাত বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হওয়ার পর সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন। বিজয়ের পর নিজ বাসভবনে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আরফানুল হক রিফাত বলেন, আমি সারাজীবন কুমিল্লার মানুষের কাছে ঋণী থাকব। তারা তাদের চিন্তা-চেতনায় আমাকে মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করেছেন। আমি তাদের যে কমিটমেন্ট দিয়েছি, সেই কমিটমেন্ট রক্ষা করব।

বুধবার (১৫ জুন) রাতে তিনি বলেন, জীবন দিয়ে আমি আমার প্রতিশ্রুতি রক্ষা করবে। আগামী ১ বছরের মধ্যে কুমিল্লাবাসীকে দুর্ভোগ থেকে মুক্ত করব।

মেয়র হিসেবে প্রথম কাজ কী হবে, এ নিয়ে জানতে চাইলে রিফাত বলেন, মেয়র হিসেবে আমার প্রথম কাজই হবে গত ১০ বছরের দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশ।

জলাবদ্ধতা ও যানজট কুমিল্লা নগরবাসীর দীর্ঘদিনের ভোগান্তির কারণ। রিফাত বলেন, আগামী এক বছরের মধ্যেই তিনি এই দুটি সমস্যার সমাধান করবেন।

সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু নগরীর কোনো উন্নয়নের পরামর্শ নিয়ে এগিয়ে এলে তিনি তা সাদরে গ্রহণ করবেন বলেও জানান।

রিফাত বলেন, প্রাক্তন মেয়র যদি এগিয়ে আসেন, আমি ভালো কাজ হলে গ্রহণ করব। আমি আওয়ামী লীগের কর্মী কিন্তু দলীয় মেয়র নই। আমি কুমিল্লার মানুষের মেয়র। আমার অফিসের দরজা, বাসার দরজা সকল মানুষের জন্য সবসময় খোলা থাকবে।

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে আ.লীগ দলীয় প্রার্থী আরফানুল হক রিফাত বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। ১০১টি কেন্দ্রে তিনি ৫০ হাজার ৩১০ ভোট পেয়েছেন। রিফাতের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী টেবিল ঘড়ি প্রতীকের মনিরুল হক সাক্কু পেয়েছেন ৪৯ হাজার ৯৬৭ ভোট।

স্বতন্ত্র প্রার্থী নিজাম উদ্দিন ঘোড়া প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২৯ হাজার ৯৯ ভোট। বুধবার (১৫ জুন) রাতে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরী এ ফল ঘোষণা করেন।

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। নগরীর ২৭টি ওয়ার্ডের ১০৫টি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেওয়া হয়।

কুসিকের ২৭টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার ২ লাখ ২৯ হাজার ৯২০ জন। এদের মধ্যে ১ লাখ ১৭ হাজার ৯২ জন নারী ভোটার এবং পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১২ হাজার ৮২৬ জন। এ ছাড়া তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছে দুজন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর