ঢাকা ১০:১৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গ্রাম-গঞ্জে এটিএম কার্ড চালুর আহ্বান গর্ভনরের

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১২:১৩:০৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ অগাস্ট ২০১৫
  • ৩২৯ বার

সারাদেশে ক্যাশবিহীন লেনদেন কার্যক্রমের প্রসার ঘটাতে গ্রাম-গঞ্জেও অটোমেটেড টেলার মেশিন (এটিএম) কার্ড (ডেবিট-ক্রেডিট) চালুর আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গর্ভনর ড. আতিউর রহমান। নগদ টাকার পরিবর্তে যাতে তারাও কার্ড দিয়ে কেনাকাটার সুযোগ পান সেজন্য ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের প্রতি তিনি এ আহ্বান জানান তিনি।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কনফারেন্স হলে বুধবার দুপুরে ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ বাংলাদেশের আওতায় আন্ত:ব্যাংক পয়েন্ট অব সেল লেনদেন কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন নিরাপদ উল্লেখ করে ড. আতিউর রহমান আরও বলেন, ক্যাশবিহীন লেনদেনের ফলে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বাড়বে। কেন্দ্রীয় ব্যাংককে ফাঁকি দিয়ে ব্যাংকগুলো কোনো ধরনের অনিয়ম করতে পারবে না। দেশের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে এখনো এটিএম কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন কার্যক্রম চালু হয়নি। অবিলম্বে কার্ড লেনদেন চালু করা গেলে নাগরিক সুবিধাও বৃদ্ধি পাবে। নিরাপদ হবে সাধারণ মানুষের লেনদেন।

গর্ভনর বলেন, আমি সেই দিনের স্বপ্ন দেখছি, যেদিন মোবাইলই হবে মানুষের ডেবিট কার্ড। টাকা না নিয়ে বাজারে গিয়ে লেনদেনের পেমেন্ট করতে পারবেন মোবাইল থেকে।

আন্ত:ব্যাংক পয়েন্ট অব সেল লেনদেন নিষ্পত্তিকরণের মাধ্যমে ব্যাংকিং খাত দেশ আরও একধাপ এগিয়ে গেলো বলেও মন্তব্য করেন ড. আতিউর।

অনুষ্ঠানে ডেপুটি গর্ভনর আবু হেনা মোহা. রাজি হাসান, এসকে সুর চৌধুরী, নাজনীন সুলতানা, নির্বাহী পরিচালক শুভঙ্কর সাহা, ম. মাহফুজুর রহমান ও চার ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আর্থিক খাতে ক্যাশবিহীন কেনাকাটা করতে ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ বাংলাদেশের (এনপিএসবি) আওতায় যাত্রা শুরু হয়েছে আন্ত:ব্যাংক পয়েন্ট অব সেলের (পস) লেনদেন কার্যক্রমের। এ কার্যক্রমে প্রাথমিকভাবে লেনদেন করা যাবে ডাচ বাংলা, পুবালী, দি সিটি ও ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেডের এটিএম কার্ড দিয়ে। দেশে কার্যরত অন্য ব্যাংকগুলোও এতে যুক্ত হতে পারবে।

ব্যাংকগুলোর এটিএম কার্ড (ডেবিট-ক্রেডিট) দিয়ে চারটি ব্যাংকের পস মেশিন থেকে দেশের বিভিন্ন বিপনিবিতান ও শপিংমল থেকে কেনাকাটা করতে পারবেন গ্রাহকরা।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

জনপ্রিয় সংবাদ

গ্রাম-গঞ্জে এটিএম কার্ড চালুর আহ্বান গর্ভনরের

আপডেট টাইম : ১২:১৩:০৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ অগাস্ট ২০১৫

সারাদেশে ক্যাশবিহীন লেনদেন কার্যক্রমের প্রসার ঘটাতে গ্রাম-গঞ্জেও অটোমেটেড টেলার মেশিন (এটিএম) কার্ড (ডেবিট-ক্রেডিট) চালুর আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গর্ভনর ড. আতিউর রহমান। নগদ টাকার পরিবর্তে যাতে তারাও কার্ড দিয়ে কেনাকাটার সুযোগ পান সেজন্য ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের প্রতি তিনি এ আহ্বান জানান তিনি।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কনফারেন্স হলে বুধবার দুপুরে ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ বাংলাদেশের আওতায় আন্ত:ব্যাংক পয়েন্ট অব সেল লেনদেন কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন নিরাপদ উল্লেখ করে ড. আতিউর রহমান আরও বলেন, ক্যাশবিহীন লেনদেনের ফলে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বাড়বে। কেন্দ্রীয় ব্যাংককে ফাঁকি দিয়ে ব্যাংকগুলো কোনো ধরনের অনিয়ম করতে পারবে না। দেশের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে এখনো এটিএম কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন কার্যক্রম চালু হয়নি। অবিলম্বে কার্ড লেনদেন চালু করা গেলে নাগরিক সুবিধাও বৃদ্ধি পাবে। নিরাপদ হবে সাধারণ মানুষের লেনদেন।

গর্ভনর বলেন, আমি সেই দিনের স্বপ্ন দেখছি, যেদিন মোবাইলই হবে মানুষের ডেবিট কার্ড। টাকা না নিয়ে বাজারে গিয়ে লেনদেনের পেমেন্ট করতে পারবেন মোবাইল থেকে।

আন্ত:ব্যাংক পয়েন্ট অব সেল লেনদেন নিষ্পত্তিকরণের মাধ্যমে ব্যাংকিং খাত দেশ আরও একধাপ এগিয়ে গেলো বলেও মন্তব্য করেন ড. আতিউর।

অনুষ্ঠানে ডেপুটি গর্ভনর আবু হেনা মোহা. রাজি হাসান, এসকে সুর চৌধুরী, নাজনীন সুলতানা, নির্বাহী পরিচালক শুভঙ্কর সাহা, ম. মাহফুজুর রহমান ও চার ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আর্থিক খাতে ক্যাশবিহীন কেনাকাটা করতে ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ বাংলাদেশের (এনপিএসবি) আওতায় যাত্রা শুরু হয়েছে আন্ত:ব্যাংক পয়েন্ট অব সেলের (পস) লেনদেন কার্যক্রমের। এ কার্যক্রমে প্রাথমিকভাবে লেনদেন করা যাবে ডাচ বাংলা, পুবালী, দি সিটি ও ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেডের এটিএম কার্ড দিয়ে। দেশে কার্যরত অন্য ব্যাংকগুলোও এতে যুক্ত হতে পারবে।

ব্যাংকগুলোর এটিএম কার্ড (ডেবিট-ক্রেডিট) দিয়ে চারটি ব্যাংকের পস মেশিন থেকে দেশের বিভিন্ন বিপনিবিতান ও শপিংমল থেকে কেনাকাটা করতে পারবেন গ্রাহকরা।