,

download (2)

১২ মিনিটে ৩ গোল, সিটিকে হারিয়ে ফাইনালে রিয়াল

হাওর বার্তা ডেস্কঃ নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটেও ছিটকে যাওয়ার শঙ্কায় থাকা রিয়াল মাদ্রিদ অবিশ্বাস্যভাবে জ্বলে উঠল। ১২ মিনিটের মধ্যে ৩ গোল করে তারা স্থাপন করল রাজকীয় প্রত্যাবর্তনের নতুন এক নজির।

অসাধারণ পারফরম্যান্সে ‘ম্যানচেস্টার সিটির জয় কেড়ে নিয়ে তারা উঠল উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে।

বুধবার (৪ মে) রাতে আসরের সেমিফাইনালের ফিরতি লেগে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে স্বাগতিক রিয়াল জিতেছে ৩-১ গোলে। প্রথম লেগে ম্যান সিটির মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে তারা হেরেছিল ৪-৩ গোলে। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৬-৫ অগ্রগামিতায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের টিকিট পেয়েছে কার্লো আনচেলত্তির শিষ্যরা।

উত্তেজনায় ঠাসা হাইভোল্টেজ লড়াইয়ের প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্যভাবে। দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণ পাল্টা আক্রমণ চলতে থাকে। অবশেষে ৭৩ মিনিটের মাথায় গোলমুখ খোলে সিটি। বার্নাদো সিলভা বল বক্সের মধ্যে নিয়ন্ত্রণ হারালেও সেটা পেয়ে যান ডানদিকে ছুটে যাওয়া রিয়াদ মাহরেজ। চোখের পলকে তা জালে জড়িয়ে দেন ফরাসি-আলবেনিয়ান এই উইঙ্গার।

ম্যাচের তখন ৮৯ মিনিট। সিটির জয় সময়ের ব্যাপার। এমন মুহূর্তে রদ্রিগোর জাদু। ১ মিনিটের মধ্যে দুই গোল করে রিয়ালকে অবিশ্বাস্যভাবে লড়াইয়ে ফেরান এই ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার।

৯০ মিনিটে বেনজেমার ডান দিক থেকে আলতো পায়ের ক্রস বক্সের মাঝখানে একদম গোলরক্ষকের সামনে পেয়ে জালে জড়ান রদ্রিগো। পরের মিনিটে মার্কো অাসেনসিওর উঁচু ক্রস লাফিয়ে উঠে হেড করেন তিনি। ২-১ গোল এগিয়ে থাকা রিয়াল খেলা টেনে নেয় অতিরিক্ত সময়ে (দুই লেগ মিলিয়ে দুই দলের সমান গোল তখন)।

অতিরিক্ত সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে বেনজেমার নিঁখুত শট কোনোমতে ফেরান সিটি গোলরক্ষক এদেরসন। তবে পঞ্চম মিনিটে এই বেনজেমাকেই বক্সের মধ্যে ফেলে দিয়ে দলের সর্বনাশ ডাকেন ডায়াস। ঠান্ডা মাথার পেনাল্টিতে রিয়ালকে ফাইনালে তোলা গোলটি করেন বেনজেমা।

ইউরোপের সর্বোচ্চ ক্লাব আসরের সফলতম দল রিয়াল ফাইনালে মোকাবিলা করবে লিভারপুলকে। আগামী ২৯ মে শিরোপা নির্ধারনী ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ফ্রান্সের প্যারিসে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর