,

৮ হাজার ৬০০ বাংলাদেশি ফ্রান্সে রাজনৈতিক আশ্রয় চান

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ফ্রান্সে রাজনৈতিক আশ্রয়ের জন্য গত বছর আবেদন করা বিদেশি নাগরিকদের পরিসংখ্যার প্রকাশ করেছে দেশটির আশ্রয় প্রদান সম্পর্কিত দপ্তর (অফপ্রা)। সেই তালিকা বিশ্লেষণ করে জানা গেছে, গত বছর ফ্রান্সে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়ে সবচেয়ে বেশি আবেদন জমা পড়েছে আফগানিস্তানের। তালিকায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ।

প্রকাশিত ওই পরিসংখ্যানে দেখা যায়, ২০২২ সালে মোট ১ লাখ ৩১ হাজার বিদেশি নাগরিক ফ্রান্সে আশ্রয়ের জন্য আবেদন করেছেন, যা আগের বছরের তুলনায় ২৭ শতাংশ বেশি। তবে গত বছর প্রথমবারের মতো রাজনৈতিক আশ্রয়ের জন্য আবেদন করেছেন ১ লাখ ১৪ হাজার ৭১০ জন। বাকিরা পুনরায় আবেদন করেছেন।

করোনা মহামারির কারণে ২০২০ ও ২০২১ সালে ফ্রান্সে আশ্রয়ের জন্য আবেদনের সংখ্যা কমে এসেছিল। কিন্তু গত বছর দেশটিতে করোনা নিয়ন্ত্রণে আসায় আবারও বেড়েছে রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন করা বিদেশি নাগরিকের সংখ্যা।

২০২১ সালের মতো এবারও রাজনৈতিক আশ্রয়ের জন্য আবেদন করা সর্বোচ্চ বিদেশি নাগরিক আফগানরা। ১৭ হাজার আফগান গত বছর ফ্রান্সে প্রথমবারের মতো রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছেন। এই সংখ্যাটি আগের বছরের তুলনায় ৩৭ শতাংশ বেশি বলে জানিয়েছে অফপ্রা। আফগানিস্তানে তালেবানের ক্ষমতা দখলের কারণে দেশটির নাগরিকদের দেশ ছেড়ে যাওয়ার হার বেড়েছে।

অপরদিকে, ৮ হাজার ৬০০ আবেদন নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন বাংলাদেশিরা। ২০২১ সালে ৬ হাজার ২০০টি আবেদন নিয়ে যৌথভাবে আইভরি কোস্টের সঙ্গে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল বাংলাদেশ। গত বছর বাংলাদেশিদের আশ্রয় আবেদন ও সুরক্ষা চাওয়ার হার বেড়েছে।

এ ছাড়া ৮ হাজার ৫০০ আবেদন নিয়ে তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে আছে তুরস্ক। চতুর্থ অবস্থানে থাকা জর্জিয়ানরা, তাদের সংখ্যা ৮ হাজার ১০০। শীর্ষ আবেদনকারী দেশগুলোর মধ্যে একমাত্র আফ্রিকান দেশ হিসেবে স্থান পেয়েছে কঙ্গো। দেশটির নাগরিকেরা গত বছর ফ্রান্সে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছেন ৫ হাজার ৯০০টি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর