ঢাকা ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তিন মাসে নির্যাতন ও হয়রানির শিকার ৫৬ সাংবাদিক : আসক

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৪:৩৪:৫১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মার্চ ২০২৩
  • ৭২ বার

পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে দেশে গত তিন মাসে ৫৬ জন সাংবাদিক বিভিন্নভাবে হয়রানি, হুমকি ও নির্যাতনের শিকার হয়েছেন।

শুক্রবার (৩১ মার্চ) সকালে মানবাধিকার লঙ্ঘনসংক্রান্ত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক)।

প্রতিবেদন আরও বলা হয়, গত তিন মাসে দেশে ৫টি ঘটনায় হিন্দু সম্প্রদায়ের ৩টি বাড়িঘরসহ ১টি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে দুর্বৃত্তদের হামলার ঘটনা ঘটেছে। অন্যদিকে পঞ্চগড়ে আহমদিয়া সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় আহমদিয়া সম্প্রদায়ের ১ জন নিহত ও কমপক্ষে ৬২ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ১০৩টি বাড়ি ও ৩৩টি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। একই সঙ্গে এই সময়ে বিভিন্ন পর্যায়ের স্থানীয় নির্বাচনসহ রাজনৈতিক সংঘাত ও সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে মোট ১০২টি। এতে নিহত হয়েছেন ৬ জন এবং আহত হয়েছেন প্রায় ১ হাজার ৩৭৪ জন।

এ ছাড়া গত তিন মাসে ১২৪ জন নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে ১২ জনকে। ধর্ষণের চেষ্টা চালানো হয়েছে ৩৪ জন নারীকে। একই সময়ে বিভিন্ন ধরনের নির্যাতন ও হত্যার শিকার হয়েছে ৩৫৩ জন শিশু। এর মধ্যে হত্যার শিকার হয়েছে ৫২ জন শিশু। পাশাপাশি উল্লেখিত সময়ে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলি ও নির্যাতনে নিহত হয়েছেন ৫ বাংলাদেশি এবং আহত হয়েছেন ৬ জন।

দেশের ১০টি জাতীয় দৈনিক ও বিভিন্ন অনলাইন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ ও আসকের নিজস্ব সূত্র থেকে সংগৃহীত তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি তৈরি করেছে আসক। নাগরিকদের সব ধরনের মানবাধিকারের সুরক্ষা এবং ভুক্তভোগীদের ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছে সংস্থাটি।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

তিন মাসে নির্যাতন ও হয়রানির শিকার ৫৬ সাংবাদিক : আসক

আপডেট টাইম : ০৪:৩৪:৫১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মার্চ ২০২৩

পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে দেশে গত তিন মাসে ৫৬ জন সাংবাদিক বিভিন্নভাবে হয়রানি, হুমকি ও নির্যাতনের শিকার হয়েছেন।

শুক্রবার (৩১ মার্চ) সকালে মানবাধিকার লঙ্ঘনসংক্রান্ত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক)।

প্রতিবেদন আরও বলা হয়, গত তিন মাসে দেশে ৫টি ঘটনায় হিন্দু সম্প্রদায়ের ৩টি বাড়িঘরসহ ১টি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে দুর্বৃত্তদের হামলার ঘটনা ঘটেছে। অন্যদিকে পঞ্চগড়ে আহমদিয়া সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় আহমদিয়া সম্প্রদায়ের ১ জন নিহত ও কমপক্ষে ৬২ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ১০৩টি বাড়ি ও ৩৩টি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। একই সঙ্গে এই সময়ে বিভিন্ন পর্যায়ের স্থানীয় নির্বাচনসহ রাজনৈতিক সংঘাত ও সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে মোট ১০২টি। এতে নিহত হয়েছেন ৬ জন এবং আহত হয়েছেন প্রায় ১ হাজার ৩৭৪ জন।

এ ছাড়া গত তিন মাসে ১২৪ জন নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে ১২ জনকে। ধর্ষণের চেষ্টা চালানো হয়েছে ৩৪ জন নারীকে। একই সময়ে বিভিন্ন ধরনের নির্যাতন ও হত্যার শিকার হয়েছে ৩৫৩ জন শিশু। এর মধ্যে হত্যার শিকার হয়েছে ৫২ জন শিশু। পাশাপাশি উল্লেখিত সময়ে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলি ও নির্যাতনে নিহত হয়েছেন ৫ বাংলাদেশি এবং আহত হয়েছেন ৬ জন।

দেশের ১০টি জাতীয় দৈনিক ও বিভিন্ন অনলাইন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ ও আসকের নিজস্ব সূত্র থেকে সংগৃহীত তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি তৈরি করেছে আসক। নাগরিকদের সব ধরনের মানবাধিকারের সুরক্ষা এবং ভুক্তভোগীদের ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছে সংস্থাটি।