,

image-547661-1651742798

৩৩ মাস পর নিজ নির্বাচনী এলাকায় গিয়ে যা বললেন ওবায়দুল কাদের

হাওর বার্তা ডেস্কঃ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির আন্দোলনের কথা শুনে মানুষ হাসে। গত ১৩ বছরে বিএনপি ২৬ বার আন্দোলনের ডাক দিয়েছে। ১৩ বছরে পারলা না, কোন বছর পারবে? তাদের আন্দোলনের বিষয়ে সবারই প্রশ্ন- এই বছর না ওই বছর আন্দোলন হবে কোন বছর!

বৃহস্পতিবার দুপুরে ওবায়দুল কাদের এর নির্বাচনি এলাকা কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় নিজ বাড়িতে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় এসব কথা বলেন।

এর আগে নিজ বাড়ির দরজায় পৌঁছালে পুলিশের গার্ড অব অনার শেষে বাবা-মায়ের কবর জিয়ারত করেন তিনি। এসময় ওবায়দুল কাদেরকে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে “বীর মুক্তিযোদ্ধা” স্বর্ণপদক ও ক্রেস্ট প্রদান করেন তার ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা।

ওবায়দুল কাদের জুনের মধ্যেই পদ্মা সেতু উদ্বোধন হবে নিশ্চিত করে বলেন, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের তারিখ কখনই পেছানো হয়নি। আগামী জুনেই পদ্মা সেতুতে যানবাহন চলাচল করবে।

তিনি আরও বলেন, এলাকার সাথে আমি কখনও বিচ্ছিন্ন ছিলাম না। করোনার আগে ও পরে সব সময় জনগণের জন্য প্রয়োজনীয় সব কিছুই ব্যবস্থা করেছি এবং পাঠিয়েছি। সবার সাথে সব সময় আমার যোগাযোগ ছিল। অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর, আইসিইউ প্রতিস্থাপন, খাদ্য সামগ্রী, ত্রাণ সামগ্রী সব কিছুই দিয়েছি। বহুদিন মা-বাবা’র কবর জিয়ারত করতে পারিনি, তাই মনটা বিষন্ন ছিল। আজ নিজ বাড়িতে নিজ ঘরে খাবার খেয়েছি। দুপুরে নামাজও পড়েছি, এজন্য মনটা খুবই ভালো লাগছে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের অনেক কিছু আমি ঠিক করে ফেলেছি। বাকিটাও ঠিক হয়ে যাবে।

এসময় জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান, জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম, ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জাসহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, দলীয় নেত্রীর আদেশ ও নিজের অসুস্থতার কারণে গত ৩৩ মাস (২০১৯সাল) সালে তিনি নিজ নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালী-৫ (কোম্পানীগঞ্জ-কবিরহাট উপজেলা) আসতে পারেননি সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সর্বশেষ ২০১৯ সালের ১৩ আগস্ট ঈদুল আজহা উদযাপন করতে নিজ বাড়িতে এসেছিলেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর