ঢাকা ১০:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১১:৪০:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর ২০২৩
  • ৬৭ বার

এবারও ‘চোকার’ তকমাও ঘোচাতে পারল না দক্ষিণ আফ্রিকা।  প্রতি বিশ্বকাপে ভালো শুরু করে সেমিফাইনালে গিয়েই তাদের হারতে হয়।  আজ রোমাঞ্চকর সেমিফাইনালের লড়াইয়ে দক্ষিণ আফ্রিকাকে তিন উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে উঠল অস্ট্রেলিয়া।  এর আগে সাতবার ফাইনালে খেলে রেকর্ড পাঁচবার শিরোপা জিতে নেয় অসিরা।

বিশ্বকাপের ১২তম আসরের প্রথম সেমিফাইনালে গতকাল বুধবার নিউজিল্যান্ডকে বিদায় করে ফাইনালে উঠে যায় ভারত। অতীতে তিনবার ফাইনালে খেলে দুইবার শিরোপা জিতে নেয় ভারত। এবার তৃতীয় ট্রফি জয়ের দুয়ারে বিরাট কোহলি-রোহিত শর্মারা।

আজ রোববার দুপুর আড়াইটায় ভারতের আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ১৩তম আসরের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে অনুষ্ঠিত হয়।

ভারতের কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ২৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে যাওয়া দক্ষিণ আফ্রিকা শেষ পর্যন্ত ডেভিড মিলারের সেঞ্চুরিতে ২১২ রান করে।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে অস্ট্রেলিয়া। কোনো উইকেট না হারিয়ে ৬০ রান করা অস্ট্রেলিয়ার এরপর ৭৭ রানের ব্যবধানে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায়। কঠিন চাপের মধ্যে বাড়তি দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেন সাবেক অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ও বর্তমান অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। দলীয় ১৭৪ রানে সপ্তম ব্যাটসম্যান হিসেবে ফেরার আগে ৬২ বলে ৩০ রান করে ফেরেন স্মিথ। এরপর উইকেট কাপড়ে পড়ে থেকে টেস্টের মেজাজে ব্যাটিং করে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়ে মাঠ ছাড়েন অধিনায়ক প্যাট কামিন্স।

বৃহস্পতিবার প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। দলের এমন কঠিন পরিস্থিতিতে একাই লড়াই করেন মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান ডেভিড মিলার। ২৪ রানে প্রথম সারির ৪ ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর হেনরি ক্লেসেনকে সঙ্গে নিয়ে ১১৩ বলে ৯৫ রানের জুটি গড়েন মিলার।

৪ উইকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ছিল ১১৯ রান। এরপর শূন্য রানের ব্যবধানে ফেরেন হেনরি ক্লেসেন ও মার্কু জেনসেন। ক্লেসেন ৪৮ বলে চার বাউন্ডারি আর দুটি ছক্কায় ৪৭ রান করে ফেরেন। গোল্ডেন ডাক মানের জেনসেন।

এরপর সপ্তম উইকেটে জেরাল্ড কোয়েটজিকে সঙ্গে নিয়ে ৭৬ বলে ৫৩ রানের জুটি গড়েন ডেভিড মিলার। ৬ উইকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ছিল ১৭২ রান। এরপর মাত্র ৪০ রানের ব্যবধানে প্রোটিয়ারা হারায় শেষ ৪ উইকেট।

১১.৫ ওভারে দলীয় ২৪ রানে ৪ ব্যাটসম্যান আউট হওয়ার পর ব্যাটিংয়ে নামেন মিলার। ৪৭.২ ওভারে নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে মিলার যখন আউট হন তখন দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ২০৩ রান।

দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ে ধ্বংস্তূপের মাঝে দাঁড়িয়ে ১১৬ বলে ৮টি চার আর ৬টি ছক্কার সাহায্যে ১০১ রান করে ফেরেন মিলার। মিলার আউট হওয়ার পর মাত্র ৯ রানের ব্যবধানে কাগিসো রাবাদা আউট হলে ৪৯.৪ ওভারে ২১২ রানে ইনিংস শেষ হয় দক্ষিণ আফ্রিকার। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন মিচেল স্টার্ক ও প্যাট কামিন্স। ২টি করে উইকেট নেন জশ হ্যাজলউড ও ট্রাভিস হেড।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

জনপ্রিয় সংবাদ

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া

আপডেট টাইম : ১১:৪০:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর ২০২৩

এবারও ‘চোকার’ তকমাও ঘোচাতে পারল না দক্ষিণ আফ্রিকা।  প্রতি বিশ্বকাপে ভালো শুরু করে সেমিফাইনালে গিয়েই তাদের হারতে হয়।  আজ রোমাঞ্চকর সেমিফাইনালের লড়াইয়ে দক্ষিণ আফ্রিকাকে তিন উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে উঠল অস্ট্রেলিয়া।  এর আগে সাতবার ফাইনালে খেলে রেকর্ড পাঁচবার শিরোপা জিতে নেয় অসিরা।

বিশ্বকাপের ১২তম আসরের প্রথম সেমিফাইনালে গতকাল বুধবার নিউজিল্যান্ডকে বিদায় করে ফাইনালে উঠে যায় ভারত। অতীতে তিনবার ফাইনালে খেলে দুইবার শিরোপা জিতে নেয় ভারত। এবার তৃতীয় ট্রফি জয়ের দুয়ারে বিরাট কোহলি-রোহিত শর্মারা।

আজ রোববার দুপুর আড়াইটায় ভারতের আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ১৩তম আসরের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে অনুষ্ঠিত হয়।

ভারতের কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ২৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে যাওয়া দক্ষিণ আফ্রিকা শেষ পর্যন্ত ডেভিড মিলারের সেঞ্চুরিতে ২১২ রান করে।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে অস্ট্রেলিয়া। কোনো উইকেট না হারিয়ে ৬০ রান করা অস্ট্রেলিয়ার এরপর ৭৭ রানের ব্যবধানে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায়। কঠিন চাপের মধ্যে বাড়তি দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেন সাবেক অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ও বর্তমান অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। দলীয় ১৭৪ রানে সপ্তম ব্যাটসম্যান হিসেবে ফেরার আগে ৬২ বলে ৩০ রান করে ফেরেন স্মিথ। এরপর উইকেট কাপড়ে পড়ে থেকে টেস্টের মেজাজে ব্যাটিং করে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়ে মাঠ ছাড়েন অধিনায়ক প্যাট কামিন্স।

বৃহস্পতিবার প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। দলের এমন কঠিন পরিস্থিতিতে একাই লড়াই করেন মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান ডেভিড মিলার। ২৪ রানে প্রথম সারির ৪ ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর হেনরি ক্লেসেনকে সঙ্গে নিয়ে ১১৩ বলে ৯৫ রানের জুটি গড়েন মিলার।

৪ উইকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ছিল ১১৯ রান। এরপর শূন্য রানের ব্যবধানে ফেরেন হেনরি ক্লেসেন ও মার্কু জেনসেন। ক্লেসেন ৪৮ বলে চার বাউন্ডারি আর দুটি ছক্কায় ৪৭ রান করে ফেরেন। গোল্ডেন ডাক মানের জেনসেন।

এরপর সপ্তম উইকেটে জেরাল্ড কোয়েটজিকে সঙ্গে নিয়ে ৭৬ বলে ৫৩ রানের জুটি গড়েন ডেভিড মিলার। ৬ উইকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ছিল ১৭২ রান। এরপর মাত্র ৪০ রানের ব্যবধানে প্রোটিয়ারা হারায় শেষ ৪ উইকেট।

১১.৫ ওভারে দলীয় ২৪ রানে ৪ ব্যাটসম্যান আউট হওয়ার পর ব্যাটিংয়ে নামেন মিলার। ৪৭.২ ওভারে নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে মিলার যখন আউট হন তখন দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ২০৩ রান।

দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ে ধ্বংস্তূপের মাঝে দাঁড়িয়ে ১১৬ বলে ৮টি চার আর ৬টি ছক্কার সাহায্যে ১০১ রান করে ফেরেন মিলার। মিলার আউট হওয়ার পর মাত্র ৯ রানের ব্যবধানে কাগিসো রাবাদা আউট হলে ৪৯.৪ ওভারে ২১২ রানে ইনিংস শেষ হয় দক্ষিণ আফ্রিকার। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন মিচেল স্টার্ক ও প্যাট কামিন্স। ২টি করে উইকেট নেন জশ হ্যাজলউড ও ট্রাভিস হেড।