ঢাকা ০৮:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নির্বাচন বর্জন করলে তারা পার পেয়ে যাবে : হান্নান শাহ

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১১:৫৩:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ এপ্রিল ২০১৬
  • ৩৫৮ বার

শেখ হাসিনা ও এরশাদকে পরম বন্ধু আখ্যা দিয়ে বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্রিগেডিয়ার. জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নান শাহ বলেছেন, স্বৈরাচার এরশাদ ৮৬’ সালে জনগণ প্রত্যাখ্যাত যে নির্বাচন দিয়েছিলেন, তাতে অংশ নিয়েছিলেন শেখ হাসিনা। আর ২০১৪ সালের হাসিনার ভোটারবিহীন নির্বাচনে অংশ নেন এরশাদ।

আ স ম হান্নান শাহ বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ক্ষমতাসীনরা ভোটকেন্দ্র দখলে ও মানুষ হত্যায় অবৈধ অস্ত্রের ব্যবহার করছে। কয়েক বছরে আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মীকে অবৈধ অস্ত্রের লাইসেন্স দেয়া হয়েছে। সেসব অস্ত্র ইউপি নির্বাচনের

ভোটকেন্দ্র দখল এবং সাধারণ জনগণের বিরুদ্ধে ব্যবহৃত হচ্ছে।

নির্বাচনের আগে থানায় অস্ত্র জমা নেয়ার যে প্রচলন রয়েছে তা মানা হচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে করা সব মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে এক প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এ প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে স্বাধীনতা ফোরাম।

হান্নান শাহ বলেন, আওয়ামী লীগের ভোট ডাকাতের চেহারা জনসম্মক্ষে তুলে ধরতেই বিএনপি ইউপি নির্বাচনে থাকছে। নির্বাচন বর্জন করলে তারা পার পেয়ে যাবে।

এসময় তিনি তনু হত্যাকাণ্ড, বাংলাদেশ ব্যাংক কেলেঙ্কারি, খাদ্যমন্ত্রী ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীর আদালত অবমাননাসহ বিভিন্ন বিষয়ে সরকারের ভূমিকার তীব্র সমালোচনা করেন।

প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, বিএনপির সহ-স্বেচ্ছা সম্পাদক এ বি এম মোশাররফ হোসেন, জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দলনের সভাপতি কে এম র‌কিবুল ইসলাম রিপন, নারী নেত্রী খালেদা ইয়াসমিন প্রমুখ।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

নির্বাচন বর্জন করলে তারা পার পেয়ে যাবে : হান্নান শাহ

আপডেট টাইম : ১১:৫৩:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ এপ্রিল ২০১৬

শেখ হাসিনা ও এরশাদকে পরম বন্ধু আখ্যা দিয়ে বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্রিগেডিয়ার. জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নান শাহ বলেছেন, স্বৈরাচার এরশাদ ৮৬’ সালে জনগণ প্রত্যাখ্যাত যে নির্বাচন দিয়েছিলেন, তাতে অংশ নিয়েছিলেন শেখ হাসিনা। আর ২০১৪ সালের হাসিনার ভোটারবিহীন নির্বাচনে অংশ নেন এরশাদ।

আ স ম হান্নান শাহ বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ক্ষমতাসীনরা ভোটকেন্দ্র দখলে ও মানুষ হত্যায় অবৈধ অস্ত্রের ব্যবহার করছে। কয়েক বছরে আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মীকে অবৈধ অস্ত্রের লাইসেন্স দেয়া হয়েছে। সেসব অস্ত্র ইউপি নির্বাচনের

ভোটকেন্দ্র দখল এবং সাধারণ জনগণের বিরুদ্ধে ব্যবহৃত হচ্ছে।

নির্বাচনের আগে থানায় অস্ত্র জমা নেয়ার যে প্রচলন রয়েছে তা মানা হচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে করা সব মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে এক প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এ প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে স্বাধীনতা ফোরাম।

হান্নান শাহ বলেন, আওয়ামী লীগের ভোট ডাকাতের চেহারা জনসম্মক্ষে তুলে ধরতেই বিএনপি ইউপি নির্বাচনে থাকছে। নির্বাচন বর্জন করলে তারা পার পেয়ে যাবে।

এসময় তিনি তনু হত্যাকাণ্ড, বাংলাদেশ ব্যাংক কেলেঙ্কারি, খাদ্যমন্ত্রী ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীর আদালত অবমাননাসহ বিভিন্ন বিষয়ে সরকারের ভূমিকার তীব্র সমালোচনা করেন।

প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, বিএনপির সহ-স্বেচ্ছা সম্পাদক এ বি এম মোশাররফ হোসেন, জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দলনের সভাপতি কে এম র‌কিবুল ইসলাম রিপন, নারী নেত্রী খালেদা ইয়াসমিন প্রমুখ।