,

25

জকারবার্গের মতো নিজের পছন্দগুলো ঠিক করে নিলে যে সুবিধা

হাওর বার্তা ডেস্কঃ আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন প্রয়োজনীয় কিছু কিনতে হলে, নির্দিষ্ট হাউসে গিয়ে ঝটপট নিয়ে বেরিয়ে আসেন। আরেক দল আছেন, যারা সারাদিন ঘুরেও একটি জিনিসও কিনতে পারেন না।

সব সময় একই ধরনের পণ্য ব্যবহার করেন সিনিয়র সহকারী সচিব মেহেদী হাসান। তিনি বলেন, পোশাকের কথা যদি বলা হয়, তো দেখা যাবে একেক সময় একেক ধরনের পোশাক ব্যবহার করার ফলে, সব পোশাকে আমাদের নাও মানাতে পারে। সেগুলো আর ব্যবহারই করা হয় না, তার মানে পরীক্ষা চালাতে গিয়ে টাকাগুলো নষ্ট হলো সঙ্গে সময়ও।

এবার আসি কসমেটিকসে, পুরুষ হোন বা নারী সবারই আবহাওয়া অনুযায়ী ত্বকের কিছু যত্ন নিতেই হয়। যেমন আমাদের ময়েশ্চারাইজার, লোশন, লিপ বাম, গ্লিসারিন প্রয়োজন হয়। চুলের যত্নে শ্যাম্পু কন্ডিশনার আর গোসলের জন্য বার সাবান বা লিকুইড সাবান। এছাড়া সাজগোজের জন্য কিনতে হয় ক্রিম, ফাউন্ডেশন, লিপিস্টিক, আইশ্যাডো, কাজলসহ আরও অনেক পণ্য। এরপর আছে দাঁত মাজার পেস্ট, চুলের তেলসহ কত কী!

এর প্রতিটি পণ্য আমাদের ত্বক ও স্বাস্থ্যের সুস্থতার সঙ্গে জড়িত। একটি ঠিকমতো না মানিয়ে গেলেই দেখা যায় ত্বকে সমস্যা হচ্ছে বা চুল পড়ে যাচ্ছে। এজন্য প্রতিটি পণ্য বাছাই করতে হয় নিজের ত্বক ও আবহাওয়ার সঙ্গে মিল রেখে।

বিশ্ববাজারের সব পণ্য যখন এক ক্লিকে পাওয়া যায়, এদিকে সুপারশপে সাজানো হাজারো ব্র্যান্ডের পণ্য। এর থেকে কোনটি মানিয়ে যাবে বোঝা সত্যি কঠিন একটি কাজ। সঠিক পণ্য পেতে প্রথমে বেগ পেতেই হয়, কিন্তু যখন যেটা সেট হয়ে যায়, সেগুলোর যদি একটি তালিকা করে নেওয়া যায়, তাহলে অনেক সময় ও অর্থ বেঁচে যাবে। তেমনি ত্বক, চুলও বা স্বাস্থ্য সবই থাকবে সুস্থ।
একবার যখন জেনে গেছেন, কোন পণ্যটি আপনার জন্য একদম ঠিক, তখন কিন্তু একটি কাজ করতে হবে। আর তা হচ্ছে, আপনার প্রয়োজনীয় মানসম্মত আসল পণ্যটি কোথায় পাওয়া যায় এটিও জানতে হবে।

অনেকেই হয়ত লক্ষ্য করেছেন, ফেসবুকের জনক মার্ক জকারবার্গের বেশিরভাগ সময় একটিই টি-শার্ট পরেন সঙ্গে থাকে জিন্স। তাহলে তার কি মাত্র একটিই টি-শার্ট রয়েছে? এর উত্তর জকারবার্গ নিজেই দিয়েছেন।

জকারবার্গ বলেন, আমার কাছে অনেক টি-শার্ট রয়েছে একই রঙের। জামাকাপড় পরা নিয়ে ভাবাটাও আমার কাছে বিলাসিতা। পোশাক নির্বাচনের জন্য অকারণ সময় নষ্ট করতে চাইনা। মার্ক বলেন, আমি চাই সেই সময়টুকু যেন আমি ফেসবুককে আরও কার্যকারী করে তুলতে ব্যয় করতে পারি।
তো বুঝতেই পারছেন, প্রতিদিনের কাজের সময় ও অ্যানার্জি অনেক বাড়িয়ে নিতে পারেন শুধু নিজের প্রয়োজনের সঠিক পণ্যটি সেট করে নিলেই।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর