,

01

সুপ্রিমকোর্টের নবনির্বাচিত সভাপতি মতিন খসরুর মৃত্যুতে এমপি তৌফিকের শোক

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতি, সাবেক আইনমন্ত্রী,বর্তমান সংসদে আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি
সিনিয়র এডভোকেট আব্দুল মতিন খসরু আর নেই।বুধবার রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ প্রকৌশলী রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক।
বুধবার (১৪এপ্রিল) এক শোক বার্তায় রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি বলেন,বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতি, সাবেক আইনমন্ত্রী, সিনিয়র এডভোকেট,বিজ্ঞ পার্লামেন্টারিয়ান আব্দুল মতিন খসরুর মৃত্যুতে আমি গভীরভাবে শোকাহত ও ব্যাথিত হয়েছি।
তার মৃত্যতে দেশের রাজনীতিতে অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে গেল।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে তার ভূমিকা ছিল অপরিসীম।
রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে মহান রাব্বুল আলামিনের নিকট মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।
উল্লেখ্য,করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ১৬ মার্চ সকালে সিএমএইচে ভর্তি হন আবদুল মতিন খসরু।

 

তবে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত ২৫ মার্চ রাতে আইসিইউতে নেওয়া হয় তাকে। পরে তার শারীরিক অবস্থায় উন্নতি হওয়ায় ৩১ মার্চ বুধবার কেবিনে দেওয়া হয়। এরপর তার করোনা পরীক্ষা করা হয়। গত ১ এপ্রিল করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

 

কিন্তু হঠাৎ করে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত ৬ এপ্রিল তাকে ফের আইসিইউতে নেওয়া হয়।

 

গত ১২ মার্চ সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি নির্বাচিত হন সুপ্রিমকোর্টের এই জ্যেষ্ঠ আইনজীবী।

 

আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে ১৯৯১ সালে কুমিল্লা থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন মতিন খসরু। তারপর ১৯৯৬, ২০০৮, ২০১৪ ও ২০১৯ সালে মোট ৫ বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এর মধ্যে ৭ম সংসদে (১৯৯৬-২০০১) আইনমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমান সংসদে আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর