,

1654535629_01-Daily-Inqilab

মহানবী (সা.)কে অবমাননা করে বিজেপি মুখপাত্রদের মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানালো পাকিস্তান

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সম্প্রতি মহানবী সা.কে অসম্মান করে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির দুই সিনিয়র কর্মকর্তার অত্যন্ত অবমাননাকর মন্তব্যের তীব্র ও কঠিন ভাষায় নিন্দা জানিয়েছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, এই ধরনের বক্তব্য সম্পূর্ণরূপে অগ্রহণযোগ্য। রাসুল সা.কে কুৎসা করে এমন দায়িত্বহীন মন্তব্য কেবল পাকিস্তানের জনগণেরই নয়, বিশ্বের কোটি কোটি মুসলমানের অনুভূতিকে গভীরভাবে আঘাত করেছে। -জিওটিভি, ডন

পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে রবিবারে জারি করা প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে বিজেপির স্পষ্টীকরণের চেষ্টা এবং বিলম্বিত এবং বেপরোয়া শাস্তিমূলক ব্যবস্থা মুসলিম বিশ্বের জন্য তারা যে বেদনা ও যন্ত্রণার সৃষ্টি করেছে, তা প্রশমিত করতে পারে না। বিজেপির দুই কর্মকর্তার সম্পূর্ণ বিদ্বেষপূর্ণ মন্তব্যে ভারতে বসবাসকারী মুসলমানরাও সমানভাবে ক্ষুব্ধ। কানপুর এবং ভারতের অন্যান্য অংশে পরবর্তী সাম্প্রদায়িক সহিংসতা এই সত্যের সাক্ষ্য বহন করে। ভারতে মুসলমানদের বিরুদ্ধে পরিচালিত সাম্প্রদায়িক সহিংসতা এবং ঘৃণার উদ্বেগজনক বৃদ্ধিতেও পাকিস্তান গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। ভারতে মুসলমানদেরকে পরিকল্পিতভাবে কলঙ্কিত করা হচ্ছে, প্রান্তিক করা হচ্ছে এবং ভারতের বিভিন্ন রাজ্য জুড়ে নিরাপত্তাবাহিনীর যোগসাজশে এবং সমর্থন নিয়ে উগ্র হিন্দু জনতার একটি সুপরিকল্পিত আক্রমণের শিকার হচ্ছে মুসলিমরা।

বিজেপি-শাসিত কয়েকটি রাজ্যে সংখ্যালঘুদের অধিকার ক্রমাগত গুরুতর লঙ্ঘন; ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার কর্তৃক মুসলিম বিরোধী আইন এবং সম্পূর্ণ দায়মুক্তি সহ বিভিন্ন ‘হিন্দুত্ব’ গোষ্ঠীর তুচ্ছ অজুহাতে মুসলমানদের বিরুদ্ধে সহিংসতার অব্যাহত ঘটনা এবং প্রায়শই রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় ভারতে ইসলামোফোবিয়া এবং চরমপন্থার ক্রমবর্ধমান প্রবণতাকে তুলে ধরে। বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের নীরবতা আরও একটি প্রমাণ যে, এই হিন্দু উগ্রবাদীরা সংখ্যালঘুদের, বিশেষ করে মুসলমানদের প্রান্তিককরণ এবং তাদের সাথে অমানবিক আচরণ করার জন্য তাদের ঘৃণ্য পরিকল্পনা বাস্তবায়নে রাষ্ট্রযন্ত্রের নিরঙ্কুশ সমর্থন পায়।

নিন্দনীয় হলেও সত্য, মুসলমানদের বেঁচে থাকার এবং স্বাধীনভাবে তাদের ধর্ম পালন করার অধিকার থেকে বঞ্চিত করা ভারতে একটি নিয়ম হয়ে দাঁড়িয়েছে। এটা দুঃখজনক যে, বিজেপি-আরএসএস দল, চরমপন্থী ‘হিন্দুত্ব’ এজেন্ডার অধীনে, ভারতীয় মুসলমানদের এবং তাদের উপাসনালয়ের বিরুদ্ধে বিদ্বেষপূর্ণভাবে নিন্দিত এবং সংবেদনশীল সহিংসতা করেছে। পাকিস্তান ভারতকে আহ্বান জানিয়েছে যে, দেশটি যেন অবমাননাকর মন্তব্য করা এবং পবিত্র নবী মুহাম্মাদ (সা.) এর মর্যাদায় আঘাত করার জন্য দায়ীদের বিরুদ্ধে নিষ্পত্তিমূলক এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নেয়। ভারতকে অবশ্যই তার সংখ্যালঘুদের মানবাধিকার লঙ্ঘন থেকে রক্ষা করার জন্য অবিলম্বে পদক্ষেপ নিতে হবে, তাদের নিরাপত্তা এবং মঙ্গল নিশ্চিত করতে হবে এবং তাদের শান্তিতে তাদের ধর্মের প্রচার ও অনুশীলন করার অনুমতি দিতে হবে।

ওই বিবৃতিতে পাকিস্তান আবারও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ভারতে ইসলামোফোবিয়ার গুরুতর ক্রমবর্ধমান পরিস্থিতি অবিলম্বে বিবেচনা করার আহ্বান জানিয়েছে। সংখ্যালঘুদের বিশেষ করে মুসলমানদের তাদের বিশ্বাস ও ধর্মীয় বিশ্বাস পালনের অধিকার ক্ষুন্ন করার জন্য ভারতকে অবশ্যই জবাবদিহি করতে হবে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় অবশ্যই ভারতকে তাদের “জাফরানাইজেশন” এর নিন্দনীয় প্রচার থেকে বিরত করতে হবে এবং নিশ্চিত করতে হবে যে, সংখ্যাগরিষ্ঠ জনসংখ্যার চেয়ে ভিন্ন ধর্মীয় বিশ্বাসের জন্য মুসলমানরা যেন বঞ্চনার শিকার না হয়। ভারতে মুসলিমদেরকে হিন্দুত্ব-অনুপ্রাণিত হিন্দু উগ্রবাদীদের হাতে আসন্ন গণহত্যা থেকে রক্ষা করার জন্য বিশ্বকে অবশ্যই হস্তক্ষেপ করতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর