,

3

যেন কারও সামর্থ নেই নাইট রাইডার্সকে থামানোর

হাওর বার্তা ডেস্কঃ চলতি ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (সিপিএল) ক্রিকেটে একটি বিষয় নিয়মে পরিণত হয়েছে। প্রতিপক্ষ যে বা যারাই হোক না কেন- ম্যাচ শেষে জয়ী দলের নাম হবে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মিশনে শক্তিশালী স্কোয়াড গড়া দলটিকে হারানোর মতো কোনো প্রতিপক্ষই যেন নেই এবারের সিপিএলে।

শনিবার রাতে এবারের আসরের টানা নবম জয় তুলে নিয়েছে কাইরন পোলার্ড, ডোয়াইন ব্রাভোদের নাইট রাইডার্স। এবার তারা জিতেছে টুর্নামেন্টের আরেক শক্তিশালী দল সেইন্ট লুসিয়া জুকসের বিপক্ষে। ড্যারেন স্যামির দলকে ২৩ রানে হারিয়ে অপরাজিত যাত্রা অব্যাহত রেখেছে কাইরন পোলার্ডের দল।

তারুবার ব্রায়ান লারা স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে ১৭৫ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছিল ত্রিনবাগো। জবাবে শুরু থেকেই পিছিয়ে পড়তে থাকা সেইন্ট লুসিয়ার ইনিংস থামে ১৫২ রানে। দুই দলেরই এটি ছিল নবম ম্যাচ। সবকয়টি জিতে স্বভাবতই সবার ওপরে ত্রিনবাগো, পাঁচ জয়ে তিন নম্বরে সেইন্ট লুসিয়া।

রান তাড়া করতে নেমে সেইন্ট লুসিয়ার শুরুটাই হয়েছিল যাচ্ছেতাই। পাওয়ার প্লে’র ছয় ওভারে যেখানে দরকার ছিল মারকাটারি ব্যাটিং, সেখানে তারা ১ উইকেট হারিয়ে করতে পেরেছিল মাত্র ২৬ রান। ম্যাচ মূলত ছুটে যায় সেখানেই। পরের ব্যাটসম্যানরা আর পারেননি ১৭৬ রানের লক্ষ্য পূরণ করতে।

তবু চেষ্টা করেছিলেন মার্ক দেয়াল ও আন্দ্রে ফ্লেচার। উইকেটরক্ষক ফ্লেচার ২৭ বলে ৪২ ও দেয়াল ৩৩ বলে ৪০ রান করে খানিক সম্ভাবনা জাগান। কিন্তু শেষদিকে যে ঝড়ো ফিনিশিং দরকার ছিল, তা পারেননি মোহাম্মদ নাবী, ড্যারেন স্যামি, নাজিবউল্লাহ জাদরানরা। ফলে মিলেছে ২৩ রানের পরাজয়।

ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে অধিনায়ক পোলার্ডের ঝড়ো ফিনিশিংয়ে নিরাপদ সংগ্রহ পেয়েছে ত্রিনবাগো। তিন উইকেট পতনের পর যখন উইকেটে আসেন পোলার্ড, তখন তাদের সংগ্রহ ১২.৪ ওভারে ৯৩ রান। তিনি আউট হন ১৯তম ওভারের পঞ্চম বলে।

মাঝের ৩৭ বলে ৬৭ রান পায় ত্রিনবাগো। যেখানে মাত্র ২১ বলে ৪২ রানের ঝড় তোলেন পোলার্ড। সমান তিনটি করে চার-ছক্কা হাঁকান তিনি। এছাড়া ড্যারেন ব্রাভো ৪২ বলে ৫০, টিম সেইফার্ট ৩০ বলে ৩৩ এবং টিয়ন ওয়েবস্টার ১৪ বলে ২০ রান করেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর