ঢাকা ০৯:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পুঁজিবাজারে মূলধন বেড়েছে ৪৪ হাজার ৩৭ কোটি টাকা

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৪:৫৩:৪৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪
  • ১৬ বার

দেশের পুঁজিবাজারে বিদায়ী সপ্তাহে (১৫ থেকে ১৮ এপ্রিল) সূচকের পতনমুখী প্রবণতায় লেনদেন হয়েছে। আলোচ্য সময়ে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) টাকার পরিমাণে লেনদেন কমলেও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বেড়েছে। তবে বিদায়ী সপ্তাহে উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে বাজার মূলধন বেড়েছে ৪৪ হাজার ৩৭ কোটি টাকার বেশি।

শনিবার (২০ এপ্রিল) ডিএসইর সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনা সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিদায়ী সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৯১২ কোটি ৮১ লাখ ৪০ হাজার টাকা। আর বিদায়ী সপ্তাহের আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ২ হাজার ১৭৪ কোটি ২০ লাখ ১০ হাজার টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ২৬১ কোটি ৩৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা।

বিদায়ী সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৬ হাজার ৩২৫ কোটি ১০ লাখ টাকা। আর বিদায়ী সপ্তাহের আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ডিএসইর বাজার মূলধন ছিল ৬ লাখ ৮৪ হাজার ৭৩৪ কোটি ৯০ লাখ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন বেড়েছে ২১ হাজার ৫৯০ কোটি ২০ লাখ টাকা।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৭৭.৪০ পয়েন্ট বা ৩.০৩ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৬৮৬ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩৫.৭৪ পয়েন্ট বা ২.৭৯ শতাংশ কমে ১ হাজার ২৪৬ পয়েন্টে, ডিএসই-৩০ সূচক ৪৭.৮১ পয়েন্ট বা ২.৩৫ শতাংশ কমে ১ হাজার ৯৮৪ পয়েন্টে এবং ডিএসই এসএমই সূচক ১৪৫.২৮ পয়েন্ট বা ৮.০২ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৬৬৫ পয়েন্টে

বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৩৯৫টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৯টির, দর কমেছে ২৮৫টির, দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২১টির। আর লেনদেন হয়নি ১৭টির।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বিদায়ী সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৪৮ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। আর বিদায়ী সপ্তাহের আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১৬ কোটি ১১ লাখ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৩২ কোটি ৪৮ লাখ টাকা।

বিদায়ী সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৩৬ হাজার ৬১৮ কোটি ১৬ লাখ টাকা। আর বিদায়ী সপ্তাহের আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে সিএসইর বাজার মূলধন ছিল ৭ লাখ ১৪ হাজার ১৭১ কোটি ২৩ লাখ টাকা। টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন ২২ হাজার ৪৪৬ কোটি ৯৩ লাখ টাকা বেড়েছে।

সপ্তাহটিতে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৪৮৯ পয়েন্ট বা ২.৯২ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ২৪৪ পয়েন্টে। সিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে সিএসসিএক্স ২.৯০ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৭৬৬ পয়েন্টে, সিএসই-৩০ সূচক ২.৫২ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১২ হাজার ৪৫৩ পয়েন্টে এবং সিএসআই সূচক ১.৯৯ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৬৮ পয়েন্টে।

বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে মোট ৩০১টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ৬১টির, দর কমেছে ২১১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির শেয়ার ও ইউনিট দর

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

পুঁজিবাজারে মূলধন বেড়েছে ৪৪ হাজার ৩৭ কোটি টাকা

আপডেট টাইম : ০৪:৫৩:৪৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

দেশের পুঁজিবাজারে বিদায়ী সপ্তাহে (১৫ থেকে ১৮ এপ্রিল) সূচকের পতনমুখী প্রবণতায় লেনদেন হয়েছে। আলোচ্য সময়ে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) টাকার পরিমাণে লেনদেন কমলেও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বেড়েছে। তবে বিদায়ী সপ্তাহে উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে বাজার মূলধন বেড়েছে ৪৪ হাজার ৩৭ কোটি টাকার বেশি।

শনিবার (২০ এপ্রিল) ডিএসইর সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনা সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিদায়ী সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৯১২ কোটি ৮১ লাখ ৪০ হাজার টাকা। আর বিদায়ী সপ্তাহের আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ২ হাজার ১৭৪ কোটি ২০ লাখ ১০ হাজার টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ২৬১ কোটি ৩৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা।

বিদায়ী সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৬ হাজার ৩২৫ কোটি ১০ লাখ টাকা। আর বিদায়ী সপ্তাহের আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ডিএসইর বাজার মূলধন ছিল ৬ লাখ ৮৪ হাজার ৭৩৪ কোটি ৯০ লাখ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন বেড়েছে ২১ হাজার ৫৯০ কোটি ২০ লাখ টাকা।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৭৭.৪০ পয়েন্ট বা ৩.০৩ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৬৮৬ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩৫.৭৪ পয়েন্ট বা ২.৭৯ শতাংশ কমে ১ হাজার ২৪৬ পয়েন্টে, ডিএসই-৩০ সূচক ৪৭.৮১ পয়েন্ট বা ২.৩৫ শতাংশ কমে ১ হাজার ৯৮৪ পয়েন্টে এবং ডিএসই এসএমই সূচক ১৪৫.২৮ পয়েন্ট বা ৮.০২ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৬৬৫ পয়েন্টে

বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৩৯৫টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৯টির, দর কমেছে ২৮৫টির, দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২১টির। আর লেনদেন হয়নি ১৭টির।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বিদায়ী সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৪৮ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। আর বিদায়ী সপ্তাহের আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১৬ কোটি ১১ লাখ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৩২ কোটি ৪৮ লাখ টাকা।

বিদায়ী সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৩৬ হাজার ৬১৮ কোটি ১৬ লাখ টাকা। আর বিদায়ী সপ্তাহের আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে সিএসইর বাজার মূলধন ছিল ৭ লাখ ১৪ হাজার ১৭১ কোটি ২৩ লাখ টাকা। টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন ২২ হাজার ৪৪৬ কোটি ৯৩ লাখ টাকা বেড়েছে।

সপ্তাহটিতে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৪৮৯ পয়েন্ট বা ২.৯২ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ২৪৪ পয়েন্টে। সিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে সিএসসিএক্স ২.৯০ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৭৬৬ পয়েন্টে, সিএসই-৩০ সূচক ২.৫২ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১২ হাজার ৪৫৩ পয়েন্টে এবং সিএসআই সূচক ১.৯৯ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৬৮ পয়েন্টে।

বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে মোট ৩০১টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ৬১টির, দর কমেছে ২১১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির শেয়ার ও ইউনিট দর