,

khale_18724

আমি যে বক্তব্য দিয়েছি কোনটা ভুল: খালেদা জিয়া

ক্ষমতার বাইরে গেলে রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে জবাব দিতে হবে বলে ক্ষমতাসীন দলকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। খালেদা জিয়া জানিয়েছেন, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে বিএনপির মন্তব্য নির্ভুল। এ বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করা হবে রাষ্ট্রদ্রোহিতা। শনিবার রাতে জন্মাষ্টমী উপলক্ষে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সঙ্গে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় খালেদা জিয়া এ কথা বলেন। গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে ওই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

খালেদা জিয়া বলেন, ‘সুন্দরবন নিয়ে রামপাল নিয়ে আমি বক্তব্য দিয়েছি। তাই তাঁর (প্রধানমন্ত্রী) গায়ে বেশি জ্বালা ধরেছে বলে আজ বক্তব্য দিয়েছেন। কিন্তু উনি বলুক আমি যে তথ্যগুলো দিয়েছি তা ভুল কি মিথ্যা। সেটা আগে বলুক। কোনো তথ্য ভুল নয়। কাজেই এ তথ্যের ওপর ভিত্তি করে যদি রামপালে বিদ্যুৎকেন্দ্র হয়, তাহলে সবচেয়ে বড় ক্ষতি হবে দেশে। আমাদের সবকিছু শেষ হয়ে যাবে।’

তিনি বলেন, ‘যিনি বলছেন বা যে দল এটা (রামপালে বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রকল্প) করছেন, এরা রাষ্ট্রবিরোধী, রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে কাজ করছেন। তার জবাব হয়তো তাদের ক্ষমতায় থেকে দিতে হচ্ছে না, কিন্তু ক্ষমতার বাইরে গেলে এদেরকে প্রতিটি মানুষের কাছে জবাব দিতে হবে। এরকম কাজ তারা(সরকার) করতে পারে না। এটা তাদের পৈত্রিক সম্পত্তি নয়।’

বর্তমান সরকারকে ‘অবৈধ’ অভিহিত করে উল্লেখ করে খালেদা জিয়া বলেন, এরা অনির্বাচিত সরকার। এখন দেশটাকে বাঁচানোর জন্য, নিজেদের বাঁচানোর জন্য, নিজেদের ছেলেমেয়েদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে এই সর্বনাশ থেকে এরা যে আরো ক্ষতিকর কাজ হাতে নিয়েছে ওইসবের বিরুদ্ধে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। সকলে ঐক্যবদ্ধ হলে এরা ওই কাজ থেকে সরে যেতে বাধ্য হবে।

বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান কল্যাণ ফ্রন্টের আহ্বায়ক গৌতম চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, রামকৃষ্ণ মিশনের মৃদুল মহারাজ, গুলশান পূজামণ্ডপের সাধারণ সম্পাদক সুধাংশু দাস, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সাংবাদিক সঞ্জীব চৌধুরী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক জয়ন্ত কুমার কুন্ডু প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর