,

rape4-20210220170058

আশ্বাসে নারীকে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বিয়ের আশ্বাস দিয়ে এক নারীকে (২৩) বিভিন্ন স্থানে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ সাঈদ হোসেন (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। গত শনিবার বিকালে বন্দরের আমিন আবাসিক এলাকায় অভিযান চালিয়ে সাঈদকে গ্রেফতার করা হয়।

গত ১৭ জুন গত শুক্রবার রাতে বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের বুরুমদী এলাকায় ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে শনিবার বন্দর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

সাঈদ হোসেন বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের বুরুমদী এলাকার তাওলাদ হোসেনের ছেলে বলে জানা গেছে।

ভুক্তভোগী নারী জানান, বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের বুরুমদী এলাকার তাওলাদ হোসেনের ছেলে সাঈদ হোসেন গাজীপুরে চাকরি করার সুবাদে তার সঙ্গে পরিচয় হয়। পরিচয়ের সূত্র ধরে সে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে সাঈদ তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে। শুক্রবার রাতে বন্দর উপজেলার বুরুমদী এলাকায় আবারো বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে।

বন্দর থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা জানান, বন্দর থানায় মামলা হওয়ার পর পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করেছে।

অপরদিকে বন্দরে বোনের বাড়িতে বেড়াতে এসে যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে ১০ বছরের এক শিশু। এ ঘটনায় আব্দুল মালেক (২০) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে  বন্দর থানার একরামপুর এলাকায় যৌন নিপীড়নের ঘটনাটি ঘটে।

গ্রেফতার আব্দুল মালেক চাঁদপুর জেলার সদর থানার ইব্রাহিমপুর এলাকার লতিফ বেগের ছেলে। এ ঘটনায় বন্দর থানায় মামলা হয়েছে।

বন্দর থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা জানান, শিশুটি চাঁদপুর থেকে তার বড়বোনের বাড়িতে বেড়াতে আসে। মালেক শিশুটিকে ডেকে নিয়ে একটি তিনতলা ভবনের ছাদে নিয়ে যৌনপীড়ন করে। এ ঘটনায় থানায় দায়ের হয়েছে।  মালেককে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর