বিপাকে পড়েছেন নিপুণ

নানা বিতর্ক ও সমালোচনার মধ্য দিয়েই দুই বছর কাটিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির বর্তমান নির্বাহী পরিষদ। সর্বশেষ নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে বেশ লড়াই হয়েছে।

নির্বাচনে সাধারন সম্পাদক পদে ভোটে চিত্রনায়ক জায়েদ খান জয়ী হলেও আপিল কমিটির কাছে কারচুপির অভিযোগ করেন একই পদের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী চিত্রনায়িকা নিপুন। আপিল বিভাগ তার অভিযোগের ভিত্তিতে জায়েদকে বাদ দিয়ে নিপুনকে জয়ী ঘোষণা করে।

পরে জায়েদ আদালতের দ্বারস্থ হয়। আদালত জায়েদের পক্ষে রায় দিলে সেটা নিপুনের আবেদনের প্রেক্ষিতে উচ্চ আদালত স্থগিত করে। ফলে সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসে নিপুন। বিষয়টি এখনও আদালতে বিচারাধীন।

এর মধ্যে কেটে গেছে দুই বছর। বর্তমান কমিটির মেয়াদও প্রায় শেষের পথে। কিছুদিন আগে ঘোষিত হয়েছে আগামী নির্বাচনের তারিখ। ১৯ এপ্রিল এফডিসিতে অনুষ্ঠিত হবে ২০২৪-২৬ মেয়াদের নির্বাচন। এবার জায়েদ খান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে আগেই ঘোষণা দিয়েছেন। সরে গেছেন বর্তমান কমিটির সভাপতি চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনও।

এদিকে মিশা সওদাগর ও ডিপজল প্যানেল করার ঘোষণা দিয়েছেন। অন্যদিকে নিপুন পড়েছেন বিপাকে। তিনি এবারও সাধারন সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে জানা গেছে। তবে প্যানেল দেওয়ার জন্য সভাপতি পদে কাউকে খুঁজে পাচ্ছেন না। মূলত ইলিয়াস কাঞ্চন সরে যাওয়ায় নিপুন বিপাকে পড়েছেন। এরইমধ্যে সভাপতি পদের জন্য চিত্রনায়ক শাকিব খানকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু শাকিব রাজি হননি।

বিশ্বস্ত সূত্র জানিয়েছে, শাকিবকে শুরুতে প্রস্তাব দিয়েছিলেন প্রযোজক ও আগামী নির্বাচনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার খোরশেদ আলম খসরু। শাকিব তখন ‘রাজকুমার’ নামে একটি সিনেমার শুটিংয়ে আমেরিকা অবস্থান করছিলেন। খসরুর ফোনে এ প্রস্তাব পেয়ে তিনি বেশ বিরক্ত হন।
তাকে ‘না’ করে দেন। এর পরও শাকিবেরই ঘনিষ্ঠ অন্য এক প্রযোজককে দিয়েও নিপুন চেষ্টা করেছিলেন। কিন্ত তাতে ফল মেলেনি।

সূত্র আরও জানিয়েছে, শাকিবের কাছ থেকে সাড়া না পেয়ে নিপুন দ্বারস্থ হন নায়ক প্রযোজক অনন্ত জলিলের। সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার প্রস্তাব দেন তাকে। শুধু নিজেই নন, সরকারের উচ্চ পর্যায়ের এক প্রভাবশালী ব্যক্তিকে দিয়েও অনুরোধ করেছিলেন। কিন্তু অনন্ত ব্যবসায়িক ব্যস্ততার জন্য সেই প্রস্তাব সসম্মানে ফিরিয়ে দেন। যদিও এ বিষয়ে তিনি এখনও কোনো মন্তব্য গণমাধ্যমে করেননি। বিষয়টি নিয়ে কথা বলতেও ইচ্ছুক নন অনন্ত। শাকিব ও অনন্তের কাছ থেকে সাড়া না পেয়ে সভাপতি পদে কাকে নিয়ে প্যানেল গড়বেন নিপুন সেটা এখনও নির্ধারন করতে পারেননি। এদিকে মিশা ও ডিপজল তাদের প্যানেল প্রায় গুছিয়ে এনেছেন বলে জানা গেছে। শিগগিরই তারা এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করবেন বলে সূত্র জানিয়েছে।

এদিকে অনন্ত বর্তমানে ‘অপারেশন জ্যাকপট’ নামে একটি সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত আছেন। টানা শুটিংয়ের পর বর্তমানে দিনকয়েক বিশ্রামে আছেন। আগামী ১২ মার্চ থেকে সিনেমাটির শুটিং আবার শুরু হবে বলে জানা গেছে। এছাড়া শিগগিরই তিনি ‘কিল হিম-২’ নামে একটি সিনেমার শুটিংও শুরু করবেন। মো. ইকবাল পরিচালনায় নির্মিতব্য এ সিনেমাটি আগামী কুরবানি ঈদে মুক্তির লক্ষ্যে নির্মিত হচ্ছে। এছাড়া ‘নেত্রী : দ্য লিডার’ নামে তার প্রযোজনা সংস্থা থেকে নির্মাণচলতি আরও একটি সিনেমার অসমাপ্ত কাজও তিনি শিগগির সমাপ্ত করবেন।

অন্যদিকে শাকিব খান বর্তমানে আরশাদ আদনান প্রযোজিত হিমেল আশরাফ পরিচালিত ‘রাজকুমার’ সিনেমার কাজ নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন।

এটি রোজার ঈদে মুক্তি পাবে। তার অভিনীত অনন্য মামুন পরিচালিত ‘দরদ’ নামে একটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর