,

Screenshot_20210707-092617_

পুত্রবধূর ‘আত্মহত্যায়’ শ্বশুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ, শ্বশুর আটক

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ছয় মাস আগে কিশোরগঞ্জের মিঠামইনে শ্বশুরের দ্বারা ধর্ষিত হয়ে শুক্রবার (২৪ জুন) এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ অভিযোগে শ্বশুরকে আটক করেছে মিঠামইন থানা পুলিশ।

শুক্রবার (২৪ জুন) রাত ১১টায় উপজেলার ঢাকী ইউনিয়নের পাতারকান্দি এলাকা থেকে অভিযুক্ত ওই শ্বশুরকে আটক করা হয়।

মিঠামইন থানার ওসি কলিন্দ্র নাথ গোলদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ভুক্তভোগীর মা জানান, দুই বছর আগে উপজেলার ঢাকী ইউনিয়নের পাতারকান্দি গ্রামের একাব্বর মিয়ার ছেলে দিদারের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় তার কন্যার।

বিয়ের কিছুদিন পর দিদার কাজ করতে চলে যান চট্টগ্রাম। ছুটি নিয়ে তিনি মাঝে মাঝে বাড়িতে আসতেন।

ফাঁকা বাড়িতে একাই থাকতেন তার কন্যা। এই সুযোগে ৬ মাস আগে ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করেন শ্বশুর একাব্বর।

পরে ভুক্তভোগী মোবাইল ফোনে বিষয়টি তার স্বামীকে জানালে তিনি বাড়িতে আসেন। বাড়ি এসে বাবার সঙ্গে রাগারাগি করে স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি ঢাকী ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামে চলে যান দিদার।

আর এ বিষয়ে কাউকে কিছু না বলতে নিষেধ করেন স্ত্রীকে এবং কিছুদিনের মধ্যেই আবারও দিদার চট্টগ্রাম চলে যান।

এরপর স্ত্রীর সঙ্গে ধীরে ধীরে যোগাযোগ কমাতে থাকেন স্বামী দিদার। এক পর্যায়ে তিনি স্ত্রীকে বলেন, ‘তুমি আমার বাবার সঙ্গে খারাপ কাজ করেছো। এখন তোমার সঙ্গে কিভাবে যোগাযোগ রাখি। আর কীভাবেই বা আমার বাড়িতে নিই।’

এ অবস্থায় বেশ কিছুদিন স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে যোগাযোগ বন্ধ ছিল। সম্প্রতি দিদার ফোন করে স্ত্রীকে জানান, স্ত্রীকে আর ঘরে নেবেন না তিনি।

এই অপমান সহ্য করতে না পেরে শুক্রবার (২৪ জুন) সকাল ১১টার দিকে বাবার বাড়ি গোবিন্দপুরে গলায় উড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেন গৃহবধূ।

মিঠামইন থানার ওসি কলিন্দ্র নাথ গোলদার বলেন, শুক্রবার (২৪ জুন) রাতে নিহতের মা বাদী হয়ে দুইজনকে আসামি করে মিঠামইন থানায় মামলা দায়ের করেছেন। শনিবার (২৫ জুন) আসামি একাব্বরকে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর