,

bd-srilanka21

শ্রীলংকা সিরিজ উইকেট নিয়ে দুই ভাগ বাংলাদেশ দল

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক সমস্যায় পড়েন টস জিতলে! ফিল্ডিং নেন কিংবা ব্যাটিং, সফল না হলেই শুরু হয়ে যায় সমালোচনা। আরেকটি নতুন সমস্যা তৈরি হয়েছে।

হোম সিরিজে কেমন উইকেট হবে, এ নিয়ে চলে গবেষণা। শ্রীলংকার বিপক্ষে কেমন উইকেটে খেলা হবে, এ নিয়ে টিম ম্যানেজমেন্ট ও সিনিয়র খেলোয়াড়দের মধ্যে ভিন্নমত রয়েছে।

দেশের মাটিতে খেলায় এতদিন বাংলাদেশের মূল শক্তি ছিল স্পিন। তবে আফগানিস্তানের বিপক্ষে হোম সিরিজে স্পিনে ধরাশায়ী হওয়াটাকে অনেকে দুর্ঘটনা বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে এবার দুই টেস্টেরই দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ সব উইকেট হারিয়েছে স্পিনে। মাঝারি মানের প্রোটিয়া স্পিনারদের বিপক্ষে বাংলাদেশের ভঙ্গুর ব্যাটিং যারপরনাই হতাশ করেছে সবাইকে। অধিনায়ক মুমিনুল হক তখন বলেছিলেন, ‘ভালোমানের স্পিনারদের বিপক্ষে কখনই আমরা ভালো ছিলাম না।’

বিসিবির একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানিয়েছে, শ্রীলংকার বিপক্ষে কেমন উইকেটে খেলা হবে, এ নিয়ে সিনিয়র ক্রিকেটার, কোচ ও টিম ম্যানেজমেন্টের মধ্যে মতের অমিল রয়েছে। সূত্র জানিয়েছে, দলের কয়েকজন সিনিয়র ক্রিকেটার শ্রীলংকা সিরিজে স্পিন সহায়ক উইকেট চান। কিন্তু কোচিং স্টাফ ও টিম ম্যানেজমেন্টের কয়েকজনের চাওয়া স্পোর্টিং উইকেট। মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের উইকেট তৈরি করেন প্রধান কিউরেটর শ্রীলংকার গামিনি ডি সিলভা। উইকেট নিয়ে কখনই সাংবাদিকদের সামনে মুখ খোলেন না তিনি। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের দায়িত্বে আছেন জাহিদ রেজা। উইকেট নিয়ে বোমা মেরে তার মুখ থেকেও কথা বের করা কঠিন। ১৫ মে চট্টগ্রামে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। মিরপুরে দ্বিতীয় টেস্ট শুরু ২৩ মে।

সর্বশেষ দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে স্পিনে ব্যর্থ হওয়ার পর বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান বলেছিলেন, ‘এতদিন জানতাম আমরা পেস বোলিংয়ের বিপক্ষে দুর্বল। এখন দেখছি উলটো। নতুন করে ভাবতে হবে।’ নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিসিবির এক পরিচালক কাল যুগান্তরকে বলেন, ‘উইকেট নিয়ে নতুন করে আলোচনা শুরু হয়েছে। সাকিব দলে ফিরেছে। দেশের মাটিতে খেলা। দলের অনেকে স্পিন উইকেট চায়। আবার সদ্যপ্রাপ্ত অভিজ্ঞতা থেকে স্পোর্টিং উইকেটের কথাও বলছে কেউ কেউ। শেষেরটার সম্ভাবনাই বেশি। শ্রীলংকার বিপক্ষে সুযোগ কেউ হাতছাড়া করতে চায় না।’

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর