ঢাকা ০১:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আবারও রেকর্ড গড়তে চলেছেন ওয়াইসি

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৬:২৪:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০২৪
  • ৮ বার

আবারও রেকর্ড গড়তে চলেছেন অলইন্ডিয়া মজলিম-ই-ইত্তেহাদ-উল মুসলিমিন’ বা ‘মিম’ দলের প্রধান এবং হায়দ্রাবাদের প্রভাবশালী রাজনীতিক আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। টানা চারবারের এ সংসদ সদস্য হায়দ্রাবাদ লোকসভা আসনে পঞ্চম মেয়াদে নির্বাচিত হতে চলেছেন।

সর্বশেষ গণনা অনুযায়ী, বিজেপি প্রার্থী মাধবী লতার থেকে ৩ লাখ ১৫ হাজার ৮০০ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন ওয়াইসি ।

ওয়াইসি পেয়েছেন ৬ লাখ ২১ হাজার ৫৮৭ ভোট আর মাধবী লতা পেয়েছেন ৩ লাখ ৪ হাজার ৬৪৭ ভোট।

নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, কংগ্রেস প্রার্থী মহম্মদ ওয়ালিউল্লাহ সামি পেয়েছেন ৫৭ হাজার ৩৮৫ ভোট।

২০০৪ সাল থেকে গত চারটি লোকসভা নির্বাচনে ওয়াইসি এই আসনে জিতেছেন। ২০১৯ সালে তিনি বিজেপির ভগবন্ত রাওকে ২ লাখ ৮২ হাজার ১৮৬ ভোটে পরাজিত করেছিলেন।

তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতির (টিআরএস, বর্তমান বিআরএস) পুস্তে শ্রীকান্ত তৃতীয় স্থানে রয়েছেন। ২০১৪ সালেও ভগবন্ত রাওয়ের বিরুদ্ধে জিতেছিলেন ওয়াইস

হায়দ্রাবাদ ১৯৮৯ সাল থেকে ঐতিহ্যগতভাবে এআইএমআইএম-এর একটি শক্ত ঘাঁটি। সুলতান সালাহউদ্দিন ওয়াইসি প্রথমে ১৯৮৪ থেকে ১৯৮৯ সাল পর্যন্ত স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে এবং এরপরে ১৯৮৯ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত এআইএমআইএম এমপি হিসাবে হায়দ্রাবাদের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন।

হায়দ্রাবাদ লোকসভা কেন্দ্রটি সাতটি বিধানসভা আসন নিয়ে গঠিত এবং এর মধ্যে ছয়টি ওয়াইসির দলের প্রতিনিধিত্ব করে।

তেলেঙ্গানায় বিজেপির প্রথম মহিলা প্রার্থী ছিলেন মাধবী লতা। মুসলিম অধ্যুষিত এই কেন্দ্রে ওয়াইসির আধিপত্যকে চ্যালেঞ্জ জানাতে তাকে মাঠে নামিয়েছিল গেরুয়া শিবির। তার নির্বাচনী প্রচারণায় প্রাথমিকভাবে উন্নয়ন, নারী অধিকার এবং কথিত মুসলিম চরমপন্থার উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করা হয়েছিল। শহরের একটি মসজিদে কাল্পনিক তীর নিক্ষেপ করে বিতর্কে জড়ান লতা।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

আবারও রেকর্ড গড়তে চলেছেন ওয়াইসি

আপডেট টাইম : ০৬:২৪:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০২৪

আবারও রেকর্ড গড়তে চলেছেন অলইন্ডিয়া মজলিম-ই-ইত্তেহাদ-উল মুসলিমিন’ বা ‘মিম’ দলের প্রধান এবং হায়দ্রাবাদের প্রভাবশালী রাজনীতিক আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। টানা চারবারের এ সংসদ সদস্য হায়দ্রাবাদ লোকসভা আসনে পঞ্চম মেয়াদে নির্বাচিত হতে চলেছেন।

সর্বশেষ গণনা অনুযায়ী, বিজেপি প্রার্থী মাধবী লতার থেকে ৩ লাখ ১৫ হাজার ৮০০ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন ওয়াইসি ।

ওয়াইসি পেয়েছেন ৬ লাখ ২১ হাজার ৫৮৭ ভোট আর মাধবী লতা পেয়েছেন ৩ লাখ ৪ হাজার ৬৪৭ ভোট।

নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, কংগ্রেস প্রার্থী মহম্মদ ওয়ালিউল্লাহ সামি পেয়েছেন ৫৭ হাজার ৩৮৫ ভোট।

২০০৪ সাল থেকে গত চারটি লোকসভা নির্বাচনে ওয়াইসি এই আসনে জিতেছেন। ২০১৯ সালে তিনি বিজেপির ভগবন্ত রাওকে ২ লাখ ৮২ হাজার ১৮৬ ভোটে পরাজিত করেছিলেন।

তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতির (টিআরএস, বর্তমান বিআরএস) পুস্তে শ্রীকান্ত তৃতীয় স্থানে রয়েছেন। ২০১৪ সালেও ভগবন্ত রাওয়ের বিরুদ্ধে জিতেছিলেন ওয়াইস

হায়দ্রাবাদ ১৯৮৯ সাল থেকে ঐতিহ্যগতভাবে এআইএমআইএম-এর একটি শক্ত ঘাঁটি। সুলতান সালাহউদ্দিন ওয়াইসি প্রথমে ১৯৮৪ থেকে ১৯৮৯ সাল পর্যন্ত স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে এবং এরপরে ১৯৮৯ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত এআইএমআইএম এমপি হিসাবে হায়দ্রাবাদের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন।

হায়দ্রাবাদ লোকসভা কেন্দ্রটি সাতটি বিধানসভা আসন নিয়ে গঠিত এবং এর মধ্যে ছয়টি ওয়াইসির দলের প্রতিনিধিত্ব করে।

তেলেঙ্গানায় বিজেপির প্রথম মহিলা প্রার্থী ছিলেন মাধবী লতা। মুসলিম অধ্যুষিত এই কেন্দ্রে ওয়াইসির আধিপত্যকে চ্যালেঞ্জ জানাতে তাকে মাঠে নামিয়েছিল গেরুয়া শিবির। তার নির্বাচনী প্রচারণায় প্রাথমিকভাবে উন্নয়ন, নারী অধিকার এবং কথিত মুসলিম চরমপন্থার উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করা হয়েছিল। শহরের একটি মসজিদে কাল্পনিক তীর নিক্ষেপ করে বিতর্কে জড়ান লতা।