ঢাকা ০৯:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৬০০ কোটি রুপির ধনসম্পত্তি ছেড়ে সন্ন্যাসব্রত

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৬:১৩:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুন ২০১৫
  • ৪৭৫ বার

দিল্লির ‘প্লাস্টিক কিং’ বলে পরিচিত বনওয়ারলাল রাঘুনাথ দোশি নিজের ৬০০ কোটি রুপির ব্যবসায়িক সাম্রাজ্য ছেড়ে জৈন সন্ন্যাস জীবন বেছে নিলেন। শনিবার আহমেদাবাদে একটি বিশাল অনুষ্ঠানে তিনি এ সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন। তিনি জৈন আচার্য শ্রী গুণরতœ সুরিশ্বার্জি মহারাজের অধীনে সন্ন্যাসী হয়েছেন। দোশি ছিলেন সুরিশ্বার্জি মহারাজের অধীনে সন্ন্যাসব্রত গ্রহণের ৩৫৪ তম আবেদনকারী। সুরিশ্বার্জি তার আর্জি অনুমোদন করায় দোশি বনে গেলেন তার ১০৮ তম শিষ্য। এ খবর দিয়েছে টাইমস অফ ইন্ডিয়া।
২ পুত্র ও ১ কন্যা সন্তানের জনক রাঘুনাথ দোশি জানান, তিনি ১৯৮২ সাল থেকে দীক্ষা গ্রহণের পরিকল্পনা করছিলেন। সে সময় জৈন ধর্মের বাণী তার মধ্যে আধ্যাত্মিকার জন্ম দেয়। অনেক বছর চেষ্টার পর গত বছর তিনি তার পরিবারকে রাজি করাতে সক্ষম হন। আহমেদাবাদের ওই অনুষ্ঠানের দীক্ষা মঞ্চে আরও ১০১ জন আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে সন্ন্যাস জীবন বেছে নেয়ার সঙ্কল্প গ্রহণ করেন।
আহমেদাবাদ এডুকেশন গ্রাউন্ড নামের দীক্ষার স্থানটি জাহাজের মতো করে নির্মান করা হয়েছে। এটি নির্মানে ব্যয় হয়েছিল ১০০ কোটি রুপি। সেখানে ১০০০ সাধু ও সাধভিস ছাড়াও প্রায় দেড় লাখ ব্যাক্তি অংশ গ্রহণ করেন।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

৬০০ কোটি রুপির ধনসম্পত্তি ছেড়ে সন্ন্যাসব্রত

আপডেট টাইম : ০৬:১৩:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুন ২০১৫

দিল্লির ‘প্লাস্টিক কিং’ বলে পরিচিত বনওয়ারলাল রাঘুনাথ দোশি নিজের ৬০০ কোটি রুপির ব্যবসায়িক সাম্রাজ্য ছেড়ে জৈন সন্ন্যাস জীবন বেছে নিলেন। শনিবার আহমেদাবাদে একটি বিশাল অনুষ্ঠানে তিনি এ সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন। তিনি জৈন আচার্য শ্রী গুণরতœ সুরিশ্বার্জি মহারাজের অধীনে সন্ন্যাসী হয়েছেন। দোশি ছিলেন সুরিশ্বার্জি মহারাজের অধীনে সন্ন্যাসব্রত গ্রহণের ৩৫৪ তম আবেদনকারী। সুরিশ্বার্জি তার আর্জি অনুমোদন করায় দোশি বনে গেলেন তার ১০৮ তম শিষ্য। এ খবর দিয়েছে টাইমস অফ ইন্ডিয়া।
২ পুত্র ও ১ কন্যা সন্তানের জনক রাঘুনাথ দোশি জানান, তিনি ১৯৮২ সাল থেকে দীক্ষা গ্রহণের পরিকল্পনা করছিলেন। সে সময় জৈন ধর্মের বাণী তার মধ্যে আধ্যাত্মিকার জন্ম দেয়। অনেক বছর চেষ্টার পর গত বছর তিনি তার পরিবারকে রাজি করাতে সক্ষম হন। আহমেদাবাদের ওই অনুষ্ঠানের দীক্ষা মঞ্চে আরও ১০১ জন আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে সন্ন্যাস জীবন বেছে নেয়ার সঙ্কল্প গ্রহণ করেন।
আহমেদাবাদ এডুকেশন গ্রাউন্ড নামের দীক্ষার স্থানটি জাহাজের মতো করে নির্মান করা হয়েছে। এটি নির্মানে ব্যয় হয়েছিল ১০০ কোটি রুপি। সেখানে ১০০০ সাধু ও সাধভিস ছাড়াও প্রায় দেড় লাখ ব্যাক্তি অংশ গ্রহণ করেন।