ঢাকা ০৬:৪৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

১৪ জেলার ডিসি-ডিএম সীমান্ত সম্মেলন ১-৩ ডিসেম্বর

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৮:২৪:৫৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৫
  • ৩৪৯ বার

বাংলাদেশ-ভারতের সীমান্তবর্তী ক্লাস্টার ৮ এর আওতায় বাংলাদেশের ৭টি ভারতের ৭টি জেলাধীন নানা সমস্যা নিয়ে জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেটদের তিনদিনব্যাপী সম্মেলন আগামী ১লা ডিসেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে। ময়মনসিংহ শহরের খাগডহরের হোটেল সিলভার ক্যাসেলে এই সীমান্ত সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এতে ভারতের ৩১ জন এবং ভারতের ৪৫ জন কর্তকর্তা অংশগ্রহন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। সম্মেলন শেষ হবে ৩ ডিসেম্বর। এই সম্মেলনে সীমান্তে চোরাচালানসহ অন্যান্য অপরাধ, সীমান্ত পিলার সমস্যা, দুই দেশের মাঝে বন্দি বিনিময়, কাঁটাতারের বেড়া এবং দুই দেশের সংস্কৃতি ও খেলাধূলা বিনিময় সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা স্থান পাবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী জানান, সীমান্ত সম্মেলনে অংশগ্রহনকারী বাংলাদেশের ৭টি জেলা হচ্ছে-ময়মনসিংহ, জামালপুর, কুড়িগ্রাম, শেরপুর, নেত্রকোণা, সুনামগঞ্জ ও সিলেট। আর ভারতের ৭টি জেলা হলো- ইস্ট খাসি হিলস শিলং, সাউথ ওয়েস্ট খাসি হিলস, সাউথ গারো হিলস, ওয়েস্ট গারো হিলস, ইস্ট জয়ন্তিয়া হিলস, ওয়েস্ট জয়ন্তিয়া হিলস ও সাউথ গারো হিলস। ১৪টি জেলার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ সুপার, বিজিবি প্রতিনিধি, রাজস্ব কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা এই সম্মেলনে অংশ নিবেন।

ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু জানান, ঢাকা থেকে মাত্র ১৯০ কিলোমিটারের দূরে কড়ইতলী ও গোবরাকুড়া স্থলবন্দর। তিনি এই স্থল বন্দরটি দ্রুত চালু করাসহ ধোবাউড়ায় সীমান্ত হাট চালু করা, হালুয়াঘাটে ইমিগ্রেশন চালু করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহনের উভয় দেশের সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

১৪ জেলার ডিসি-ডিএম সীমান্ত সম্মেলন ১-৩ ডিসেম্বর

আপডেট টাইম : ০৮:২৪:৫৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৫

বাংলাদেশ-ভারতের সীমান্তবর্তী ক্লাস্টার ৮ এর আওতায় বাংলাদেশের ৭টি ভারতের ৭টি জেলাধীন নানা সমস্যা নিয়ে জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেটদের তিনদিনব্যাপী সম্মেলন আগামী ১লা ডিসেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে। ময়মনসিংহ শহরের খাগডহরের হোটেল সিলভার ক্যাসেলে এই সীমান্ত সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এতে ভারতের ৩১ জন এবং ভারতের ৪৫ জন কর্তকর্তা অংশগ্রহন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। সম্মেলন শেষ হবে ৩ ডিসেম্বর। এই সম্মেলনে সীমান্তে চোরাচালানসহ অন্যান্য অপরাধ, সীমান্ত পিলার সমস্যা, দুই দেশের মাঝে বন্দি বিনিময়, কাঁটাতারের বেড়া এবং দুই দেশের সংস্কৃতি ও খেলাধূলা বিনিময় সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা স্থান পাবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী জানান, সীমান্ত সম্মেলনে অংশগ্রহনকারী বাংলাদেশের ৭টি জেলা হচ্ছে-ময়মনসিংহ, জামালপুর, কুড়িগ্রাম, শেরপুর, নেত্রকোণা, সুনামগঞ্জ ও সিলেট। আর ভারতের ৭টি জেলা হলো- ইস্ট খাসি হিলস শিলং, সাউথ ওয়েস্ট খাসি হিলস, সাউথ গারো হিলস, ওয়েস্ট গারো হিলস, ইস্ট জয়ন্তিয়া হিলস, ওয়েস্ট জয়ন্তিয়া হিলস ও সাউথ গারো হিলস। ১৪টি জেলার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ সুপার, বিজিবি প্রতিনিধি, রাজস্ব কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা এই সম্মেলনে অংশ নিবেন।

ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু জানান, ঢাকা থেকে মাত্র ১৯০ কিলোমিটারের দূরে কড়ইতলী ও গোবরাকুড়া স্থলবন্দর। তিনি এই স্থল বন্দরটি দ্রুত চালু করাসহ ধোবাউড়ায় সীমান্ত হাট চালু করা, হালুয়াঘাটে ইমিগ্রেশন চালু করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহনের উভয় দেশের সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।