ঢাকা ১২:৩১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইবাদত-বন্দেগিতে পালিত হচ্ছে লাইলাতুল বরাত

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৫:৫৪:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুন ২০১৫
  • ৩৯১ বার
যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে সারা দেশে পালিত হচ্ছে সৌভাগ্য রজনী পবিত্র ‘শবে বরাত’। আরবিতে একে বলা হয় ‘লাইলাতুল বরাত’। এ রাতে মহান আল্লাহ তায়ালা বিশ্বমানবতার জন্য তার রহমতের দরজা খুলে দেন।
সারারাত এবাদত-বন্দেগীসহ মুসলিম উম্মাহর সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশ্বের মুসলমান সমপ্রদায় বিশেষ মোনাজাত ও দোয়াখায়ের করবেন। পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে ধর্মপ্রাণ নারী-পুরুষ নফল রোজা পালন করেন।
পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপি চেয়ারপারসন এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন।
মহান রবের পক্ষ থেকে ক্ষমা ও রহমত লাভের আশায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ সারা দেশের মসজিদগুলোতে ভিড় করছেন মুসল্লিরা। মসজিদ, মাদ্রাসা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলোতে আলোচনা, মিলাদ-মাহফিল ও নফল ইবাদতের আয়োজন করা হয়েছে। ঘরে ঘরে চলছে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াত ও নফল নামাজ আদায়।
সকাল পর্যন্ত এভাবে ইবাদত বন্দেগিতে বিনিদ্র রজনী পার করবেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। রাতব্যাপী ইবাদত ছাড়াও মহিমান্বিত এই রজনীতে মরহুম পিতা-মাতা, আত্মীয়-স্বজনসহ প্রিয়জনদের কবর জেয়ারত করেছেন অনেকে।
হিজরি বর্ষপঞ্জির শাবান মাসের ১৪ তারিখ দিবাগত রাতটিই শবে বরাত। দুনিয়াজুড়ে মুসলমানদের কাছে দিনটি অত্যন্ত পবিত্র ও মহিমান্বিত।
পাপ থেকে ক্ষমা প্রার্থনা করে নিষ্কৃতি লাভের পরম সৌভাগ্যের এ রাত। বিশ্বের মুসলমানরা আল্লাহর বিশেষ নৈকট্য ও করুণা লাভের আশায় এ রাতে আল্লাহর ধ্যানে মগ্ন থাকেন। পরম করুণাময় আল্লাহ রাববুল আলামীন এই রাতে নিকটতম আকাশের দিকে দৃষ্টিদেন। করুণা সিক্ত করেন তাঁর বান্দাদের।
মুসলমানদের জীবনে যে তিনটি রাতকে আল্লাহ শ্রেষ্ঠত্ব দিয়েছেন, শবে বরাত তার মধ্যে অন্যতম। রমজানের সিয়াম সাধনা বা আত্মসংযমের মানসিক প্রস্তুতি এ রাতের ইবাদত বন্দেগি ও আল্লাহর দরবারে পানাহ চাওয়ার মধ্য দিয়ে শুরু হয়। এ কারণে ধর্মপ্রাণ মানুষের কাছে এ রাতটির গুরুত্বও তাৎপর্য অনেক।
এরাতের গুরুত্ব সম্পর্কে পবিত্র হাদিস শরীফে বলা হয়েছে, পরবর্তী বছরের হায়াত, মউত, রিজিক, দৌলত, আমল প্রভৃতি যাবতীয় আদেশ নির্দেশ এ রাতেই ফায়সালা করা হয়।
এদিকে পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষ্যে সকল ধরণের বিস্ফোরণ ও আতশবাজি নিষিদ্ধ করে আদেশ জারি করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। সোমবার ডিএমপি কমিশনার স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ আদেশ জারি করা হয়।
Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

ইবাদত-বন্দেগিতে পালিত হচ্ছে লাইলাতুল বরাত

আপডেট টাইম : ০৫:৫৪:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুন ২০১৫
যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে সারা দেশে পালিত হচ্ছে সৌভাগ্য রজনী পবিত্র ‘শবে বরাত’। আরবিতে একে বলা হয় ‘লাইলাতুল বরাত’। এ রাতে মহান আল্লাহ তায়ালা বিশ্বমানবতার জন্য তার রহমতের দরজা খুলে দেন।
সারারাত এবাদত-বন্দেগীসহ মুসলিম উম্মাহর সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশ্বের মুসলমান সমপ্রদায় বিশেষ মোনাজাত ও দোয়াখায়ের করবেন। পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে ধর্মপ্রাণ নারী-পুরুষ নফল রোজা পালন করেন।
পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপি চেয়ারপারসন এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন।
মহান রবের পক্ষ থেকে ক্ষমা ও রহমত লাভের আশায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ সারা দেশের মসজিদগুলোতে ভিড় করছেন মুসল্লিরা। মসজিদ, মাদ্রাসা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলোতে আলোচনা, মিলাদ-মাহফিল ও নফল ইবাদতের আয়োজন করা হয়েছে। ঘরে ঘরে চলছে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াত ও নফল নামাজ আদায়।
সকাল পর্যন্ত এভাবে ইবাদত বন্দেগিতে বিনিদ্র রজনী পার করবেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। রাতব্যাপী ইবাদত ছাড়াও মহিমান্বিত এই রজনীতে মরহুম পিতা-মাতা, আত্মীয়-স্বজনসহ প্রিয়জনদের কবর জেয়ারত করেছেন অনেকে।
হিজরি বর্ষপঞ্জির শাবান মাসের ১৪ তারিখ দিবাগত রাতটিই শবে বরাত। দুনিয়াজুড়ে মুসলমানদের কাছে দিনটি অত্যন্ত পবিত্র ও মহিমান্বিত।
পাপ থেকে ক্ষমা প্রার্থনা করে নিষ্কৃতি লাভের পরম সৌভাগ্যের এ রাত। বিশ্বের মুসলমানরা আল্লাহর বিশেষ নৈকট্য ও করুণা লাভের আশায় এ রাতে আল্লাহর ধ্যানে মগ্ন থাকেন। পরম করুণাময় আল্লাহ রাববুল আলামীন এই রাতে নিকটতম আকাশের দিকে দৃষ্টিদেন। করুণা সিক্ত করেন তাঁর বান্দাদের।
মুসলমানদের জীবনে যে তিনটি রাতকে আল্লাহ শ্রেষ্ঠত্ব দিয়েছেন, শবে বরাত তার মধ্যে অন্যতম। রমজানের সিয়াম সাধনা বা আত্মসংযমের মানসিক প্রস্তুতি এ রাতের ইবাদত বন্দেগি ও আল্লাহর দরবারে পানাহ চাওয়ার মধ্য দিয়ে শুরু হয়। এ কারণে ধর্মপ্রাণ মানুষের কাছে এ রাতটির গুরুত্বও তাৎপর্য অনেক।
এরাতের গুরুত্ব সম্পর্কে পবিত্র হাদিস শরীফে বলা হয়েছে, পরবর্তী বছরের হায়াত, মউত, রিজিক, দৌলত, আমল প্রভৃতি যাবতীয় আদেশ নির্দেশ এ রাতেই ফায়সালা করা হয়।
এদিকে পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষ্যে সকল ধরণের বিস্ফোরণ ও আতশবাজি নিষিদ্ধ করে আদেশ জারি করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। সোমবার ডিএমপি কমিশনার স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ আদেশ জারি করা হয়।