,

9356_Symon

ফেসবুক লাইভে এসে কিশোরগঞ্জবাসীকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানালেন চিত্রনায়ক সাইমন

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ফেসবুক লাইভে এসে করোনার ভয়াবহতা ও সাম্প্রতিক পরিস্থিতির ব্যাপারে কিশোরগঞ্জবাসীকে সতর্ক করে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক।

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) সন্ধ্যায় কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগের সামনে থেকে তিনি ফেসবুক লাইভটি করেন।

ফেসবুক লাইভে চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক জানান, গত কয়েকদিন ধরে তার মা করোনা পজেটিভ হয়ে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। সাইমন তার মায়ের সাথে হাসপাতালের কেবিনে থাকছেন।

সাইমন সাদিক বলেন, এখানে আসার পর দেখছি, প্রতিদিনই ৩/৪ জন করে মানুষ পৃথিবীর মায়া ছেড়ে চলে যাচ্ছেন। করোনার কারণে তারা মারা যাচ্ছেন। নতুন যে ভ্যারিয়েন্টটি এসেছে ভারত থেকে প্রায় ৭২ শতাংশ রোগী এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত।

হাসপাতালে নিজের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে সাইমন বলেন, কাউকেই খুঁজে পাওয়া যায় না। কেউ থাকে না। ধরেন, আমি যে পেশেন্ট না, পেশেন্টের সাথে আছি। আম্মার সাথে আছি। সেখানে আমার কাছ থেকেও মানুষ অনেক দূরে থাকছে। কারণ আমি করোনা পেশেন্টের সঙ্গে আছি।

এটা যে কি একটা ভয়াবহতা আর এটা যে কি একটা সিচুয়েশন! আপনারা যারা এখনও হাসপাতালে যাননি, তারা বুঝবেন না। কারণ আমি এই হাসপাতালে আসার আগে আমিও বুঝিনি যে কি অবস্থা!

কিশোরগঞ্জের মতো একটা জায়গায় এভাবে বেড়ে চলেছে। আমি ঢাকা থাকতে কিন্তু বুঝিনি। টিভিতে সংবাদ যখন দেখতাম, মনে হতো ব্যাপারটা কি রকম বা কি?

এখন আমি প্রতি সেকেন্ডে সেকেন্ডে ফিল করছি। মৃত্যু অনেক যন্ত্রণার নিশ্চয়। কিন্তু আমি যেটা দেখছি, একটু পর পর লাশ বেরুচ্ছে এ রকম একটা অবস্থা। একটু পর পর মানে প্রতিদিন ৩/৪ জন মানুষ একটা জায়গা থেকে চলে যাওয়া, সেটা আসলে যখন আমি দেখছি মনে হচ্ছে যে, অপেক্ষা করছি আবার হয়তো কেউ বের হয়ে চলে যাবে।

এ রকম একটা সিচুয়েশন, সেখানে আমরা যার তার মতো লকডাউন মানছি না। কোন ধরনের কোন কিছুই মানছি না। যে যার মতো চলছি। এটা যে কি বিপদের কারণ হতে চলেছে! ঢাকার বাইরে এখন অবস্থা খুবই খারাপ। আমরা সেটা হয়তো জানছি, কিন্তু মানছি না।

যখন আপনার ঘরে একজন পেশেন্ট চলে আসবে, আপনার খুব কাছের কেউ। তখন বুঝবেন আসলে মানাটা কতটা জরুরী। আপনারা এখনও যারা অহেতুক ঘোরাঘুরি করছেন বাহিরে, আপনারা এভাবে ঘুরবেন না।

দেখুন কেউ নেই। একটা হাসপাতাল। ভেতরে অনেক রোগী আছেন। রোগীদের আশপাশে দেখার মতো কেউ নেই। মানে সবাই যার যার মতো ব্যস্ত, কেউ আসছে না। এরকম একটা জায়গা, আপনি ভাবতে পারবেন না যে কি ভয়াবহ সিচুয়েশন।

অবশ্যই আপনাকে ঘরে থাকতে হবে। সারাক্ষণ মাস্ক পরে থাকতে হবে। এজন্য মানুষের কাছাকাছি যাওয়া যাবে না। যতদিন না পর্যন্ত আমাদের দেশ থেকে এই করোনা না যাচ্ছে সতর্ক তো থাকতেই হবে সরকার যে লকডাউন দিয়েছে সেটাকে আপনারা আমরা সবাই মেনে চলি। কারণ এখানে আসার আগে আমি বুঝিনি, এটার ভয়াবহতা আসলে কতটা কঠিন।

আপনাদের এতটুকু বলব, খুব সাবধান হয়ে যান, সাবধানে থাকুন। বাসা থেকে বের হবেন না। বাসা থেকে বের হওয়ার মতো সিচুয়েশন নেই।

ফেসবুক লাইভে চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক তার মায়ের সুস্থতার জন্য সবার দোয়া কামনা করেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর