,

যুক্তরাজ্যের উদ্যোক্তাদের বাংলাদেশে রিসাইক্লিং ইন্ডাস্ট্রিতে বিনিয়োগের আহ্বান

হাওর বার্তা ডেস্কঃ যুক্তরাজ্যের উদ্যোক্তাদের বাংলাদেশের রিসাইক্লিং ইন্ডাস্ট্রিসহ পরিবেশ-বান্ধব খাতে আরও বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।

বুধবার (৯ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ হাই কমিশন, লন্ডন আয়োজিত ‘Trade, Growth and Partnership’ শীর্ষক উচ্চ পর্যায়ের এক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এ আহ্বান জানান।

লন্ডন ভিত্তিক বিশ্বের নেতৃস্থানীয় বহুজাতিক এবং ব্রিটিশ কোম্পানির বিপুল সংখ্যক প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে এই বৈঠকের প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিগত এক দশকের বেশি সময়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী ও উদ্ভাবনী নেতৃতে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব অর্থনৈতিক উন্নয়নের বিভিন্ন তথ্য ও পরিসংখ্যান তুলে ধরে সালমান ফজলুর রহমান এমপি বলেন, “বাংলাদেশ বর্তমানে বিনিয়োগের যে অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে তাঁর সুযোগ নিয়ে যুক্তরাজ্যের ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তারা লাভবান হতে পারেন।”

এ প্রসঙ্গে তিনি রিসাইক্লিং ইন্ডাস্ট্রি এবং বাংলাদেশের পুঁজিবাজার ও স্বাস্থ্য খাতের প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা বৃদ্ধি ও ডিজিটাল ব্যাংকিং-এ বিদেশি বিনিয়োগের কথা গুরুত্বের সাথে উল্লেখ করে বলেন, “রিসাইক্লিং ইন্ডাস্ট্রিতে বিশেষ করে গার্মেন্টস সেক্টরে রিসাইক্লিংয়ের জন্য আমাদের বিপুল বিনিয়োগ দরকার।”

বর্তমান বিশ্বে বহুল আলোচিত পরিবেশ, সামাজিক ও শাসন (Environment, Social and Governance- ESG)-এর কথা গুরুত্বের সঙ্গে উল্লেখ  করে তিনি বলেন,  বাংলাদেশে ESG ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা এবং সুযোগগুলোকে কাজে দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগের বিশাল সুযোগ রয়েছে।

সালমান রহমান আরও বলেন, “সরকার ইতোমধ্যেই বিদেশী বিনিয়োগকারীদের জন্য মুনাফা প্রত্যাবাসন অনেক সহজ করেছে এবং তালিকাভুক্ত কোম্পানির জন্য মুনাফা প্রত্যাবাসনে এখন কোনো প্রতিবন্ধক নেই।”

যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম অনুষ্ঠানে জাতির পিতার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে তাঁরই সুযোগ্য উত্তরসূরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃতে বাংলাদেশ পরিবেশ-বান্ধব ব্যবসা-বাণিজ্যসহ বিভিন্ন সেক্টরে যুক্তরাজ্যের উদ্যোক্তাদের জন্য লাভজনক বিনিয়োগের সুযোগ-সুবিধাগুলো তুলে ধরেন। তিনি বলেন, এক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় তথ্য, পরামর্শ ও অন্যান্য সহযোগিতা প্রদানের জন্য বাংলাদেশ হাই কমিশন, লন্ডন সব সময় প্রস্তুত রয়েছে।

অনুষ্ঠানে ইউকে ফরেন, কমনওয়েলথ ও ডেভেলপমেন্ট (এফসিডিও) অফিসের ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলের প্রতিমন্ত্রী অ্যান-মেরি ট্রেভেলিয়ান এমপি-এর প্রতিনিধি এবং এফসিডিও-এর ইন্ডিয়ান ওসেন ডাইরেক্টরেট-এর প্রধান বেন মেলার বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বিনিয়োগ ও বাণিজ্য আরও বৃদ্ধি ও বহুমুখীকরণের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

কমনওয়েলথ এন্টারপ্রাইজ অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট কাউন্সিলের চেয়ারম্যান লর্ড মারল্যান্ড, ব্রিটিশ-এশিয়ান ট্রাস্টের চেয়ারম্যান লর্ড গাডিয়া, সান মার্ক লিমিটেডের চেয়ারম্যান লর্ড রামি রেঞ্জার সিবিই, এলজাব্রার চিফ স্ট্র্যাটেজি অফিসার নিজাম উদ্দিন ওবিই, লন্ডন টি এক্সচেঞ্জ-এর সিইও শেখ অলিউর রহমান, এশিয়ান টাইগার ক্যাপিটাল পার্টনারস-এর চেয়ারম্যান ইফতি ইসলাম এবং গোল্ডম্যান স্যাচ, এইচএসবিসি, ইউনিলিভার, ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকোসহ যুক্তরাজ্যের শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও সেবা খাতের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ও উন্মুক্ত আলোচনায়  অংশ নেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর