ঢাকা ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেসবুকে এ কি বললেন হ্যাপী

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১০:০৫:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৫
  • ২৮৩ বার

বর্তমান সময়ের আলোচিত মডেল, চিত্রনায়িকা নাজনিন আক্তার হ্যাপী। তাকে আর ক্রিকেটার রুবেলকে নিয়ে নানান তর্ক, বিতর্ক এবং জল গোলা কম হয়নি। এসব কথা আর নতুন কিছু নয়। তবে নতুন কথা হলো দুনিয়াবি সকল কিছু ছেড়ে এবার আল্লাহর একজন খাস বান্দা হিসেবে নিজে তুলে ধরে আজ বৃহস্পতিবার সন্ধায় তার ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসে লিখেছে ‘আল্লাহর সৃষ্টি চোখ দিয়ে টিভিতে নাচ-গান দেখা উচিৎ নয়’। তার ফেসবুক থেকে স্ট্যাটাসটি এমটিনিউজের পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো। ‘কোথা থেকে শুরু করব বুঝতে পারছি না!টিভিতে,পত্রিকাতে,অনলাইন সাইটে আমরা বিভিন্ন পন্যের মনোমুগ্ধকর বিজ্ঞাপন দেখি,এবং বিজ্ঞাপনের ঝলকে চোখই সরানো যায় না এবং অনেক পন্যের বিজ্ঞাপন দেখে আমরা তো প্রতিজ্ঞা করেই ফেলি যে, এটা কিনবোই!এবং নিজের কাছে টাকা না থাকলেও বাবা/মা/ভাই/স্বামী কাউকে না কাউকে চাপ দিয়ে হলেও জিনিসটা চাই! কোন তারকার সাথে দেখা করার অফার? দিন রাত এক করে কিভাবে ভাগ্যবান/ভাগ্যবতী উইনার হয়ে কিভাবে তারকার সাথে দেখা করা যায়,তারপর কিভাবে সেলফি তোলা যায় এসব ভেবে পাগল হয়ে যাই।তারপর বন্ধুদের বলতে হবে, আমি কার সাথে দেখা করছি জানিস? এই দেখ সেলফি দেখ! একটু ভেবে বলুন তো এসবের পেছনে ছুটে,এসব নিয়ে চিন্তা ভাবনা করে আসলে কোন ফায়দা আছে? প্রকৃত অর্থে হচ্ছে ঈমান নষ্ট করার জন্য এসবই যথেষ্ট। দুনিয়ার কান্ড-কারখানা দেখে আর সেসবে গা ভাসিয়ে ফায়দা দুনিয়া পর্যন্তই শুধু হতে পারে। কিন্তু আখিরাতে? আমরা এসবে মনযোগ দিয়ে আল্লাহর কাছ থেকে দূরে সরে যাচ্ছি। একসময় এতটাই দূরে চলে যাব যেখান থেকে আল্লাহর কাছে ফেরা কঠিন হয়ে যাবে। কারণ যতটা আগ্রহ আমাদের দুনিয়া নিয়ে, সেই তুলনায় আখিরাত নিয়ে ভাবাটা আমাদের কাছে সময়ের অপচয় ছাড়া আর কি! আমরা বারবার ভুলে যাই যে, আমরা শুধু আল্লাহর ইবাদাতের জন্য দুনিয়াতে এসেছি। ইবাদাত ছাড়া আর কোন কিছুতে পাগল হওয়ার মানেই আগুন। আমরা যে চোখ দিয়ে টিভিতে নাচ-গান দেখে আল্লাহর আদেশ অমান্য করি, সেই চোখ তো তারই দেওয়া! তিনি দেখতে দিয়েছেন, অবশ্যই এই চোখ দিয়ে এমন কিছু দেখা উচিৎ নয়, যেটাতে আল্লাহ অখুশি হবেন। তারকার সাথে দেখা করার যতটা আগ্রহ থাকে আমাদের মাঝে, এই আগ্রহটা যদি আল্লাহর সাথে দেখা করার জন্য হত তাহলে হয়তো আমরা আল্লাহর রহমতকে ছায়ার মত পাশে পেতাম,না জানি এর কত দামী উপহার আল্লাহ দিতেন! আল্লাহর চিন্তা ছাড়া অন্য কিছুতে অস্থির হওয়ার মানে নিঃসন্দেহে আগুনের দিকেই যাচ্ছি।নিশ্চয় সেই আগুন খুবই যন্ত্রণাদায়ক!আসুন, আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাই আর শুধু তারই ইবাদাত করি,মিথ্যা দুনিয়ায় ব্যস্ত না হয়ে শুধু পরকাল নিয়েই ভাবার প্রতিজ্ঞা করি’।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

ফেসবুকে এ কি বললেন হ্যাপী

আপডেট টাইম : ১০:০৫:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৫

বর্তমান সময়ের আলোচিত মডেল, চিত্রনায়িকা নাজনিন আক্তার হ্যাপী। তাকে আর ক্রিকেটার রুবেলকে নিয়ে নানান তর্ক, বিতর্ক এবং জল গোলা কম হয়নি। এসব কথা আর নতুন কিছু নয়। তবে নতুন কথা হলো দুনিয়াবি সকল কিছু ছেড়ে এবার আল্লাহর একজন খাস বান্দা হিসেবে নিজে তুলে ধরে আজ বৃহস্পতিবার সন্ধায় তার ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসে লিখেছে ‘আল্লাহর সৃষ্টি চোখ দিয়ে টিভিতে নাচ-গান দেখা উচিৎ নয়’। তার ফেসবুক থেকে স্ট্যাটাসটি এমটিনিউজের পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো। ‘কোথা থেকে শুরু করব বুঝতে পারছি না!টিভিতে,পত্রিকাতে,অনলাইন সাইটে আমরা বিভিন্ন পন্যের মনোমুগ্ধকর বিজ্ঞাপন দেখি,এবং বিজ্ঞাপনের ঝলকে চোখই সরানো যায় না এবং অনেক পন্যের বিজ্ঞাপন দেখে আমরা তো প্রতিজ্ঞা করেই ফেলি যে, এটা কিনবোই!এবং নিজের কাছে টাকা না থাকলেও বাবা/মা/ভাই/স্বামী কাউকে না কাউকে চাপ দিয়ে হলেও জিনিসটা চাই! কোন তারকার সাথে দেখা করার অফার? দিন রাত এক করে কিভাবে ভাগ্যবান/ভাগ্যবতী উইনার হয়ে কিভাবে তারকার সাথে দেখা করা যায়,তারপর কিভাবে সেলফি তোলা যায় এসব ভেবে পাগল হয়ে যাই।তারপর বন্ধুদের বলতে হবে, আমি কার সাথে দেখা করছি জানিস? এই দেখ সেলফি দেখ! একটু ভেবে বলুন তো এসবের পেছনে ছুটে,এসব নিয়ে চিন্তা ভাবনা করে আসলে কোন ফায়দা আছে? প্রকৃত অর্থে হচ্ছে ঈমান নষ্ট করার জন্য এসবই যথেষ্ট। দুনিয়ার কান্ড-কারখানা দেখে আর সেসবে গা ভাসিয়ে ফায়দা দুনিয়া পর্যন্তই শুধু হতে পারে। কিন্তু আখিরাতে? আমরা এসবে মনযোগ দিয়ে আল্লাহর কাছ থেকে দূরে সরে যাচ্ছি। একসময় এতটাই দূরে চলে যাব যেখান থেকে আল্লাহর কাছে ফেরা কঠিন হয়ে যাবে। কারণ যতটা আগ্রহ আমাদের দুনিয়া নিয়ে, সেই তুলনায় আখিরাত নিয়ে ভাবাটা আমাদের কাছে সময়ের অপচয় ছাড়া আর কি! আমরা বারবার ভুলে যাই যে, আমরা শুধু আল্লাহর ইবাদাতের জন্য দুনিয়াতে এসেছি। ইবাদাত ছাড়া আর কোন কিছুতে পাগল হওয়ার মানেই আগুন। আমরা যে চোখ দিয়ে টিভিতে নাচ-গান দেখে আল্লাহর আদেশ অমান্য করি, সেই চোখ তো তারই দেওয়া! তিনি দেখতে দিয়েছেন, অবশ্যই এই চোখ দিয়ে এমন কিছু দেখা উচিৎ নয়, যেটাতে আল্লাহ অখুশি হবেন। তারকার সাথে দেখা করার যতটা আগ্রহ থাকে আমাদের মাঝে, এই আগ্রহটা যদি আল্লাহর সাথে দেখা করার জন্য হত তাহলে হয়তো আমরা আল্লাহর রহমতকে ছায়ার মত পাশে পেতাম,না জানি এর কত দামী উপহার আল্লাহ দিতেন! আল্লাহর চিন্তা ছাড়া অন্য কিছুতে অস্থির হওয়ার মানে নিঃসন্দেহে আগুনের দিকেই যাচ্ছি।নিশ্চয় সেই আগুন খুবই যন্ত্রণাদায়ক!আসুন, আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাই আর শুধু তারই ইবাদাত করি,মিথ্যা দুনিয়ায় ব্যস্ত না হয়ে শুধু পরকাল নিয়েই ভাবার প্রতিজ্ঞা করি’।