,

image-153131-1615878123bdjournal

সান্ধ্য আড্ডায় ‘মিস ইউনিভার্স’ এর সেরা দশ

হাওর বার্তা ডেস্কঃ তোরজোড়-এর সাথে চলছে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ২০২০ প্রতিযোগিতার শেষ মুহূর্তের প্রশিক্ষণ। পর্যায়ক্রমে নানান পর্বের মধ্য দিয়ে খুব দ্রুতই চূড়ান্ত ধাপে এসে গেছে এই বিউটি পেজেন্ট। এরই ধারাবাহিকতায় হসপিটালিটি পার্টনার রেডিসন ব্লু ঢাকা হোটেলে সম্পন্ন হলো সেরা দশের সাথে এক সাক্ষাৎ ও অভিবাদন পর্ব।

বিভিন্ন সংবাদ মাধমের সাংবাদিক, স্পন্সর এবং আয়োজকরা উপস্থিত ছিলেন এই সময়ে। সেরা দশের সাথে পরিচয় পর্ব, কথা বার্তা ও আলোচনার মাধ্যমে বিভিন্ন বিষয় উঠে আসে। তাদের এই নতুন অভিজ্ঞতা, গ্র্যান্ড ফিনালে নিয়ে তাদের আশা, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা, তাদের পরিবার, পড়ালেখা সবকিছু নিয়েই তারা কথা বলেন। প্রতিযোগিতার শুরু থেকে বিভিন্ন পর্যায়ে তাদের পথচলার গল্প বড় স্ক্রিন -এ একসাথে বসে উপভোগ করেন সবাই। আর সব শেষে ছবিও তুলেন সবার সাথে। কঠিন নিয়মানুবর্তিতার বাইরে এসে এই ব্যাতিক্রধর্মী আয়জনে প্রতিযোগীদের ভীষণ উৎফুল্ল দেখা যায়। প্রতিযোগীরা অনুষ্ঠানে উপস্থিতির জন্য সকল সাংবাদিকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

আয়োজকরা জানান, তারা কতটা আশাবাদী এই পুরো বিউটি পেজেন্ট নিয়ে। সুন্দর ভাবে সকল কার্যক্রমই সংঘটিত হয়েছে, এখন শুধু গ্র্যান্ডফিনালের প্রস্তুতি। সুন্দরীদের অনেক ধরনের অনুশীলনের মধ্য দিয়ে নেয়া হচ্ছে বলে জানান। সারাদিন ব্যাপি প্রতিযোগীরা ব্যস্ত থাকলেও তাদের আগ্রহ, প্রয়াস ও উৎফুল্লতাই তাদের সামনে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

‘মিস ইউনিভার্স’ বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট রফিকুল ইসলাম ডিউক বলেন, ‘আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের বিষয় যে বিশ্বদরবারে বাংলাদেশকে তুলে ধরবেন এই প্রতিযোগীরা। মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ-এর এই আয়োজন নারীদের আরও আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে এবং নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে নারীদের সোচ্চার হতে সাহায্য করবে বলে আমরা আশাবাদী।’

একই দিনে মিস ইউনিভার্সের সাথে যুক্ত হল, পাওয়ার্ড বাই পার্টনার গোদরেজ বাংলাদেশ। আনন্দ সিং, গোদরেজ বাংলাদেশ-এর কান্ট্রি ম্যানেজার এই আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন, এই প্রতিযোগিতার সফলতা নিয়ে তাঁরা বেশ আশাবাদী। শেষ মুহূর্তে একটি আন্তর্জাতিক বিউটি পেজেন্টের সাথে যুক্ত হয়ে তারা বেশ উৎফুল্ল বলেও তিনি জানান। ছোট পরিসরে প্রতিযোগীদের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন তিনি।

গ্রুমার, আয়োজক ও স্পন্সরদের মতে এবার সব প্রতিযোগীরাই বেশ মেধাবী, জ্ঞানসম্পন্ন এবং একে অন্য থেকে অনন্য। নির্বাচিত সেরা ১০ জন প্রতিযোগী হলেন- অনকিতা দে, আপনা চাকমা, ফারজানা আকতার এ্যানি, ফারজানা ইয়াসমিন, ফাতেমা তুজ জহুরা, মারিয়াম আহমেদ, মাসুদা খান, নিদ্রা দে, তানজিয়া জামান মিথিলা এবং তৌহিদা তাসনিম তিফা। পড়াশোনা, শখ, শিক্ষা সবকিছু ভিন্ন হলেও সবারই লক্ষ্য এক – নিজেকে সামনে এগিয়ে নিয়ে মুকুট জয় করে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে তুলে ধরা।

গত ২ই মার্চ আরটিভি স্টুডিওতে নির্বাচিত হয় শেষ ও চূড়ান্ত ১০ মেধাবী সুন্দরী। সেরা এই ১০ প্রতিযোগী এবার লড়বেন মুকুটের জন্য, মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ২০২০’ এর খেতাবের জন্য। প্রতিযোগিতার এবারের মূল স্লোগান ‘আমার আত্মবিশ্বাস, আমার সৌন্দর্য’। আগামী ২০ মার্চ ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে জাতীয় পর্যায়ের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা। চূড়ান্তপর্বের বিচারক হিসেবে থাকবেন গায়ক তাহসান রহমান খান এবং অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিম। আগামী মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিতব্য ‘মিস ইউনিভার্স ২০২০’ প্রতিযোগীতার ৬৯তম মূল মঞ্চে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন ‘ফ্লোরা ব্যাংক মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ২০২০’-এর মুকুট বিজয়ী।

জানুয়ারী ২০২১ থেকে আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয় বাংলাদেশ-এর মিস ইউনিভার্সের এই দ্বিতীয় আসরের। গতবারের প্রধান স্পন্সর ফ্লোরা ব্যাংক এবারো মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশের প্রধান স্পন্সর হিসেবে যুক্ত রয়েছেন। আরও যুক্ত হল, পাওয়ার্ড বাই পার্টনার গোদরেজ বাংলাদেশ। আয়োজনটির টেলিভিশন পার্টনার আরটিভি, ক্রাউন পার্টনার ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড, মেকওভার পার্টনার পারসোনা, পিআর পার্টনার নর্থব্রুক কনসালটেন্টস, হসপিটালিটি পার্টনার রেডিসন ব্লু ঢাকা, ওয়েলনেস পার্টনার রেজুভা, অডিট পার্টনার এ.ওয়াহাব অ্যান্ড কো.। সহযোগী স্পন্সর ফ্লোরা টেলিকম, স্পেকট্রা কনভেনশন সেন্টার, থাইরো কেয়ার, সুঘন্ধা এন্টারপ্রাইজ।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর