,

IMG_20210730_233106

সৈয়দ আশরাফের জনপ্রিয়তায় এখনও অনেকে ভীত: হানিফ

হাওর বার্তা ডেস্কঃ কিশোরগঞ্জে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক জনপ্রশাসনমন্ত্রী মরহুম সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ তার ফেইসবুকে নিন্দা ও দোষীদের দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন

শুক্রবার (৩০ জুলাই) মাহবুব-উল আলম হানিফ নিজের ফেসবুক পেজ থেকে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে এই দাবি জানান।

আওয়ামী লীগনেতা বলেন, ‘সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সবচেয়ে জনপ্রিয় সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। স্বল্পভাষী, মিষ্টভাষী, নির্লোভ, নিরহংকারী ব্যক্তি ছিলেন সৈয়দ আশরাফ। কখনো কারো বিরুদ্ধাচরণ করা অথবা কারো কোনো ক্ষতি করেছেন এমন নজির নেই।’

‘অথচ গত রাত্রে সেই মানুষটির ম্যুরাল ভাঙচুর করা হয়েছে। সৈয়দ আশরাফের জনপ্রিয়তাই কি এই ঘটনার মূল কারণ? মৃত আশরাফের জনপ্রিয়তায় এখনও অনেকে ভীত বলে মনে হচ্ছে’, যোগ করেন হানিফ।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৯টার মধ্যে কোনো এক সময়ে দুর্বৃত্তরা সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরাল ভাঙচুর করে বলে ধারণা করা হচ্ছে। দুর্বৃত্তরা সৈয়দ আশরাফের ছবি সংবলিত ম্যুরাল ও মেয়র পারভেজ মিয়ার উদ্বোধনী স্মৃতিফলকটি ভেঙে ফেলা হয়েছে। জেলা শহরের আখড়া বাজার সেতুর উত্তরদিকে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম চত্বরে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরালটি অবস্থিত।

ভাঙচুরের ঘটনাকে দুস্কৃতকারীদের ন্যাক্কারজনক কর্মকাণ্ড উল্লেখ করে এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম এবং পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ। এরই মধ্যে আজ  সন্দেহে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ।

ভাঙচুরের ঘটনায় আজ সকালে কিশোরগঞ্জ পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী শরীফুল ইসলাম বাদি হয়ে কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা  করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর