,

download (10)

পুকুর খননে বেরিয়ে এলো ৫ মণ ওজনের বিষ্ণুমূর্তি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ফরিদপুরের নগরকান্দায় পুকুর খননের সময় প্রাচীন একটি কষ্টিপাথরের বিষ্ণমূর্তি পাওয়া গেছে। মূর্তিটির ওজন প্রায় পাঁচ মণ।

রোববার (৫ জুন) সন্ধ্যায় উপজেলার ডাংগী ইউনিয়নের আটাইল গ্রাম থেকে মূর্তিটি উদ্ধার করা হয়।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার আটাইল গ্রামের জহুরুল হক গত কয়েকদিন ধরে তার জমিতে পুকুর খননের কাজ করছিলেন। ভেকু মেশিন দিয়ে মাটি খননের সময় হঠাৎ শক্ত পাথরের সঙ্গে ঘর্ষণে বিকট শব্দ হয়। এক পর্যায়ে ভেকু মেশিনের টানে মূর্তিটি উঠে আসে। পরে পুলিশকে খবর দিলে মূর্তিটি উদ্ধার করে তারা থানায় নিয়ে যান।

কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে ভাঙ্গী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান কাজী আবুল কালাম বলেন, আগে ওই এলাকায় হিন্দু জমিদারদের বসবাস ছিল। এটি তাদেরই ব্যবহৃত মূর্তি হতে পারে।

তিনি আরও বলেন, মূর্তিটির ওজন প্রায় পাঁচ মণ। এটি দেখার পর হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন সেখানে পূজা-অর্চনা শুরু করেন। মূর্তিটি এক নজর দেখার জন্য সেখানে শত শত লোকের সমাগম ঘটে।

নগরকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিল হোসেন  বলেন, মূর্তিটি উদ্ধার করে থানায় রাখা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

এ বিষয়ে ফরিদপুরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (নগরকান্দা সার্কেল) সুমিনুর রহমান  বলেন, ধারণা করা হচ্ছে এটি অনেক প্রাচীন ও মূল্যবান পাথরের তৈরি মূর্তি। আমরা মূর্তিটি হস্তান্তরের জন্য প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছি। তারাই পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বলতে পারবেন এটি কীসের তৈরি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) এন এম আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, মূর্তিটি উদ্ধার করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। নিয়মকানুন অনুসরণ করে মূল্যবান মূর্তিটি প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর